MysmsBD.ComLogin Sign Up

বেশি বন্ধু থাকলে কমে আসে কষ্ট-যন্ত্রণা

In লাইফ স্টাইল - May 03 at 7:51am
বেশি বন্ধু থাকলে কমে আসে কষ্ট-যন্ত্রণা

অনেক বন্ধু থাকা বেশ মজার বিষয়। ইংল্যান্ডের নতুন এক গবেষণায় বলা হয়, বেশি সংখ্যক বন্ধু থাকলে যন্ত্রণাও অনেক কমে যায়।

এ গবেষণায় অংশ নেন বেশ কিছু মানুষ। সমাজে তাদের বন্ধু সংখ্যা অনেক বেশি। যাদের অনেক বন্ধু রয়েছে তাদের জীবনের অন্যান্য কষ্টও অনেক কমে যায়।

গবেষণায় বলা হয়েছে, সমাজে বেশি বন্ধু থাকলে মস্তিষ্কে এন্ড্রোফিনস হরমোনের ক্ষরণমাত্রা বেড়ে যায়। এই হরমোন যন্ত্রণা কমাতে কাজ করে। এই হরমোন মরফিনের চেয়ে শক্তিশালী বেদনানাশক বলে জানানো হয় গবেষণায়।

ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ডের মনোবিজ্ঞানী ক্যাটেরিনা জনসন জানান, পূর্বে মানুষ এবং অন্য প্রাণীর ওপর পরিচালিত গবেষণায় দেখা গেছে, সামাজিক বন্ধনের জন্যে এন্ড্রোফিনস হরমোন ব্যাপক কার্যকর থাকে। এ গবষেণায় সামাজিক বন্ধন ও যন্ত্রণা বিনাশে ইতিবাচক আবেগ এবং মস্তিষ্কে এর কার্যক্রম দেখার চেষ্টা করা হয়েছে।

এন্ড্রোফিনস মূলত দেহের বেদনানাশক। কষ্ট-যন্ত্রণা কমাতে এই হরমোনকে কাজে লাগানোর বিষয়টা পর্যবেক্ষণ করতে মস্তিষ্কে স্ক্যান করা হয়।

এ গবেষণায় অংশ নেয় ১০১ জন তরুণ-তরুণি। এদের সামাজিক জীবন সম্পর্কে নানা প্রশ্ন করে তথ্য সংগ্রহ করা হয়। সমাজে তাদের নেটওয়ার্কিংয়ের ওপর ভিত্তি করে জীবনের সুখের মাত্রা বৃদ্ধি পায় বা যন্ত্রণা কমে আসতে থাকে। যারা বেশি কাজ করে তাদের সঙ্গে সমাজের যোগাযোগ কম। এদের জীবনে যন্ত্রণাও বেশি দেখা যায়। যাদের বন্ধু সংখ্যা বেশি, তাদের সামাজিক অবস্থান অনেক স্বতঃস্ফূর্ত। এদের জীবনে যন্ত্রণাও অনেক কম দেখা যায়।

জনসন জানান, হরমোনের এই কার্যকারিতাকে কাজে লাগিয়ে যন্ত্রণা বিনাশ করা সম্ভব। আর এর জন্যে বন্ধুর সংখ্যা বৃদ্ধি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আধুনিক সমাজব্যবস্থায় ব্যস্তজীবনের মাঝে কষ্ট কমাতে তাই বন্ধুত্ব গড়ে তুলুন। সূত্র : হাফিংটন পোস্ট

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 4150
Post Views 324