MysmsBD.ComLogin Sign Up

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে ।

হায়দরাবাদকে আলোকিত করা তিন ‘রত্ন’

In ক্রিকেট দুনিয়া - May 30 at 3:56pm
হায়দরাবাদকে আলোকিত করা তিন ‘রত্ন’

ভয়, শঙ্কা নিয়ে মুস্তাফিজুর রহমানের ভারতযাত্রা। উদ্দেশ্য ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক টুর্নামেন্ট আইপিএলে খেলা। ১ কোটি ৪০ লাখ রূপিতে মুস্তাফিজকে দলে কিনে নেয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

নিলামে টম মুডি, ভিভিএস লক্ষ্মণরা মুস্তাফিজকে নিয়ে টানাটানি করেছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে। দেড় মাসের টুর্নামেন্ট শেষে দেখা গেল সেই বেঙ্গালুরুকে হারিয়েই শিরোপা জিতল মুস্তাফিজদের হায়দরাবাদ।

ফাইনালে ব্যবধান মুস্তাফিজুর রহমান গড়ে দিয়েছেন! বল হাতে ৪ ওভারে ৩৭ রানে ১ উইকেট। ডট বল ৯টি। নামের পাশে যোগ হতে পারত আরো একটি উইকেট। কিন্তু বারিন্দার স্রান ক্যাচ ফেলেছেন! শেন ওয়াটসনের উইকেট পেয়েছেন ‘দ্য ফিজ’।

‘এক্সট্রা ইনিংসে’ ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান নভজোৎ সিং সিধু মুস্তাফিজের প্রশংসাও করলেন, ‘দেখুন কোহলি-ভিলিয়ার্স আউট হওয়ার পরও কিন্তু ওয়াটসন ছিল। কিন্তু কী দারুণ বলটাই না ওকে করল বাঁহাতি বিস্ময়কর পেসার মুস্তাফিজ। আমার মতে ওই উইকেটের পর পরই হায়দরাবাদ ভাবতে শুরু করে হ্যাঁ আমাদের পক্ষেও জয় পাওয়া সম্ভব।’

সিধুর কথায় দ্বিমত পোষণ করে রমিজ রাজা। তার মতে শেন ওয়াটসনের ফর্ম নেই। তাই তার আউট আর টিকে থাকার কোনো পরিবর্তন নিয়ে আসত না। বাংলাদেশে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ১৫টি ছক্কা হাঁকানোর যার রেকর্ড, সেই ওয়াটসন বেঙ্গালুরুতেও যে কিছু করতে পারবে না, এটা চিন্তা না করাও বোকামি। রমিজ রাজা সেই বোকামিটিই করেছেন!

যাই হোক, এবারের আইপিএল হায়দরাবাদ নিজেদেরে প্রমাণ করেছে ভিন্ন রূপে। মূলত তিন ক্রিকেটারের পারফরম্যান্সে পুরো দল উজ্জীবিত। প্রথম অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। কী অসাধারণ ব্যাটিংই না ওয়ার্নার করলেন টুর্নামেন্টজুড়ে। ১৭ ম্যাচে ৮৪৮ রান। এর থেকে ভালো আর কী বা প্রত্যাশা করা যায়!

দারুণ ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি অধিনায়কত্বেও মন কেড়েছেন ওয়ার্নার। সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার সাহস দেখিয়েছেন। ফাইনাল শেষে বেঙ্গালুরুর কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টোরি তো বলেই দিলেন, ‘যেই মাঠে রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড বেশি সেই মাঠে টসে জিতে আগে ব্যাটিং নেওয়ার সিদ্ধান্ত সত্যিই সাহসিকতার প্রমাণ দেয়।’

শুধু ব্যাটিং আর অধিনায়কত্বে নয়, ওয়ার্নার হায়দরাবাদের সেরা ফিল্ডারদেরও একজন। ফিল্ডিংয়ে শুধু ক্ষীপ্রতা নয়, তার দূরন্তপণাও দেখেছে ক্রিকেটবিশ্ব। ব্যাটিংয়ে ওয়ার্নার পুরো হায়দরাবাদকে একাই টেনেছেন। দলের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫০১ রান করেছেন শিখর ধাওয়ান।

দল গঠন থেকেই বোঝা যাচ্ছিল ব্যাটিংয়ে নয়, বোলিংয়ে বেশি মনযোগ দিচ্ছে হায়দরাবাদ। মাঠের লড়াইয়ে তার প্রমাণও পাওয়া গেল। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি হায়দরাবাদের পেসার ভুবনেশ্বর কুমার। ১৭ ম্যাচে ২৩ উইকেট। সেরা পাঁচে মুস্তাফিজুর রহমান। ১৬ ম্যাচে ১৭ উইকেট। মুস্তাফিজের উইকেটের সংখ্যা যে আরো বেড়ে যেত তা তো সবারই জানা।

ফাইনাল ম্যাচসহ অন্তত তিনটি ম্যাচে মুস্তাফিজের বোলিংয়ে ক্যাচ মিস হয়েছে তিনটি। ওগুলো যোগ হলে সেরা তিনে থাকতেন কাটার মাস্টার। দুই পেসার যে ব্যবধান গড়ে দিয়েছেন তা বলার অপেক্ষা রাখে না। একপ্রান্তে মুস্তাফিজ রান খরচে কিপটেমি করেছেন, অন্যপ্রান্তে ভুবনেশ্বর কুমার উইকেট নিয়েছেন। দুইয়ের যৌথ পারফরম্যান্সে আট ওভার দারুণ কেটেছে হায়দরাবাদের। দুজনই ডেথ ওভারে বেশি বোলিংয়ে করেছেন। এখানে মুস্তাফিজ এগিয়ে আছেন। চলতি মৌসুমে ১৬ থেকে ২০ ওভারের মধ্যে অন্তত ৬ ওভার বোলিং করেছেন এমন বোলারদের মধ্যে মুস্তাফিজের ইকোনোমি রেট সবচেয়ে ভালো। ওভারপ্রতি খরচ মাত্র ৭.২৮ করে রান খরচ করে প্রতিপক্ষের রানের চাকা থামিয়ে রেখেছেন মুস্তাফিজ। এ ছাড়া ১৬ ম্যাচে মুস্তাফিজ প্রতি ম্যাচে ওভারপ্রতি রান খরচ ৬.৯০, যা অন্য সবার থেকে এগিয়ে।

সব মিলিয়ে মূলত এই তিন ক্রিকেটারের পারফরম্যান্স সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে আলাদা করে চিনিয়েছে। হায়দরাবাদকে আলোকিত করা তিন ‘রত্ম’ যে তারাই।

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০ টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে ।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6941
Post Views 950