MysmsBD.ComLogin Sign Up

বিপিএল ২০১৬ : স্যামি, রাজশাহীর মধুর প্রতিশোধ

In ক্রিকেট দুনিয়া - Sat at 10:48pm
বিপিএল ২০১৬ : স্যামি, রাজশাহীর মধুর প্রতিশোধ

‘ম্যান ইউ দ্য গোল্ডেন আর্ম’-রাজশাহী কিংসকে ৩ রানে হারানোর পর খুলনা টাইটান্সের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে এভাবেই প্রশংসায় ভাসিয়েছিলেন ধারাভাষ্যকার আতহার আলী খান।

এবারের বিপিএলে খুলনার সঙ্গে প্রথম দেখায় রাজশাহীর জয়ের জন্য শেষ ৬ বলে ৭ রান প্রয়োজন ছিল। কিন্তু মাহমুদউল্লাহর বুদ্ধিদীপ্ত বোলিংয়ে জয়ের স্বাদ পায় খুলনা। কিন্তু দ্বিতীয় মুখোমুখিতে খুলনাকে বাঁচাতে পারলেন না মাহমুদউল্লাহ!

শনিবার খুলনা টাইটান্সকে ৯ রানে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ নিল রাজশাহী কিংস। শুধু রাজশাহী নয়, প্রতিশোধ নিলেন স্যামিও! সেবার খুলনাকে জয় এনে দিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। ব্যাট হাতে ৩২ ও বল হাতে ৩ উইকেট নিয়েছিলেন। এবার ড্যারেন স্যামি। ঠিক যেন মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ। শুরুতে ব্যাট হাতে দ্যুতি ছড়ানো ৩৪ বলে অপরাজিত ৭১, এরপর বল হাতে ১ উইকেট, ফিল্ডিংয়ে ১ ক্যাচ। বলা চলে মিরপুরে ক্যারিবীয় অধিনায়ক ড্যারেন স্যামির রাজত্ব!

ব্যাটিংয়ে যখন স্যামি এলেন, তখন দলীয় রান ৪ উইকেটে ৬৬। এরপর ম্যাচের পুরো দৃশ্যপট পাল্টে দেন ক্যারিবিয়ান হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান। ৫ ছক্কা ও ৪ বাউন্ডারিতে ৭১ রানের ইনিংস খেলে মাহমুদউল্লাহর মুখের হাসি মলিন করে দেন। স্যামির ঝড়টা সবচেয়ে বেশি গেছে শফিউল ইসলামের ওপর দিয়ে। তার করা ১২ বলে স্যামি তুলেছেন ৩৮ রান। এ সময়ে ৪টি ছক্কাও হজম করতে হয়েছে শফিউলকে।

স্যামির দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে রাজশাহী ৮ উইকেটে ১৫৪ রানের পুঁজি পায়। স্যামির পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২১ রান করেন জুনায়েদ সিদ্দীক। এ ছাড়া কোনো ব্যাটসম্যানই ভালো করতে পারেনি। বল হাতে খুলনার হয়ে কেভিন কুপার ও শফিউল ইসলাম ২টি করে উইকেট নেন।

১৫৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৫ রানে ২ উইকেট হারায় খুলনা। তৃতীয় উইকেটে জুটি বাঁধেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও রিকি ওয়েসেলস। দুজন দলকে টেনে নেন ৬২ রান পর্যন্ত। এ জুটি ভাঙেন স্যামি। রিকি ওয়েসেলস স্যামির বলে বড় শট নিতে গিয়ে বোল্ড হন ৩৬ রানে।

এরপর মাঠে নেমে দ্রুত ১১ বলে ১ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ২৮ রান তুলেন নিকোলাস পুরাণ। মিরাজের করা ১৪তম ওভারে প্রথম দুই বলে দুটি ছয় মেরেছিলেন খুলনার উইকেটরক্ষক এই ব্যাটসম্যান। তৃতীয় বলে আবারও একই শট। কিন্তু মিড উইকেটে তালুবন্দি হন স্যামির হাতে।

খুলনা শিবিরে সবচেয়ে বড় ধাক্কাটি দেন আবুল হাসান। বোল্ড করেন ৩৩ বলে ৩৩ রান করা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। এরপর আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি খুলনা। ৬ উইকেটে ১৪৫ রানে থামে তাদের ইনিংস।

নবম ম্যাচে এটি খুলনার তৃতীয় পরাজয়। তবে ১২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষেই আছে তারা। অন্যদিকে অষ্টম ম্যাচে চতুর্থ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে আছে রাজশাহী। সমান ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসের পয়েন্টও ৮, নেট রানরেটে এগিয়ে তারা আছে চারে। আজ রাজশাহীর জয়ে প্লে অফের লড়াই যে জমে উঠল, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

তথ্যসূত্রঃ বিডিনিউজ২৪

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6748
Post Views 335