MysmsBD.ComLogin Sign Up

রাসেলকে ফিট করে তুলতে মরিয়া নাইট রাইডার্স

In ক্রিকেট দুনিয়া - May 24 at 10:36am
রাসেলকে ফিট করে তুলতে মরিয়া নাইট রাইডার্স

একটা ধাপ পেরিয়ে আরও একটা ধাপ, কঠিন থেকে কঠিনতর। দুর্গম পাহাড়ি রাস্তার সঙ্গেই তুলনীয়। পা হড়কালে আর ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ নেই, একেবারে খাদের গহ্বরে। প্লে–অফে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ম্যাচই কলকাতা নাইট রাইডার্সের কাছে সেমিফাইনাল। হারলেই প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে যেতে হবে, জিতলে ফাইনালে ওঠার আরও একটা সুযোগ পাবেন গৌতম গম্ভীররা। পথ যে আরও দুর্গম, স্বীকার করে নিয়েছেন গম্ভীররা।

একই দলের বিরুদ্ধে তিন দিনের ব্যবধানে আবার মাঠে নামা। শিখর ধাওয়ানদের বিরুদ্ধে প্লে–অফ খেলতে সোমবার দিল্লি পৌঁছল নাইট রাইডার্স, সঙ্গে আত্মবিশ্বাসের ভর্তি ঝুলি। দিল্লি, বেঙ্গালুরু হয়ে ট্রফি নিয়ে কলকাতা ফেরাই লক্ষ্য গম্ভীরদের। রবিবার ইডেনে সানরাইজার্সকে হারানোর পর পরই গম্ভীররা পেয়ে গিয়েছিলেন কিং খানের অভিনন্দন বার্তা। একদিকে দুরন্ত জয়, অন্যদিকে দলের মালিকের অভিনন্দন বার্তা প্লে–অফের আগে নিশ্চিতভাবেই বাড়তি অ্যাড্রিনালিনের কাজ করবে নাইট শিবিরে।

রবিবার ম্যাচ শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ড্রেসিংরুমে শুরু হয়েছিল প্লে–অফে ওঠার উৎসব, যার রেশ পড়েছিল টিম হোটেলেও। এরকম ‘হ্যাপি ফ্যামিলি’ সাম্প্রতিককালে আর দেখা যায়নি।

আসলে টেনশন পর্ব মিটিয়ে অবশেষে প্লে–অফের ছাড়পত্র পাওয়ায় এসেছে স্বস্তি। তবে অস্বস্তি যে নেই, এমন নয়। অস্বস্তির কারণ সেই আন্দ্রে রাসেল। নাইটদের এই অলরাউন্ডার এখনও পুরোপুরি ফিট নন। কলিন মুনরো কিংবা জ্যাসন হোল্ডাররা যে তাঁর পরিপূরক নন, দুটি ম্যাচেই বোঝা গেছে। তাই রাসেলকে ফিট করে তোলার প্রয়াস অব্যাহত। হাতে এখনও দু’‌দিন সময়। নাইট টিম ম্যানেজমেন্টের বিশ্বাস, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ম্যাচের আগে পুরোপুরি ফিট হয়ে উঠবেন দলের এই গুরুত্বপূর্ণ অলরাউন্ডার। রাসেলের ফিট হয়ে ওঠাটাও নাইটদের কাছে খুবই জরুরি। কারণ দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলার উইকেটে সুনীল নারাইন, পীযূষ চাওলা, সাকিবরা কতটা সাহায্য পাবেন, বলা মুশকিল। সেক্ষেত্রে রাসেল, মর্নি মরকেলদের বাড়তি দায়িত্ব নিতে হবে। ইডেনের মতো কোটলায় ঘরের মাঠে খেলার সুবিধে পাবে না নাইট রাইডার্স। সেটা মাথায় রেখেই মাঠে নামতে হবে গম্ভীরদের।

বেশ কয়েকটি ম্যাচে টপ অর্ডার ব্যর্থ। উথাপ্পা থেকে শুরু করে গম্ভীর, মণীশরা বড় রান পাননি। সাকিব, ইউসুফরা দলকে টেনে নিয়ে গেছেন। ইউসুফ পাঠানের বিধ্বংসী ফর্ম ভরসা নাইটদের কাছে।

আইপিএলের শুরুর দিকে পাঠানকে সেভাবে বিধ্বংসী ফর্মে দেখা যায়নি। আসলে পরের দিকে ব্যাট করতে নামায় বেশি বল খেলার সুযোগ পাচ্ছিলেন না। ব্যাটিং অর্ডারে উন্নতি হওয়াতেই বদলে গেছেন পাঠান। গম্ভীরও বলছিলেন, ‘এখন ওকে আমরা বেশি বল খেলার সুযোগ দিচ্ছি।’ সেই সুযোগটাই কাজে লাগিয়ে নাইট শিবিরে এখন হিরো ইউসুফ পাঠান।‌‌‌‌

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6736
Post Views 358