MysmsBD.ComLogin Sign Up

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে করে।

মেইক-আ-থন বাংলাদেশ ২০১৬ আয়োজিত

In বিবিধ টেক - May 30 at 1:43am
মেইক-আ-থন বাংলাদেশ ২০১৬ আয়োজিত

বাংলাদেশের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্যে প্রকৌশল, কৃষি, ব্যবসা, ফ্যাশন টেকনোলজি ও ডিজাইনের শীর্ষ ১০০ তরুণকে নিয়ে আয়োজিত হয়েছে মেইক-আ-থন। বিশ্ব ব্যাংক এবং বেটারস্টোরিজ -এর যৌথ আয়োজনে বাংলাদেশের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তথ্যপ্রযুক্তি অধিদপ্তর ও আরও ১৮টি প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয় এই অনুষ্ঠান।
মোট ৪০০ আবেদনপত্র থেকে মেইক-আ-থনে শীর্ষ ১০০ জনকে বাছাই করা হয়েছে। তারপর তাদের ৬৮ ঘণ্টাব্যাপী একটি দীর্ঘ কর্মপ্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রোটোটাইপ তৈরি করতে বলা হয়। কাগজ ও থ্রিডি মাধ্যমে তারা ৩২টি প্রটোটাইপ নির্মাণ করেন। এই প্রোটোটাইপগুলোতে বাস্তব জীবনের সমস্যাগুলো প্রাধান্য পেয়েছে।

সেরা দশটি প্রকল্প হচ্ছে- কিউসি প্রো, এটি এমন প্রোটোটাইপ যা দিয়ে খাদ্যগুণ নির্ধারণ করা যাবে; আলট্রাক্যান, যা দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের চলতে ফিরতে সহায়তা করবে; ফ্লোবাডি, যা ডুবে যাওয়ার হাত থেকে সাঁতার না জানা শিশু বা বড়দের বাঁচাতে কাজ করবে; স্মার্ট কার্ড বেইসড পাবলিক সার্ভিসেস, যা গণপরিবহনে সহায়তা করে; ইউএভি ফর হিউম্যানিটি ড্রোন টেকনোলজি চালানোর জন্য এরিয়াল সমাধান; ডাব্লিউবট, ওয়াটারবডির জন্য স্যানিটেশনের পদ্ধতি; স্মার্ট গ্যাস বার্নার, যা গ্যাসের অপচয় কমায়; হ্যাপিনেস ফর অল, এটি স্বল্পমূল্যের ড্রোন; ড্রাইভারস গো সেইফ ড্রাইভিংয়ে সহায়তা করে এমন একটি যন্ত্র, হেলথ অ্যাসিস্ট্যান্স অ্যান্ড হ্যারাসমেন্ট প্রিভেনশন, একটি পরিধানযোগ্য মেডিকেল সহায়তাদাতা যন্ত্র।

অন্য প্রকল্পগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- রোবো নার্স, যা মৌলিক স্বাস্থসুবিধা দিতে সক্ষম। ট্রাফিক আই, যা কমভীড়যুক্ত রাস্তা বাছাই করে এবং গাড়ি চলতে সাহায্য করে।

আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক সমাপনী অনুষ্ঠানে বলেন, 'এ বছরের সেরা দশটি প্রোটোটাইপকে এর পরের বছর অবশ্যই নতুন প্রযুক্তিপণ্যতে পরিণত করতে হবে।

অনুষ্ঠানে পলক 'হ্যাপিনেস ফর অল' নামের ১০০টি ড্রোন অর্ডার করেন। যা মাত্র সাড়ে তিনশ' টাকায় বিক্রি হবে।

'বেটারস্টোরিজ'-এর চিফ স্টোরিটেলার মিনহাজ আনওয়ার বলেন, 'এটা অভাবনীয় যে মাত্র তিনদিনের অনুপ্রেরণায়, প্রশিক্ষণে কীভাবে ৩২টি প্রোটোটাইপ তৈরী হলো, এটা আমাকে বাংলাদেশের ভবিষ্যত নিয়ে আরও আশাবাদী করে তুলেছে।"

মেইক-আ-থনে ২৩ টি ওয়ার্কশপের আয়োজন করা হয়েছে যা দেশি বিদেশী প্রশিক্ষকেরা পরিচালনা করেন। বাংলাদেশ, কানাডা, পেরু, জাপান, ফিনল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র প্রভৃতি দেশের নাগরিকেরা এখানে অংশগ্রহণ করেছেন।

অনুষ্ঠানে ৩২টির ভেতর থেকে সেরা দশটি প্রোটোটাইপকে সম্মানিত করা হয়। তাদেরকে ১ বছর বেটারস্টোরিজ-এর ইনকিউবেশন-এ নতুন উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

Googleplus Pint
Jafar IqBal
Posts 1522
Post Views 54