MysmsBD.ComLogin Sign Up

Search Unlimited Music, Videos And Download Free @ Tube Downloader

সূরা ইখলাস তিনবার পড়লে কি কোরআন খতমের সওয়াব হয়?

In ইসলামিক শিক্ষা - Nov 16 at 8:27am
সূরা ইখলাস তিনবার পড়লে কি কোরআন খতমের সওয়াব হয়?

প্রশ্ন : সূরা ইখলাস তিনবার পড়লে নাকি কোরআন শরিফ একবার খতম দেওয়ার সওয়াব পাওয়া যায়। এ কথা কি সহিহ?

উত্তর : সূরা ইখলাস তিনবার পড়লে একবার কোরআন খতম হয়—এই মর্মে কোনো হাদিস সাব্যস্ত হয়নি। এটি একেবারেই ভুল বক্তব্য। রাসূল (সা.) হাদিসের মধ্যে যেটি বলেছেন সেটি হলো, ‘সূরা ইখলাস কোরআনের তিন ভাগের এক ভাগের সমান।’ কিন্তু এখান থেকে কেউ কেউ এটি ইশতিহাদ করেছেন যে তিন ভাগের এক ভাগ যেহেতু রাসূল (সা.) বলেছেন, এ জন্য তিনবার পড়লে কোরআন খতম হবে।

কিন্তু রাসূল (সা.) যেটি বলেছেন, আমাদের সেটাই বলতে হবে। এখানে কোনো ধরনের যোগ-বিয়োগ অঙ্ক কষে, রাসূল (সা.) যা বলেছেন, তার বাইরে বক্তব্য দেবেন, এ বক্তব্য দেওয়ার কোনো অধিকার ইসলামের মধ্যে কারো নেই।

কোনো আলেমকে এখানে অধিকার দেওয়া হয়নি। মানুষ মনে করে যে, সূরা ইখলাস তিনবার পড়লেই কোরআন খতম হয়ে যাবে। না, রাসূল (সা.) যেটা বলেছেন, সেটাই হচ্ছে কথা। সেটা হলো, ‘কোরআনের এক-তৃতীয়াংশের সমান।’

এখানে অনেক কথা রয়েছে। এক-তৃতীয়াংশের সমান বলতে জুমহুর আল হাদিসগণ বলেছেন যে কোরআনে কারিমের মধ্যে আল্লাহ সুবানাহুতায়ালা যা বলেছেন, যে বার্তাগুলো দিয়েছেন, তার তিন ভাগের এক ভাগ হচ্ছে এখানে।

কারণ, এখানে তাওহিদের পরিপূর্ণ বিবরণ আছে, যেটি অন্য কোথাও নেই। কিন্তু কেউ কেউ এটা বলেছেন যে, সওয়াবের দিক থেকেও তিন ভাগের এক ভাগের সমান হবে। কিন্তু এটাকে যোগ-বিয়োগ করে নিজের মনমতো হাদিস তৈরি করার কোনো অধিকার ইসলামের মধ্যে নেই।

কোরআন খতম হওয়ার বিষয়টি এভাবে হবে না। শুধু কোরআন সম্পূর্ণ পড়লেই খতম হবে। এখানে বার্তা হলো, এখানে তাওহিদের কথাটা আছে। এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, এখানে পরিপূর্ণ তাওহিদের বিবরণ, অর্থাৎ আল্লাহ সুবানাহুতায়ালার পরিচয় তুলে ধরা হয়েছে। কোরআনের বার্তার মধ্যে এটাই তো মূল বার্তা।

সূত্রঃ আপনার জিঙ্গাসা, এনটিভি অনলাইন

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 3916
Post Views 1527