MysmsBD.ComLogin Sign Up

ভাতের মাড় ডায়রিয়া সারায়!

In সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস - Apr 27 at 11:55am
ভাতের মাড় ডায়রিয়া সারায়!

ভাতের মাড়কে ক্যালোরিসমৃদ্ধ সুষম খাবার বলে বিবেচনা করা যায়। ভাতের মাড় হলো চালের নির্যাস। এই নির্যাস ফেলে দিলে ভাতের কিছু থাকে না। ভাত রান্নার পর সাধারণত আমরা ফ্যান বা মাড় ফেলে দেই। কিন্তু রূপচর্চা থেকে ডায়রিয়া সব কিছুতেই দারুণ উপকারী ভাতের মাড়।

পেটের সমস্যায় এক গ্লাস ভাতের মাড়ের সঙ্গে এক চিমটি লবণ মিশিয়ে পান করুন। দ্রুত ডায়রিয়া সারাতে এই পানি অপরিহার্য। পানি দিয়ে মুখ ধোয়ার পর ভাতের মাড় তুলোয় লাগিয়ে মুখে টোনার হিসেবে লাগান। এতে ত্বকে টানটান ভাব আসে। পিগমেন্টেশন দূরে রাখে, বয়স ধরে রাখতে সাহায্য করে। ভাতের অনেক পুষ্টিগুণ মাড়ের সঙ্গে বের হয়ে যায়। এই মাড় খেলে সেই পুষ্টিগুণ থেকে বঞ্চিত হবেন না। খালি খেতে খারাপ লাগলে সবজি দিয়ে স্যুপ বানিয়ে মাড় খেতে পারেন। ত্বকের যে কোনো অ্যালার্জি, র‌্যাশ বা ইনফেকশনের সমস্যায় দিনে দুই বার ১৫ মিনিট করে ভাতের মাড় দিয়ে গোসল করুন। ব্রণের সমস্যা হলে তুলোয় ভাতের মাড় নিয়ে ব্রণের ওপর লাগান।

ব্রণ, ত্বকের লালচে ভাব কমবে। ত্বকে একজিমার সমস্যা থাকলে তুলোয় করে নিয়ে ঠাণ্ডা ভাতের মাড় লাগান। নিয়মিত করলে ধীরে ধীরে একজিমা পুরোপুরি দূর হবে। অনেকেই সুতির জামা কাপড় ধোয়ার জন্য ভাতের মাড় ব্যবহার করেন। পানি দিয়ে পাতলা করা ভাতের মাড়ে কাচা জামা চুবিয়ে নিন। রোদে শুকানোর পর কড়কড়ে শুকনো জামা ইস্ত্রি করলে নতুনের মতো লাগে। যদি ভাতের মাড় ফেলে দিতেই হয় তা হলে নর্দমায় না ফেলে বাগানে বা টবের গাছের গোড়ায় ঢালুন। ভাতের মাড় সার হিসেবে দারুণ কাজ করে।

Googleplus Pint
Asifkhan Asif
Posts 1372
Post Views 156