MysmsBD.ComLogin Sign Up

জেনে নিন ঠান্ডা পানিতে গোসল করার ৫টি সাস্থ্য উপকারিতা!!

In সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস - Apr 20 at 11:36am
জেনে নিন ঠান্ডা পানিতে গোসল করার ৫টি সাস্থ্য  উপকারিতা!!

এখন আবহাওয়াটা বেশ গরম হয়ে উঠেছে। আর এই গরমে প্রতিদিন গোসল না করে কি থাকা যায়? নিজের পরিচ্ছন্নতা ও প্রশান্তির জন্য অনেকেই দিনে দুবারও গোসল করেন। প্রতিদিন গোসল করার সময় ব্যবহার করুন ঠান্ডা পানি। কারণ ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করার আছে অনেক উপকারিতা। আসুন জেনে নেয়া যাক ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করার ৫টি উপকারিতা সম্পর্কে।

মেদ কমায়: মানুষের শরীরে দুই ধরনের কোলেস্টেরল থাকে। একটি ভালো কোলেস্টেরল ও অপরটি খারাপ কোলেস্টেরল। নিয়মিত ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে শরীরের মেটাবলিজম বৃদ্ধি পায় এবং ক্যালরি ক্ষয় হয়। ফলে শরীরের অতিরিক্ত কিছু মেদ কমে যায়। -

ব্যায়ামের ক্লান্তি কমায়: অনেক পথ হেটে আসার পর কিংবা ব্যায়াম করার পর শরীরে প্রচন্ড ক্লান্তি ভর করে। এই ক্লান্তি কাটাতে ঠান্ডা পানির জুড়ি নেই। ব্যায়াম, দৌড়ানো কিংবা হাটার কমপক্ষে ৩০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করে ফেলুন। নিমিষেই ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে।

মন ভালো করে দেয়: সারাদিন কাজের চাপ থেকে এসে ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে নিশ্চয়ই শরীর শিথিল হয়ে যায় ও ঘুম আসে তাই না? এর কারণ হলো ঠান্ডা পানি মানসিক চাপ ও বিষণ্ণতা কমাতে সহায়তা করে। মন খারাপ থাকলে ঠান্ডা পানিতে শরীর ভিজিয়ে নিয়ে মন অনেকটাই ভালো হয়ে যায়।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে শরীরের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পায়। সেই সঙ্গে শ্বেত রক্ত কণিকার পরিমাণ কমে অসুক বিসুখ কমে যায়।

এছাড়াও ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে মানসিক চাপ কমে বলে হার্টের স্বাস্থ্যও ভালো থাকে। ত্বক ও চুল সুন্দর করে গরম পানি চুলের জন্য খুবই ক্ষতিকর। সেই সঙ্গে গরম পানি ত্বকের রোমকূপ খুলে দেয় এবং ব্রণের উপদ্রব বাড়ায়। তাই গোসলে ঠান্ডা পানি ব্যবহার করা উচিত। ঠান্ডা পানি ব্যবহার করলে ত্বক ও চুলের স্বাভাবিক মসৃণতা বজায় রাখে এবং ত্বক ও চুলকে রুক্ষতা থেকে রক্ষা করে।

Googleplus Pint
Asifkhan Asif
Posts 1365
Post Views 271