MysmsBD.ComLogin Sign Up

ধর্ষণ করলেন শিক্ষক, জরিমানার টাকা বাটোয়ারা

In দেশের খবর - Nov 09 at 9:58pm
ধর্ষণ করলেন শিক্ষক, জরিমানার টাকা বাটোয়ারা

পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার নায়েকেরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে।

ঘটনা ধামাচাপা দিতে ইউপি চেয়ারম্যানসহ একটি মহল নামমাত্র সালিস করেছে। রোববার সালিসে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হলেও ধর্ষিতার পরিবারকে দেয়া হয়েছে মাত্র ৭০ হাজার টাকা।

বুধবার ঘটনাটি জানাজানির পর এলাকায় তোলপাড় শুরু হলে অভিযুক্ত শিক্ষককে ছুটি দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক।

এদিকে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও অভিভাবক অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে মিছিল ও সমাবেশ করে বিদালয়ে তালা ঝোলানোর হুমকি দিয়েছে।

ধর্ষিতার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ওই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির কয়েকজন ছাত্রী স্কুল ছুটির পর গণিত বিষয়ে টিউশনি পড়ত বিএসসি শিক্ষক শহিদুল ইসলামের কাছে। পড়া শেষে অন্যান্য ছাত্রীরা চলে গেলে ওই ছাত্রীকে শ্রেণিকক্ষ ঝাড়ু দেয়ার কথা বলে কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করত শিক্ষক শহিদুল। গত একমাসে ৬-৭ দিন ধর্ষণ করার অভিযোগ করেছে ওই ছাত্রী।

বিষয়টি ধর্ষিতার মা প্রধান শিক্ষক জাহান আলীকে জানান। কিন্তু প্রধান শিক্ষক কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে ছুটি দেন।

ধর্ষিতার মা বলেন, 'হামরা গরীব। মেয়ের বাপ পাগলের মতো। কিছু পড়ায় তাকে বিয়ে দিতে চাইছিল। তা হলো না। লজ্জায় স্কুল যায় না।'

ধর্ষিতার মায়ের নানী বলেন, 'ছাওয়াটা স্কুল যায় আইসে। মাস্টার কি করিল। আসি কান্দি কান্দি কয়। চেয়ারম্যান বিচার করছে। জামাইক ৭০ হাজার ট্যাহা দিছে।'

এদিকে কচাকাটা ইউপির চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়ালসহ একটি মহল গত রোববার স্থানীয় জাপা নেতা গোলাম মোস্তফার বাড়িতে নামমাত্র শালিস করে অভিযুক্ত শিক্ষকের দেড় লাখ টাকা জরিমানা করে। ছাত্রীর পরিবারকে দেয় ৭০ হাজার টাকা। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে অভিভাবক ও এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউআরসিতে প্রশিক্ষণরত প্রধান শিক্ষক জাহান আলী বলেন, 'বিষয়টি ছাত্রীর মা মৌখিকভাবে বলেছে। লিখিত অভিযোগ করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।'

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোসলেম উদ্দিন শাহ বলেন, বিষয়টি প্রধান শিক্ষক জানায়নি। আপনাদের অনেকের মাধ্যমে জেনে প্রধান শিক্ষককে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

কচাকাটা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল জানান, সালিসের মাধ্যমে বিষয়টি মীমাংসা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হায়াত মো. রহমতুল্লাহ জানান, বিষয়টি মৌখিকভাবে জেনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। -যুগান্তর

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 4113
Post Views 397