MysmsBD.ComLogin Sign Up

আবারও ঢাকা মাতাতে আসছেন আতিফ আসলাম

In মিউজিক ক্যাফে - May 23 at 11:29am
আবারও ঢাকা মাতাতে আসছেন আতিফ আসলাম

আবারো গানে গানে বাংলাদেশি শ্রোতাদের মুগ্ধ করতে ঢাকায় আসছেন বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক আতিফ আসলাম। এটিএন এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেড এর আয়জনে আগামী ২৯ মে ‘রিদম ফর অল উইথ আতিফ আসলাম নাইট’ শিরোনামে একটি কনসার্টে গান গাওয়ার জন্যই ঢাকায় আগমন এই পাকিস্তানি গায়কের। এবার তার সঙ্গী সাম্প্রতিক বলিউডের দুই তারকা কণ্ঠশিল্পী মমতা শর্মা, আকৃতি আককর।

ঢাকার বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে কনসার্টটি আগামী ২৯ মে সন্ধ্যা ৭টায় অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করবেন দেবাশীষ বিশ্বাস ও আমব্রিন।

এর আগেও ঢাকায় এসেছিলেন পাকিস্তানের জনপ্রিয় শিল্পী আতিফ আসলাম। তবে ভারতীয় মমতা শর্মা ও আকৃতি কাক্কারের এটাই প্রথম সফর। আকৃতি ও মমতা দুজনেরই বলিউডের ছবিতে জনপ্রিয় কিছু গান আছে। মুন্নি বদনাম হুয়ি গানে কন্ঠ দিয়ে খ্যাতি পেয়েছেন মমতা। আর সম্প্রতি আকৃতির স্যাটার ডে গানটিও বলিউডে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়।

অন্যদিকে আতিফ আসলাম উপমহাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় শিল্পী হিসেব নিজের অবস্থান ধরে রেখেছেন। নিয়মিত প্লে-ব্যাকও করে চলেছেন তিনি। বাংলাদেশের শ্রোতাদের কাছে তিনি পরিচিত হয়ে ওঠেন ‘জল’ ব্যান্ডে গাওয়া ‘আদত’ গানটি দিয়ে। ২০০৬ সালে ও লামহে চলচ্চিত্রে প্লেব্যাকের মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক আতিফের। এরপর কলিযুগ, বাস এক পল, রেস, কিসমত কানেকশন, আজব প্রেম কি গজব কাহানি এবং সর্বশেষ প্রিন্স প্রভৃতি চলচ্চিত্রের প্লেব্যাকে কণ্ঠ দিয়ে জনপ্রিয় হয়েছেন আতিফ। ২০০৪ সালে ১৭ জুলাই নিজের প্রথম অ্যালবাম দিয়েই স্বদেশের মানুষের জনপ্রিয়তা অর্জন করেন এ শিল্পী। মূলত বলিউডের ছবিতে গান গেয়েই খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে তার।

অনন্য গায়কী ভঙ্গীমা এবং শৈল্পিক দক্ষতার কারণে অ্যালবাম প্রকাশের কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই আতিফ তারকাখ্যাতি অর্জন করেন। পাকিস্তানজুড়ে এই অ্যালবামটি জনপ্রিয়তা লাভ করে। আতিফের পরিবারে কখনো সঙ্গীতচর্চা ছিল না। এছাড়া আতিফ কখনো সঙ্গীতে দীক্ষা নেন নি। তাঁর সহজাত প্রতিভা এবং শিল্পী হবার তীব্র আকাঙ্ক্ষাই তাঁকে একজন জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পীতে পরিণত করে। আতিফ নিন্দুকদের কথায় কর্ণপাত না করে তাঁর স্বপ্রতিভ গায়কী ভঙ্গিমায় সঙ্গীত চর্চা করতে থাকেন। প্রথম অ্যালবামের সাফল্যের পর তিনি কনসার্টে গান পরিবেশন করতে শুরু করেন এবং অতি অল্প সময়ে সেখানেও জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। এই জনপ্রিয়তা পাকিস্তান ছাড়িয়ে উপমহাদেশে ছড়িয়ে পড়ে। কনসার্টে সরাসরি সঙ্গীত পরিবেশনে তাঁর সহজাত ক্ষমতার কারণে কনসার্টে শিল্পী হিসেবে তাঁর চাহিদা বাড়তে থাকে। আতিফ সবসময় নুসরাত ফতেহ আলি খান এবং আবিদা পারভিনের প্রশংসা করেছেন।

Googleplus Pint
Asifkhan Asif
Posts 1365
Post Views 270