MysmsBD.ComLogin Sign Up

ঘুম বিষয়ে প্রচলিত ভুল ধারণা!

In লাইফ স্টাইল - May 01 at 2:26pm
ঘুম বিষয়ে প্রচলিত ভুল ধারণা!

স্বাস্থ্যকর ঘুম বিষয়ে নানা ভুল তথ্য প্রচলিত রয়েছে। সুস্বাস্থ্যের অন্যতম শর্ত গভীর ঘুম। খুব বেশি বা খুব কম ঘুম ক্ষতিকর হতে পারে। সম্প্রতি এক গবেষণায় বলা হয়েছে, অতিরিক্ত ঘুমের কারণে স্ট্রোকের ঝুঁকি থাকে। বিশেষজ্ঞরা এখানে জানাচ্ছেন ঘুম বিষয়ে কিছু প্রচলিত ধারণার কথা যা পুরোপুরি ভুল।


তন্দ্রা রাতের ঘুম নষ্ট করে
দিন-দুপুরে একটু তন্দ্রাভাব আসতেই পারে। ক্লান্তিতেও ঝিমুনি চলে আসে। এটি প্রাণশক্তি ফিরিয়ে দেয়। অনেকের ধারণা দিনের তন্দ্রা রাতের গভীর ঘুম নষ্ট করে দেয়। দুপুর ২-৪টার মধ্যে ঝিমিয়ে নিলে বরং রাতের ঘুম আরো গভীর হতে পারে।


আট ঘণ্টার ঘুম জরুরি
এটা ভুল তথ্য। মানুষভেদে ঘুমের সময়ের তারতম্য হতে পারে। কিছু মানুষ দিনে ৭ ঘণ্টা ঘুমালেই সুস্থ থাকেন। আবার কারো কারো ৮ ঘণ্টার বেশি ঘুম প্রয়োজন হয়। আসলে যে মানুষ যতটুকু ঘুমের পর সুস্থবোধ করেন, তার জন্য ততটুকু ঘুমই যথেষ্ট।


অতিরিক্ত ঘুমানো ঠিক নয়
বহু বিশেষজ্ঞের মতে, ৬ ঘণ্টার কম বা ১০ ঘণ্টার বেশি ঘুম স্বাস্থ্যকর নয়। আসলে বহু সময় ধরে শুয়ে থাকলে রক্ত চলাচল ধীর হয়ে আসে। এতে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বৃদ্ধি পায় যা হৃদরোগ, স্ট্রোক ও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ায়। আসলে প্রতিদিন একই সময়ে ঘুমাতে যাওয়া এবং ঘুম ওঠার অভ্যাস স্বাস্থ্যকর জীবন দেয়।


দেহের কার্যক্রম বন্ধ করে ঘুম
আসলে মানুষের মস্তিষ্ক ও দেহ কখনো নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে না। এগুলো সব সময় কাজ করতেই থাকে। স্মৃতিশক্তি তৈরি, হাড় গঠন, টিস্যুর যত্ম, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি, বিষাক্ত পদার্থ দূরীকরণ ইত্যাদি কাজ চলতেই থাকে। ঘুমের মধ্যেও দেহ ও মস্তিষ্কে জরুরি কিছু কাজ চলতে থাকে।


বড়দের কম ঘুম দরকার
এটা অতি সাধারণ ভুল ধারণা। বড় হওয়ার সঙ্গে মানুষের ঘুমের ধরন ও সময় বদলাতে থাকে। জেগে থাকা, কাজে ব্যস্ত হওয়া বা নন-আরইএম ঘুম কমে আসা ইত্যাদি কারণ দায়ী। এর এই নয় যে বড়দের কম ঘুমালেও চলে।


কঠিন ব্যায়াম ঘুমের জন্যে ভালো
ব্যায়াম গভীর ঘুম আনে এ কথা সত্য। কিন্তু অতিমাত্রার ব্যায়াম দেহের জন্যে ক্ষতিকর হতে পারে। বিশেষ করে ঘুমের আগ দিয়ে ব্যায়াম করলে ঘুম নষ্ট হয়।


অ্যালকোহলে ঘুম আসে
অনেকের ধারণা অ্যালকোহল ঘুম আনে। বরং উল্টোটা ঘটে। অ্যালকোহলে ঘুম নষ্ট হয়। অ্যালকোহলে আপাতত ঘুম ঘুম ভাব আসলেও তা মূলত গভীর ঘুম নয়। তৃপ্তিকর ঘুম নষ্ট করে অ্যালকোহল।


ঘুমের অভাব দূর করা যায় ছুটির দিনের ঘুমে
এটা সম্ভব নয়। যে ঘুমের অভাব আপনার রয়ে গেছে, তা ছুটির দিন পুষিয়ে নেয়া যাবে না। ক্লান্তির কারণে হয়তো অনেকক্ষণ ঘুমাতে পারবেন। কিন্তু এতে আগের অভাব পূরণ হবে না।


ঘুমের প্রথম ভাগে এক ঘণ্টাই যথেষ্ট
এটা সব সময়ের জন্য প্রযোজ্য নয়। আসলে ঘুমের প্রথম তিন ভাগের প্রথম ভাগটি শক্তি ফিরিয়ে আনে। আর তা যে এক ঘণ্টার স্থায়ী হতে হবে এমন কোনো কথা নেই।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Posts 3481
Post Views 300