MysmsBD.ComLogin Sign Up

শুক্রবার শুরু বিপিএলের শেষ চারে ওঠার লড়াই

In ক্রিকেট দুনিয়া - Nov 24 at 9:32pm
শুক্রবার শুরু বিপিএলের শেষ চারে ওঠার লড়াই

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএলের জমজমাট আসর চলছে। এরই মধ্যে ঢাকায় প্রথম পর্ব এবং চট্টগ্রাম পর্বের খেলা শেষ হয়েছে। শুক্রবার থেকে ফের ঢাকায় শুরু হবে শেষ চারে ওঠার লড়াই।

শুক্রবার বেলা দেড়টায় রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে খেলবে রাজশাহী কিংস। দিনের অপর খেলা সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় মুখোমুখি হবে বরিশাল বুলস ও খুলনা টাইটান্স।

এদিকে চট্টগ্রাম পর্ব শেষে পয়েন্ট টেবিলে ওলটপালট হয়েছে। চারটি দল এরই মধ্যে সাতটি করে ম্যাচ খেলেছে। একটি দল আটটি এবং দুটি দল ছয়টি করে ম্যাচ শেষ করেছে। কোনো দলেরই এখনও শেষ চার নিশ্চিত হয়নি। ঢাকায় প্রথম পর্ব শেষে শীর্ষে থেকে চট্টগ্রামে গিয়েছিল ঢাকা ডায়নামাইটস।

চট্টগ্রাম পর্ব শেষে সাত ম্যাচে চার জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে তারা। ছয় ম্যাচে পাঁচ জয় নিয়ে শীর্ষে রয়েছে রংপুর রাইডার্স। সাত ম্যাচ খেলে সমান জয় নিয়ে খুলনা টাইটানস রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থান নিয়ে চট্টগ্রাম যাওয়া চিটাগাং ভাইকিংস আট ম্যাচে চার জয় নিয়ে উঠে এসেছে চতুর্থ স্থানে।

এছাড়া ব্যাটিংয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন ঢাকার মেহেদি মারুফ (২৪৪)। বোলিংয়ে সর্বোচ্চ ১৪টি করে উইকেট আছে ঢাকার মোহাম্মদ শহীদ ও চিটাগাংয়ের মোহাম্মদ নবীর।

চট্টগ্রাম থেকে ভাগ্য ফিরিয়ে এনেছে তামিম ইকবালের চিটাগাং। ঢাকা থেকে তারা চার ম্যাচে তিন হার নিয়ে চট্টগ্রামে যায়। সেখানে প্রথম ম্যাচেও হারেন তামিমরা। কিন্তু পরের তিনটি ম্যাচে জয় পেয়ে এখন শেষ চারের আশা তাদের। চট্টগ্রামে তিন ম্যাচের সবগুলোতে জয় পেয়ে শীর্ষস্থান দখল করেছে রংপুর।

এছাড়া তিন ম্যাচের দুটিতে জয় নিয়ে খুলনা রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। ঢাকায় টানা চার ম্যাচ হেরে চট্টগ্রামে যায় বতর্মান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। চট্টগ্রামে একটি জয় পেয়েছে তারা। এ পর্বে ভালো করতে পারেনি বরিশাল বুলস এবং রাজশাহীও।

এদিকে ব্যাটিংয়ে দাপট দেখাচ্ছেন স্থানীয় ব্যাটসম্যানরা। এখন পর্যন্ত শীর্ষ ছয় ব্যাটসম্যানই বাংলাদেশের। চিটাগাং থেকেও শীর্ষস্থান নিয়ে ফিরেছেন ঢাকার মেহেদি মারুফ। সাত ম্যাচে ৪৪.৬৬ গড়ে তার রান ২৪৪।

দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে থাকা বরিশাল বুলসের মুশফিকুর রহিম ও শাহরিয়ার নাফীসের রান যথাক্রমে ২৩৬ এবং ২২৫। এরপর রয়েছেন চিটাগাংয়ের তামিম ইকবাল (২২৩), রাজশাহীর মুমিনুল হক (২১৬) ও সাব্বির রহমান (২১০)।

বোলিংয়ে ঢাকার মোহাম্মদ শহীদকে টপকে শীর্ষে উঠে এসেছেন চিটাগাংয়ের আফগান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবী। শহীদ ও নবীর উইকেট সমান ১৪টি করে। ১৩টি উইকেট খুলনার শফিউল ইসলামের। ১১টি করে উইকেট নিয়ে এরপরই রয়েছেন রংপুরের শহীদ আফ্রিদি, খুলনার জুনায়েদ খান ও চিটাগাংয়ের তাসকিন আহমেদ।

সূত্রঃ যুগান্তর

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 4093
Post Views 342