MysmsBD.ComLogin Sign Up

চুলের রুক্ষতা দূর করতে করণীয়!

In রূপচর্চা/বিউটি-টিপস - Apr 17 at 2:27pm

নারীর সৌন্দর্য বর্ধনে চুলের ভূমিকার তুলনা নাই। যেকোনো নারীকে খুব সহজেই রূপবতী করে তুলতে পারে একগোছা ঝলমলে রেশমি চুল। চুল রুক্ষ হওয়ার একটি অন্যতম কারণ ধূলোবালি। অনেক সময় তাড়াতাড়ি বের হওয়ার জন্য ভেজা চুলকে শুকানোর জন্য আমরা ব্লো ড্রাই করি। এতেও চুল রুক্ষ হয়ে উঠে।

এছাড়াও রিবনডিং, হেয়ার কালার এসবের জন্যও চুল ধীরে ধীরে তার মসৃণতা হারায় আর রুক্ষ হয়ে যায়। রুক্ষ চুলের আগা খুব সহজেই ফেটে যায় যা চুলের বৃদ্ধিতে বাঁধা দেয়। তাই জেনে নিন খুব সহজে ঘরোয়া পদ্ধতিতে চুলের রুক্ষতার হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার কিছু সহজ উপায়।


দই :
শুষ্ক চুলের জন্য প্রয়োজন নিয়মিত কন্ডিশনিং। দই প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে। দই সরাসরি লাগান চুল ও মাথার ত্বকে। কিছুক্ষণ পর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দূর হবে রুক্ষতা।


কলা ও দুধ :
চুলে সিল্কি ভাব নিয়ে আসতে কলা ও দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে তৈরি করুন হেয়ার প্যাক। প্যাকটি চুলে লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল।


মধু ও অলিভ অয়েল :
অলিভ অয়েল ও মধু একসঙ্গে মিশিয়ে চুলে লাগান। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন ভালো করে। এটি চুলের শুষ্ক ভাব দূর করে ঝলমলে করবে চুল।


তেল :
তেল চুলের জন্য খাবার স্বরূপ। প্রতিনিয়ত চুলে তেল দিয়ে শ্যাম্পু করলে চুল বেশ ভালো থাকবে। চুল নরম এবং ঝরঝরে করতে অলিভ অয়েল ব্যবহার করুন। এটি চুলে কন্ডিশনারের কাজ করে। চুলে অলিভ অয়েল মেখে তোয়ালে দিয়ে ৪৫ মিনিট ঢেকে রাখুন। এরপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, চুলের রুক্ষতা সহজেই দূর হয়ে যাবে।


আপেল সিরাপের ভিনেগার চুল নরম করে :
এক চা চামচ আপেল সিরাপের ভিনেগার, দুই টেবিল চামচ এবং তিনটি ডিমের সাদা অংশ একসঙ্গে মিশিয়ে চুলে লাগান। ৩০ মিনিট পর ভালো করে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। এতে চুল নরম থাকবে এবং রুক্ষভাব অনেকটা দূর হবে। সপ্তাহে অন্তত একদিন চুলে এই প্যাক ব্যবহার করতে পারেন।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Posts 3294
Post Views 96