MysmsBD.ComLogin Sign Up

ইউরোর দল পরিচিতি : ইংল্যান্ড

In ফুটবল দুনিয়া - May 21 at 1:21pm
ইউরোর দল পরিচিতি : ইংল্যান্ড

১০ জুন পর্দা উঠবে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ তথা ইউরো-২০১৬ এর। ইউরোর ১৫তম আসরের আয়োজক ইউরোপের অন্যতম সমৃদ্ধশালী দেশ ফ্রান্স। অবশ্য তারা দুই-দুইবারের চ্যাম্পিয়নও।

১৯৯৬ সাল থেকে ইউরোতে ১৬টি করে দল অংশ নিলেও এবারই প্রথম খেলতে যাচ্ছে ২৪টি দল। তাদেরকে ৬টি গ্রুপে বিভক্ত করে অনুষ্ঠিত হবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা।

ইউরোপের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে মাঠে নামবে সেরা ২৪টি দেশ। তার আগে MySmsBD.Com এর পাঠকদের জন্য ইউরো ২০১৬ তে অংশ নেওয়ার দলগুলোর পরিচিতি পর্ব তুলে ধরা হচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় আজকের আলোচ্য দল ইংল্যান্ড।

★ ইউরোপের এই দলটির আদ্যোপান্ত MySmsBD.Com এর পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হল.....

যেভাবে ইউরো ২০১৬ এর চূড়ান্ত পর্বে ইংল্যান্ড:
এবারের ইউরো বাছাইপর্বে সব কয়টি ম্যাচ জিতে চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নেয়া একমাত্র দল ইংল্যান্ড। গ্রুপ `ই` থেকে বাছাইপর্বে অংশ নিয়ে দশ ম্যাচ থেকে পূর্ণ ৩০ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই ফ্রান্সের টিকেট নিশ্চিত করে রয় হজসনের দল। এটি ইংল্যান্ডের নবম ইউরো।

ইউরোতে ইংল্যান্ডের অতীত পারফরম্যান্স:
ইংল্যান্ডই ইউরোপের একমাত্র দেশ যারা বিশ্বকাপ জিতেছে কিন্তু ইউরো শিরোপা ছুঁয়ে দেখার সৌভাগ্য কখনো হয়নি। বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই অন্তঃমহাদেশীয় ফুটবল টুর্নামেন্টটির ১৪ আসরের মধ্যে এখন পর্যন্ত ৮ বার চূড়ান্ত পর্বে খেললেও কখনো শিরোপা জেতা তো দূরের কথা ফাইনালেও খেলতে পারেনি ১৯৬৬ এর বিশ্বকাপজয়ী ইংল্যান্ড।সর্বোচ্চ ফলাফল ১৯৯৬ এর ইউরোতে তৃতীয় স্থান লাভ।

এছাড়া ১৯৬৮ সালে আরো একবার শেষ চারে উঠেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু ওই পর্যন্তই। সেমিফাইনালের গেরো যেন কোনভাবেই খুলতে পারছে না প্রতিবারই `ফেভারিট` তকমা নিয়ে খেলতে নামা ইংল্যান্ড। তাছাড়া চারবার গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নেয়ার অভিজ্ঞতাও আছে তাদের।

ইংল্যান্ডের শক্তিশালী দিক:
বাছাই পর্বে ম্যাচ প্রতি গড়ে তিনটিরও বেশি গোল করেছে ইংল্যান্ড। এতেই বুঝা যায় কতোটা দূর্দান্ত ফর্মে আছে তাদের আক্রমণভাগ। কিছুদিন আগেই দেশটির হয়ে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ড নিজের করে নেয়া ওয়েইন রুনির নেতৃত্বে সদ্য সমাপ্ত ইংলিশ লিগে দূর্দান্ত ফর্মে থাকা স্ট্রাইকার হ্যারি কেইন, জেমি ভার্ডি, রহিম স্টার্লিংদের নিয়ে গড়া আক্রমণভাগ ছিঁড়ে-ফুঁড়ে ফেলতে সক্ষম যেকোন রক্ষণ। প্রথমবারের মতো ইউরোর শিরোপা নিজেদের করে নিতে এই আক্রমণভাগের দিকেই তাকিয়ে থাকবে ইংল্যান্ড

ইংল্যান্ডের দুর্বল দিক:
কোচ রয় হজসনের সদ্য ঘোষিত ইউরো দলের রক্ষণভাগ নিয়েই কথা উঠছে সবচেয়ে বেশি। দলে আছেন মাত্র তিনজন সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার; কাহিল, স্টোনস আর স্মলিং। সদ্য সমাপ্ত ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে প্রত্যাশার চেয়ে খারাপ খেলেছেন তিনজনই। বিশেষ করে লিগের দ্বিতীয়ার্ধে তাদের পারফরম্যান্স গ্রাফ সমর্থকদের কপালে চিন্তার ভাজ ফেলে দিতে যথেষ্ট।

ইংল্যান্ডের বাজির ঘোড়া:
আসন্ন ইউরোতে ইংল্যান্ড কোচ রয় হজসনের বাজির ঘোড়া হতে পারেন এই মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ২৫ গোল করে গোল্ডেন বুট জেতা স্ট্রাইকার হ্যারি কেইন আর ২৪ গোল করা লেস্টার সিটির রূপকথার অন্যতম কারিগর জেমি ভার্ডি। সাথে সবসময়ই জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দূর্দান্ত ওয়েইন রুনি তো আছেনই। প্রাথমিক দল থেকে শেষ পর্যন্ত চূড়ান্ত দলে টিকে গেলে চমক দেখাতে পারেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে সাম্প্রতিক সময়ে মাঠ মাতানো তরুন মার্কাস রাশফোর্ডও।

এক নজরে ইউরোতে ইংল্যান্ড:
** এর আগে ইউরোতে খেলেছে : ৮ বার
** শিরোপা : নেই
** বর্তমান ফিফা র‍্যাংকিং : ১০
** বর্তমান কোচ : রয় হজসন
** ইউরো ২০১৬ তে গ্রুপ : ‘বি’
** ইউরো ২০১৬ তে প্রতিপক্ষ : রাশিয়া, স্লোভাকিয়া ও ওয়েলস
** ইউরোতে সেরা পারফরম্যান্স : ১৯৬৮ ও ১৯৯৬ আসরে সেমি ফাইনালে খেলা।
** সাবেক তারকা ফুটবলার : ববি মুর, ববি চার্লটন, ফ্রাংক ল্যাম্পার্ড, স্টিভেন জেরার্ড, ডেভিড ব্যাকহাম।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6973
Post Views 139