MysmsBD.ComLogin Sign Up

জন্ম মাস জানলেই মেয়েদের অনেকটা বুঝে নিতে পারবেন

In লাইফ স্টাইল - Apr 19 at 11:21pm
জন্ম মাস জানলেই মেয়েদের অনেকটা বুঝে নিতে পারবেন

এটা ঘটনা, গ্রহ-নক্ষত্র-চন্দ্রের অবস্থানের হেরফেরের জের গিয়ে পড়ে আমাদের জীবনে। জ্যোতিষীরা অন্তত তাই বলে থাকেন। তবে শুধু জ্যোতিষীরাই নন, আজকাল বিজ্ঞানীরাও বিশ্বাস করতে শুরু করেছেন, জন্মের সময় গ্রহনক্ষত্রের অবস্থানের প্রভাব পড়ে জাতকের ব্যক্তিত্বে। কে, কেমন হবে, তার অনেকটাই ঠিক করে দেয় জন্মমাস। কোন মাসে জন্মালে, মেয়েরা কেমন হবেন স্বভাবে-ব্যক্তিতে, নীচে তার উল্লেখ করা হলো।

জানুয়ারি

আত্মকেন্দ্রিক না-হলেও, কথা বলেন মেপে। সবার সঙ্গে মিশতে চান না। নিজের চারপাশে অদৃশ্য পাঁচিল তুলে রাখেন সর্বক্ষণ। আপনার আবেগের বহিঃপ্রকাশ সহজে হয় না। শুধু উচ্চাকাঙ্ক্ষা থাকাই নয়, আপনার প্রবল ইচ্ছেশক্তি, লক্ষ্যে পৌঁছতে সাহায্য করবে। সহজে ধৈর্যচ্যুতি ঘটে না। নিজেকে দৃষ্টান্ত হিসেবে তুলে ধরে, অন্যকে প্রাণিত করার ক্ষমতা রাখেন। যে কারণে লিডার বা দলপতি হিসেবে আপনার তুলনা নেই। শিক্ষকতার দিকে ঝোঁক থাকবে। কাজের জায়গায় বিশৃঙ্খলা একদমই পছন্দ নয়। অন্যের মন পড়ার অদ্ভুত এক ক্ষমতা রয়েছে আপনার মধ্যে।

ফেব্রুয়ারি

প্রচণ্ড রকম দুঃসাহসিক মহিলা। উড়ন্ত প্লেন থেকে কেউ যদি বলে ঝাঁপ মারতে, আপনি দ্বিধা না-করেই ঝাঁপ মেরে দেবেন। কেউ যদি বলে, বিশ্বভ্রমণে বেরোতে, আপনি তত্‍‌ক্ষণাত্‍‌ রাজি হয়ে যাবেন। যে কোনও ধরনের অ্যাডভেঞ্চারই আপনার পছন্দের। স্বতঃস্ফূর্ততা আপনার স্বভাবের বড় একটা গুণ। আপনি একবার কাউকে ভালোবাসলে, মনেপ্রাণে ভালোবাসবেন। তাঁকে খুশি রাখার জন্য, আপনার পক্ষে যা-যা করা সম্ভব, সবই আপনি করে থাকেন। গভীর আবেগ কাজ করে আপনার মধ্যে। বন্ধুত্বকে সবসময়ই অগ্রাধিকার দেন। খোলামনের দিলদরিয়া আপনি। ব্যক্তিমানুষ হিসেবে সত্‍‌।

মার্চ

বেশি হইহট্টগোল একদমই পছন্দ করেন না। চেনাবৃত্তে স্বচ্ছন্দ্য। আক্ষরিক অর্থেই অন্তর্মুখী। প্রেমিকা হিসেবে লয়াল। চোখ বন্ধ করে ভরসা করা যায়। আপনার মিষ্টি ব্যবহারের তারিফ না-করে, লোকজন পারে না। আপনি সহজেই অন্যের চোখে বিশ্বাসী হয়ে ওঠেন। বিশ্বাসের অমর্যাদা করেন না।

এপ্রিল

রাজনীতি করলে, খ্যাতি পাবেন। লোকজনের সঙ্গে সুন্দর মিশতে পারেন। কথায় আবিষ্ট করতে পারেন। অনেক জনের মধ্যেও আলাদা করে আপনাকে চিনে নেওয়া যায়। হয়ে উঠতে পারেন আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। তবে, সমস্যা হল, নিজের ব্যক্তিগত বিষয়ও অনেকসময় বাইরের লোকের সামনে এনে ফেলেন।

