MysmsBD.ComLogin Sign Up

তামিম-মাহমুদ উল্লাহ-তাসকিন থেকে সাবধান!

In ক্রিকেট দুনিয়া - Oct 05 at 2:31pm
তামিম-মাহমুদ উল্লাহ-তাসকিন থেকে সাবধান!

সাকিব আল হাসান পোস্টার বয়। প্রস্তুতি ম্যাচে বিস্ফোরক সেঞ্চুরির কাণ্ড ইমরুল কায়েসের। কিন্তু ইংল্যান্ডের বিপদ আসতে পারে অন্য দিক থেকেও। শুক্রবার সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ঢাকায়। তার আগে ইংল্যান্ডের সংবাদ মাধ্যম স্কাই স্পোর্টস ইংলিশ দলকে হুশিয়ার করে দিল বাংলাদেশের আরো তিন খেলোয়াড়ের ব্যাপারে। ওপেনিং ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল, অল-রাউন্ডার মাহমুদ উল্লাহ ও ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদকে নিয়ে ভয় তাদের।

তারা বলছে, জস বাটলারের দলের জন্য তিন ম্যাচের এই সিরিজ মোটেও সহজ হবে না। কারণ দেশের মাটিতে শেষ ৬টি সিরিজই জিতেছে টাইগাররা। ইংল্যান্ডকে শেষ চার দেখায় তিনবারই হারিয়েছে। এর মধ্যে ২০১৫ বিশ্বকাপে অ্যাডিলেডে হারিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকেই ইংল্যান্ডকে বিদায় করে দেয় বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো নিজেরা উঠে যায় নক আউট পর্বে।

স্কাইয়ের বিপজ্জনক খেলোয়াড়ের তালিকার এক নম্বরে তামিম। বাঁ হাতি ২৭ বছরের ওপেনার ২০১৫তে ৪৬ গড়ে দুই সেঞ্চুরিতে ৭৪২ রান করেছেন। সেই ধারাবাহিকতায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে জেতা সিরিজে ৮০ ও ১১৮ রানের ইনিংস খেলেছেন। এছাড়া সব ফরম্যাট মিলিয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি সেঞ্চুরির রেকর্ড তার। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের শেষ বাংলাদেশ সফরে খেলেছিলেন ১২০ বলে ১২৫ রানের ইনিংস।

৩০ বছরের মাহমুদ উল্লাহকে বিশেষ করে মন করছে স্কাই। তাদের ভাষ্য, বাংলাদেশ দলের অন্যতম স্তম্ভ মাহমুদ উল্লাহ। ১২৮ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা। ২০১৫ বিশ্বকাপে ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি করে নায়ক হয়ে গিয়েছিলেন। ওই আসরে ৭৩ গড়ে ৩৬৫ রান করেছিলেন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেছিলেন ১০৩ রানের ইনিংস। ইংলিশদের হারে বড় ভূমিকা রেখেছিল যা। ৪ নম্বরে উঠে এসে ১২ ইনিংসে দুই সেঞ্চুরি ও ৫ ফিফটি এবং মাহমুদ উল্লাহর ৭৪ গড় স্কাইয়ের চোখে অবিশ্বাস্য।

'কাটার' মুস্তাফিজুর রহমান ও গত বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে শেষে ধসিয়ে দেওয়া রুবেল হোসেন নেই। স্কাই মনে করে তাতে পেস অ্যাটাক নিয়ে বাংলাদেশের খানিক সমস্যা আছে। কিন্তু এই দলে ডান হাতি তরুণ পেসার তাসকিনের উপস্থিতিকে বিপদ হিসেবেই দেখছে তারা। ভালো স্লোয়ার দিতে পারেন। ৯০ মাইল/ঘণ্টায় বল করেন নিয়মিত। ডেথ ওভারের দিকে ইয়র্কারে পাকা হয়ে উঠছেন। ২০১৪ তে ওয়ানডেতে তার আবির্ভাব ভারতের বিপক্ষে ৫ উইকেট নিয়ে। গত বিশ্বকাপে এই সফরের অধিনায়ক জস বাটলারের গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি নিয়েছিলেন তাসকিন। এরপর কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে শিকার করেছিলেন আরো ৩ উইকেট। তাসকিনের ব্যাপারে তাই সর্বোচ্চ সতর্কতার হুশিয়ারিই উচ্চারিত হল।

তথ্যসূত্রঃ কালের কন্ঠ

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 7066
Post Views 902