MysmsBD.ComLogin Sign Up

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে ।

অ্যাডিলেড টেস্টেই অজি শাসনের অবসান?

In ক্রিকেট দুনিয়া - Nov 23 at 6:24pm
অ্যাডিলেড টেস্টেই অজি শাসনের অবসান?

একটা সময় ছিল যখন ক্রিকেট বিশ্ব শাসন করতো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দোর্দন্ড প্রতাপশালী ক্যরবিবীয়রা কোনো দলকেই তখন পাত্তা দিত না। এখন সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুর্বলতম দলের একটি। তাদের পর দীর্ঘ সময় ধরে ক্রিকেট বিশ্ব শাসন করছে অস্ট্রেলিয়া। গত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে পাঁচ ওয়ানডের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়ে সেই সাম্রাজ্যের ভিত নড়ে উঠে। ঘরের মাঠে ফিরতি টেস্ট সিরিজ ইতোমধ্যেই হেরে বসে আছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়। আগামীকাল থেকে শুরু হওয়া অ্যাডিলেড টেস্টই কি তবে অজিদের চুড়ান্ত পতন হবে? নাকি ঘুরে দাঁড়াবে স্মিথ-ওয়ার্নাররা?

সিরিজ শুরুর আগেই দক্ষিণ আফ্রিকার প্রায় সব ক্রিকেটারই অ্যাডিলেড টেস্ট খেলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিল। কারণ ম্যাচটি হবে ফ্লাডলাইটের আলোয়। টেস্ট ক্রিকেটে অধুনা সংযোজন দিবা-রাত্রির ম্যাচে অনভিজ্ঞ প্রোটিয়ারা তাই কিছুটা হলেও চিন্তিত। তাদের এই দুশ্চিন্তা অবশ্য অজি বাহিনীর জন্য কিছুটা ইতিবাচক হতে পারে। শেষ টেস্ট জিততে মরিয়া অজি টিম ম্যানেজম্যান্ট একসাথে ৬ ক্রিকেটারকে বাদ দিয়েছে দল থেকে। পুরনো মুখের পাশাপাশি দলে এসেছে নতুন মুখও। তাদের নিয়ে এখন মহাখুশি অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ।

অন্যদিকে অধিনায়ক ফাফ ডু-প্লেসিসের বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারি নিয়ে বেশ ঝামেলায় আছে প্রোটিয়ারা। যদিও অ্যাডিলেডে খেলতে ডু-প্লেসিসের কোনো বাধ থাকছে না। ঘরের মাঠে অজিদের হোয়াইটওয়াশ করেই দেশে ফেরার পণ প্রোটিয়াদের। অজিদের ব্যর্থতা আর ডু-প্লেসিদের দারুণ পারফরমেন্স মিলিয়ে সম্ভাবনার পাল্লাটা কিন্তু প্রোটিয়াদের দিকেই ঝুঁকে থাকে। পার্থে ১৭৭ রানের বিজয়ের পর হোবার্টে ইনিংস ব্যবধানে জিতেছে প্রোটিয়ারা। তাই শেষ টেস্টে হিসেবে গোলমাল হওয়া কঠিন। টেস্ট বরারই ভালো খেলে দক্ষিণ আফ্রিকা। টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে পাঁচ নম্বরে থাকলেও ওয়ানডেতে আছে র‌্যাংকিংয়ের দুই নম্বরে। সেই প্রোটিয়াদের কাছেই পতন হতে যাচ্ছে অজি ক্রিকেটের?

তবে কারা হচ্ছে টেস্ট ক্রিকেটের পরবর্তী শাসক? ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ ড্র করে টেস্ট ক্রিকেটের রাজা হয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু বেশিদিন টেকেনি সেই সাম্রাজ্য। ঘরের মাটিতে কিউইদের হোয়াইটওয়াশ করে র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থান দখল করে ভারত। দুই নম্বরে থেকেই সন্তুষ্ট থাকতে হয় পাকিস্তানকে। ইংল্যান্ডের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও সিরিজ জিতে পাকিস্তান। তবে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে প্রথম টেস্ট ৮ উইকেটে বাজেভাবে হেরে এখন সিরিজ হারানোর দুশ্চিন্তায় মিসবাহ বাহিনী। গত ১০টি টেস্টের ছয়টিতেই জিতেছে পাকিস্তান। তবে ওয়ানডেতে জয় পাঁচটি। এর মধ্যে চারটিই আবার দুর্বল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে।

অন্যদিকে বিরাট কোহলির নেতৃত্বে গত ১০ টেস্টের ৭টি তেই জিতেছে ভারত। বাকী তিনটি টেস্ট ড্র হয়েছে। সর্বশেষ ইংল্যান্ডকে ২৪৬ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে কোহলি বাহিনী। সিরিজে বাকী আরও তিন টেস্ট। ওয়ানডেতেও সমানসংখ্যক ম্যাচে সমানসংখ্যক জয় তাদের। প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, জিম্বাবুয়ে এবং নিউজিল্যান্ড। তবে টি-টোয়েন্টির সর্বোচ্চ বাণিজ্যিক ব্যবহার করা ভারত ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে চার নম্বরে আছে। ভঙ্গুর দল নিয়ে সেই অস্ট্রেলিয়াই ১ নম্বর। পাকিস্তানের অবস্থা খুবই খারাপ। তবে যদি টেস্ট ক্রিকেটকেই ক্রিকেটের আসল পরীক্ষা ধরা হয়, তবে ক্রিকেটের শাসক বনে যেতে পারে উপমহাদেশের দুটি দেশের কোনো একটি।

তথ্যসূত্রঃ বিডিনিউজ২৪

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০ টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে ।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6921
Post Views 435