MysmsBD.ComLogin Sign Up

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে ।

নায়ক নয় খলনায়ক সংকটে বাংলা ছবি!

In সিনেমা জগৎ - Oct 28 at 6:31pm
নায়ক নয় খলনায়ক সংকটে বাংলা ছবি!

বাংলাদেশের সুদিন ফিরিয়ে আনতে অনেকেই অনেক ভাবেই চেষ্টা করছেন। কিন্তু কোন ভাবেই তা সম্ভব হচ্ছে না। এর নেপথ্যে রয়েছে ভালো অভিনেতা না থাকা। অভিনেতা হোক নায়ক অথবা খলনায়ক। তবে বর্তমান সময়ে নায়কের সংকট কিছুটা হলেও কাটিয়ে উঠেছে ঢাকাইয়া সিনেমা। চরম সংকটে পড়েছে খলনায়ক চরিত্র।

অনেকদিন ধরে খলনায়ক হিসেবে আছেন মিশা সওদাগর। দর্শকের কাছে দারুন জনপ্রিয়ও এই অভিনেতা। মিশা সওদাগরের পর অমিত হাসান খলনায়ক চরিত্রে নিয়মিত হন। তারপর আর কাউকে তেমন ভাবে নিয়মিত পাওয়া যায়নি।

হাল আমলে শিমুল খান সামনে আসলেও এর পর তেমন ভাবে আর কাউকে দেখা যাচ্ছেনা।

একাধিক সাক্ষাৎকারে মিশা সওদাগর এ বিষয়টি নিয়ে অনেক কথাই বলেছেন। তাতে লাভ হয়নি কোনো।

তাই মিশা সওদাগর আক্ষেপ করে বলেন, ‘খলনায়ক চরিত্রে অভিনয় করেই আজকের এ অবস্থান তৈরি করেছি। আমি চাই আমার জায়গায় নতুন কেউ আসুক। কিন্তু আমি চাইলেও নতুনভাবে তেমন কোনো খলনায়কই ইন্ডাস্ট্রিতে আসছে না।’

ঢালিউডের ভিলেন সংকটের এ সুযোগটি কাজে লাগিয়ে ভারতীয় প্রতিষ্ঠিত খলনায়করা ঢুকে পড়ছেন বাংলাদেশী ছবিতে। ফলে সংকট তো কাটছেই না, উল্টো প্রকট আকার ধারণ করছে।

এছাড়াও সম্প্রতি দেশের চলচ্চিত্র বাজারে ইদানীং আসন পেতেছে যৌথ প্রযোজনার ছবি। এতে প্রধান চরিত্রগুলোতে দেশীয় একজন নায়ক কিংবা নায়িকা থাকলেও মূল ভিলেনের ক্ষেত্রে কাউকেই রাখা হচ্ছে না। যৌথ প্রযোজনার এ ছবিগুলোতে খলচরিত্রের জায়গাটা এখন ভারতের কলকাতার অভিনেতাদেরই দখলে।

দেশে খলনায়ক সংকটের কারণেই এমনটি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন যৌথ প্রযোজনার নির্মিত ওইসব ছবিগুলোর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কর্ণধাররা।

তবে যৌথ প্রযোজনার ছবিতে খল চরিত্র হিসেবে অমিত হাসানকে নেয়া হলেও নামকাওয়াস্তে চরিত্র দেয়া হচ্ছে তাকে। কোনঠাসা করেই রাখা হচ্ছে অমিত হাসানকে। তাই মিশার পর অমিত হাসান খলচরিত্রে প্রত্যাশা জাগাতে পারলেও বর্তমানে তাকে আর তেমনটি পাওয়া যাচ্ছে না।

বিষয়টি নিয়ে অমিত হাসান বলেন, ‘২০০৩ সালে দুটি যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র করেছি। তখন দেখেছি সমান সমান থাকতো সব কিছু। চরিত্র থেকে শুরু করে প্রোডাকশন বয় পর্যন্ত সমান সমান থাকতো। কিন্তু এখন আর তেমনটি নেই। অনেক গোজামিল হচ্ছে এখানে।’

অন্যদিকে নতুনদের মধ্যে শিমুল খান নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য যুদ্ধ করে যাচ্ছেন। মূলত নায়ক হওয়ার জন্যই সিনেমায় আসতে চান সবাই। কারণ দেশের চলচ্চিত্র পরিচালকরা খলনায়কের বিষয়টা এখনও তেমনভাবে উপস্থাপন করতে পারেননি।

তাই এ দিকে স্মার্ট তরুণদের আগ্রহও কম। বিষয়টির দিকে দ্রুত নজর না দিলে মিশা যুগের পর এদেশের চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি খলনায়ক সংকটে ভুগবে। নতুবা বিদেশী ধার করা ভিলেন দিয়েই ছবি বানাতে হবে নির্মাতাদের। -বিডিলাইভ২৪

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০ টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে ।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 3990
Post Views 653