MysmsBD.ComLogin Sign Up

তিন শতাধিক রানের লিড চায় ইংল্যান্ড

In ক্রিকেট দুনিয়া - Oct 22 at 9:13pm
তিন শতাধিক রানের লিড চায় ইংল্যান্ড

চট্টগ্রাম টেস্টে স্পিন বান্ধব পিচে স্পিনারদের জয়জয়কার অবস্থা চলছেই। প্রথম ইনিংসে ব্যর্থতার পর দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেও স্পিনারদের বিপক্ষে অসহায় দেখা গেছে ব্যাটসম্যানদের।

নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে আজ বাংলাদেশের স্পিন ঘূর্ণিতে মাত্র ৬২ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল ইংল্যান্ড। সেই বাজে অবস্থান থেকে একাই দলকে টেনে তুলেছেন বেন স্টোকস। সেঞ্চুরির জন্য মাত্র ১৫ রানের আক্ষেপ নিয়ে শেষপর্যন্ত সাকিবের শিকার হয়েছেন ইংলিশ অলরাউন্ডার। দিনশেষে ভালো অবস্থানে থাকার পর নিজেদের টার্গেটের কথা জানিয়েছেন তিনি।

তৃতীয় দিনে ইংলিশদের সেরা ইনিংসটা ছিল স্টোকসের। স্পিনারদের দাপটের দিনে এই ইনিংসটাই সেরা ছিল কিনা জানতে চাইলে ইংলিশ অলরাউন্ডার বলেন, ‘আমার কাছে এমনটাই মনে হয়। এখানে আসার পর থেকেই আমি কঠিন পরিশ্রম করছি। দলীয় অনুশীলনে আমি এমন পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য কাজ করি। অবশ্যই এখানে বল বেশ স্পিন হয়। প্রত্যেকেই জানে আমাদের ডিফেন্স খুব শক্তিশালী। আমরা বাউন্ডারি মারতে পারি। তবে কঠিন পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিয়েই সেটা করতে হয়। আমার মনে হয় আমার আজকের ডিফেন্স আগেরবারের চেয়ে বেশ শক্তিশালী ছিল।’

চট্টগ্রামে তৃতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৮ উইকেটে ২৭৩ রানের লিড নিয়েছে ইংল্যান্ড। নিজেদের টার্গেট নিয়ে স্টোকস জানান, ‘যদি আমরা ৩০০ কিংবা ৩২০ করতে পারি তবে সেটা দারুণ হবে। আমরা ভাগ্যবান আমাদের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ রয়েছে। টেস্টে ব্রডের সেঞ্চুরির দৃষ্টান্ত রয়েছে। এছাড়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ৯-১০টি সেঞ্চুরি রয়েছে ওকসের।’

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতে নিজেদের বিপর্যয় নিয়ে স্টোকসের মন্তব্য, ‘আমরা শুরুতেই একটা জুটি গড়তে চেয়েছিলাম। সেটি ঝুঁকি এড়িয়ে এবং ধীর রানরেটেই। আমরা বাজে বলগুলো ছেড়ে দিয়ে খেলতে চেয়েছিলাম। তবে মাত্র ৪০ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর দিনশেষে ২৭০ রানে এগিয়ে থাকাটা দলের জন্য খারাপ না।’

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতে ৮৫ রানের আগে বল হাতে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট পান স্টোকস। নিজের বোলিং নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশি বোলারদের চেয়ে বেশি রিভার্স সুয়িং পেয়েছিলাম। জো রুট এবং কুক আমাদেরকে উইকেট টু উইকেট বল করার কথা বলেছিলেন। স্পিনাররা দারুণ করেছেন এবং এটি দলকে বেশ সহায়তা করেছে।’

আজ সকালে সাকিবের আউট নিয়ে স্টোকস বলেন, ‘নিঃসন্দেহে সে (সাকিব) তাদের শেষ টপ ক্লাস ব্যাটসম্যান। সে দলকে টেনে তোলার চেষ্টা করলেও আমাদের স্পিনাররা চাপ তৈরি করতে থাকে। সৌভাগ্যক্রমে মঈন আলীর বলে আউট হয়েছে সে। এই আউটই তাদের তাড়াতাড়ির ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিল’।

তথ্যসূত্রঃ অনলাইন

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 7106
Post Views 159