মে

আপনার সম্পর্কে আগাম কিছু বলা যায় না। আনপ্রেডিক্টেবল। ক্ষণে ক্ষণে মনমেজাজমর্জি বদলায়। লোকজনের সঙ্গে ভালো মিশতে পারেন। লোকজন আকৃষ্টও হয়। সবসময় নতুন কিছু শিখতে চান। ভালোবাসেন এখানসেখান ঘুরতে। শিল্পসাহিত্যের অনুরাগী। সম্পর্কের মর্যাদা দিতে জানেন।

জুন

ভবিষ্যতের কথা ভেবে পা ফেলেন। মৃদুভাষী। ঠাট্টামশকরা আপনার ভালোই লাগে। নিজের দর্শন বা মত অন্যের উপর চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন না। অনুসন্ধানী একটা মন আছে। শিল্পচর্চা করতে শখ হয়। প্রেমের জন্য বেপরোয়া হতে পারেন। পার্টনারের সঙ্গে বোঝাপড়া বেশ ভালো।

জুলাই

বুদ্ধিমতী। স্বতঃস্ফূর্ত। প্রফুল্ল মন। ভরা এনার্জি। কাজের জায়গায় আত্মবিশ্বাসী। আবেগ আছে। আছে অনুভূতিশীল একটা মন। নিজের আবেগ, উচ্ছ্বাসকে জনসমক্ষে প্রকাশ করতে চান না। দ্বন্দ্ব এড়িয়ে চলেন। যেখানে বিতর্ক, সেখানে আপনি নেই। আপনার কাছে শান্তিই কাম্য।

আগস্ট

বাস্তবের মাটিতে পা ফেলে চলেন। সব বিষয়েই অগ্রপশ্চাদ খুঁটিয়ে বিবেচনা করেন। যুক্তি ছাড়া চলেন না। কাজের জায়গায় সুশৃঙ্খল। ইঞ্জিনিয়ারিং পড়লে, সাফল্য পাবেন। গোয়েন্দা বা পুলিশের চাকরিতেও খ্যাতি পাবেন। বিমা সংস্থা বা অ্যাকাউন্টিংয়ের কাজেও সাফল্য পাবেন। ইতিবাচক মানসিকতা কাজ করে। নির্ভীক প্রকৃতির। লোকজন আপনার সাহসের তারিফ করেন। রসবোধও আছে। চারপাশে অনেককেই দেখবেন আপনার মুখাপেক্ষী হয়ে রয়েছে।

সেপ্টেম্বর

অন্যকে সাহায্য করার জন্য সবসময় মুখিয়ে থাকেন। দয়ালু। সৃজনশীল। উদ্ভাবনী ক্ষমতা রয়েছে। পরিকল্পনা মতো চলেন। একদম গুছনো। কাউকে কথা দিলে, কথা রাখেন। দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্কে বিশ্বাসী। পার্টনারকে দেওয়া কমিটমেন্টের খেলাপ হয় না।

অক্টোবর

সবসময়, যে কোনও পরিস্থিতিতে ইতিবাচাক। পার্টি, আড্ডা, বন্ধুবান্ধব নিয়ে অবসর সময় কাটাতে চান। তবে, ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন না। কারও মুখাপেক্ষী হয়ে থাকার মেয়ে আপনি নন। সংঘর্ষ, বিবাদ এড়িয়ে চলতে চান। সম্পর্কের ক্ষেত্রে লয়াল।

নভেম্বর

নিজের অনুভূতি, নিজের ভাবনাচিন্তা সবসময় আড়াল করে চলেন। রহস্যজনক চরিত্র। খুবই উচ্চাকাঙ্ক্ষী। নিজেই নিজেকে উদ্দিপীত করেন। গবেষণামূলক কাজই আপনার ক্ষেত্র। নতুন কিছু শিখতে বা জানতে আগ্রহী। আপনি বেপরোয়াও।

ডিসেম্বর

একজায়গায় স্থির হয়ে বসে থাকা আপনার ধাতে নেই। ছটফটে হলে কী হবে, শীর্ষে কী করে পৌঁছতে হয়, আপনি জানেন। সেই ক্ষমতা, মেধা আপনার মধ্যে আছে। এনার্জির খামতি নেই। সারাদিম টইটই করে ঘুরতে বললেও, আপনি আপত্তি করবেন না। ভরপুর এনার্জি আপনার মধ্যে। হাসিঠাট্টা করতে ভালোবাসেন। ভালোবাসেন খেলাধূলা।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 4113
Post Views 224