MysmsBD.ComLogin Sign Up

কীভাবে ভালোবাসা খুঁজে পাবেন?

In লাইফ স্টাইল - Oct 18 at 1:25pm
কীভাবে ভালোবাসা খুঁজে পাবেন?

আধুনিক জীবন প্রচুর উভয়সংকট আর জটিলতায় পূর্ণ। একজন জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনী থাকলে দৈনন্দিন জীবনযাপন অনেক সহজ হয়ে আসে সত্য। কিন্তু ক্লান্তিকর রুটিনের ফলে প্রেম-ভালোবাসাকেও আরেকটি বিরক্তিকর গৃহকর্মের মতোই মনে হয়। তবে পাঁচ বছরের পরিকল্পনায় সঠিক ভালোবাসা খুঁজে পাওয়াটা একটু সহজই হয়ে আসবে। এমনটাই মত মনোবিজ্ঞানী ড. নিক্কি মার্টিনেজের।

লাইফস্টাইল ওয়েবসাইট বাসলকে ড. নিক্কি মার্টিনেজ বলেন, একটি নমনীয় পরিকল্পনা একজন ব্যক্তিকে তিনি তার জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনীর মধ্যে ঠিক কী চান তা বুঝতে সহায়তা করবে। এ ছাড়া এর মাধ্যমে তিনি নিজেও একজন জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনীকে কী দিতে পারবেন তাও স্পষ্ট করে উপস্থাপন করতে পারবেন।

তবে খুব বেশি গভীরভাবে পরিকল্পনা করতে গেলে তাতে শ্বাসরোধকারী পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। এবং এতে আপনি অপ্রত্যাশিত কোনো সুযোগও হাতছাড়া করে ফেলতে পারেন। ড. মার্টিনেজ বলেন, লক্ষ্য নির্ধারণের মাধ্যমে একজন ব্যক্তি সুনির্দিষ্ট বিষয়ে মনোযোগ ধরে রাখতে পারেন।

তিনি বলেন, প্রথমে আপনি আপনার আদর্শ জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনীর বিবরণ একটি কাগজে লিখে ফেলুন। এরপর তার বৈশিষ্ট্যগুলোর তালিকা পুনরায় দেখে মূল্যায়ন করুন আপনি আসলে আপনার জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনীর কাছ থেকে কী প্রত্যাশা করেন। এরপর আপনি নিজে বিনিময়ে আপনার জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনীকে কী দিতে পারবেন তা লিখে ফেলুন।

এরপর একটি শিথিল সময়সীমা নির্ধারণ করুন। যাতে আপনি এবং আপনি যাদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করছেন তারা পরিষ্কার করে বুঝার সুযোগ পায় যে আপনি আসলে কী চাইছেন। এ ক্ষেত্রে তাড়াহুড়া করা যাবে না। অথবা কঠোর কোনো সময়সূচি নির্ধারণ না করে বরং ধীরেসুস্থে চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

এ ছাড়া অতীতের সম্পর্ক থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে পদক্ষেপ নিতে হবে। আর হুট করেই কারো সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধা যাবে না। উৎসাহশূন্য অনুভূতি নিয়ে কাউকে জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনী হিসেবে বাছাই করাও ঠিক হবে না।

আর এটাও অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, ভালোবাসার জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনীকে খুঁজে বের করা কোনো সহজ কাজ নয়।

যুক্তরাজ্যের দাতব্য সংগঠন রিলেট এর সম্পর্কবিষয়ক চিকিৎসক আম্মানদা মেজরও বলেন, সত্যিকার ভালোবাসার মানুষটিকে খুঁজে পাওয়ার বিষয়টি আপনি কী চান এবং বিনিময়ে কী দিতে পারবেন তা সঠিকভাবে মূল্যায়ন করতে পারার ওপরই নির্ভর করছে।

তিনি বলেন, আপনার মানদণ্ডটি কী পর্বতসম উচ্চতাসম্পন্ন এবং কারো পক্ষে কি তা ছোঁয়া অসম্ভব? আমাদের সংগঠন রিলেট এর পরামর্শকরা দেশজুড়ে সেসব ক্লায়েন্টের জন্য কাজ করছেন যারা তাদের জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনী হিসেবে বিশেষ কাউকে খুঁজছেন। কিন্তু তাদের পছন্দের কাছাকাছি থাকা প্রার্থীদেরকে প্রত্যাখ্যান করে যাচ্ছেন একের পর এক। কারণ তারা তাদের সকল প্রয়োজন এবং আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে পারবে বলে কখনো মনে হয়নি।

তিনি হুট করেই কাউকে জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনী হিসেবে বাছাই করে নিজেকে অন্যদের সঙ্গে তুলনা করারও বিরোধিতা করেছেন। তিনি বলেন, অনেকে হয়ত সত্যি সত্যিই হুট করে এমন কাউকে পেয়ে যেতে পারেন যাকে নিজের জন্য সঠিক বলে মনে হতে পারে। তবে ভবিষ্যতে কী ঘটবে না ঘটবে সময় নিয়ে তা বিচার বিবেচনা করার মধ্যে কোনো সমস্যা নেই।

মেজর আরো বলেন, আত্মসম্মানবোধ শক্তিশালী করার মাধ্যমেও এই প্রক্রিয়া জোরদার করা সম্ভব।

আপনি যদি একা হয়ে থাকেন তাহলে প্রথমেই এ বিষয়টি বিবেচনা করে দেখুন যে, আপনি নিশ্চিতভাবেই নতুন কোনো সম্পর্কে জড়াতে প্রস্তুত আছেন কিনা। আপনি নিজে যদি নিজেকে নিয়ে সুখী ও আত্মবিশ্বাসী হন তাহলে একজন সুখী ও আত্মবিশ্বাসী জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনী খুঁজে পাওয়াটাও আপনার জন্য সহজ হবে।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 7016
Post Views 515