MysmsBD.ComLogin Sign Up

Search Unlimited Music, Videos And Download Free @ Tube Downloader

কাজের বদলে বিছানায় যাওয়ার অফার! কে কী বলছেন

In বিবিধ বিনোদন - Sep 22 at 9:55am
কাজের বদলে বিছানায় যাওয়ার অফার! কে কী বলছেন

বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাস্টিং কাউচ তথা বিছানায় যাওয়ার অফার নতুন কথা নয়। অভিযোগটা দীর্ঘদিনের। কাজ পাইয়ে দেব, কিন্তু বিনিময়ে অন্যকিছু চাই-এই অন্যকিছুটা বোধহয় আর খোলসা করে বলার দরকার নেই। এককথায় এটাই কাস্টিং কাউচ। ইদানিং বেশ কয়েকজন অভিনেত্রী তোপ দেগেছেন যে কখনও না কখনও তাঁদের কাস্টিং কাউচ সমস্যায় পড়তে হয়েছে। কাজের বিনিময়ে শোয়ার অফার পেয়েছেন তাঁরা।

রণবীর সিং
পোর্টফোলিও নিয়ে রণবীর গিয়েছিলেন এক কাস্টিং ডিরেক্টরের বাড়ি। অন্ধেরিতে। রণবীরের পোর্টফোলিও না দেখে সেই কাস্টিং ডিরেক্টর রণবীরকে বোঝাতে শুরুতে শুরু করেন বলিউডে “স্মার্ট অ্যান্ড সেক্সি” লুক খুব জরুরি। বোঝাতে বোঝাতেই তিনি রণবীরের গোপনাঙ্গ ছুঁয়ে দেখতে চান বলে অভিযোগ। রণবীর রাজি হননি। তা সত্ত্বেও সেই ব্যক্তি তাঁকে অনেকবার অনুরোধও করেন।

আয়ুষ্মান খুরানা
টেলিভিশনে যখন তিনি কাজ করতেন, তখন তাঁর কাছে সরাসরি বিছানায় যাওয়ার অফার এসেছিল। তিনি টেলিভিশনে অ্যাঙ্করিং করার সময় এক কাস্টিং ডিরেক্টর তাঁকে এই অফার দেন। আয়ুষ্মান তাঁকে বলেন, যদি তিনি স্ট্রেট না হতেন, তাহলে একবার হলেও ভাবতে পারতেন। কিন্তু তিনি এমন করবেন না।

সুরভিন চাওলা
বলিউডে না হলেও তামিল ছবি করার সময় কাস্টিং কাউচের শিকার হয়েছিলেন সুরভিন চাওলা। ছবির পরিচালক তাঁর বন্ধুকে দিয়ে সুরভিনকে ফোন করান। সেই বন্ধুই বলেন, সুরভিনকে সেই পরিচালকের সঙ্গে শুতে হবে। রোজ। যতদিন না ছবিটি শেষ হয়, ততদিন। সুরভিন সরাসরি প্রস্তাব খারিজ করে দেন।

টিসকা চোপড়া
একদিন এক বিখ্যাত প্রোডিউসারের থেকে ফোন পান টিসকা চোপড়া। সেই প্রোডিউসার তাঁর ছবিতে কাস্ট করেন টিসকাকে। শুটিং শুরু হয়। প্রথম দিনের শুটিং ভালোই কাটে। দ্বিতীয়দিনও কাটে একইভাবে। তৃতীয় দিন প্রযোজক টিসকাকে ডিনারের নিমন্ত্রণ জানান। বলেন, সেখানে তিনি টিসকার সঙ্গে চিত্রনাট্য নিয়ে কথা বলবেন। কথামতো টিসকা রাত আটটা নাগাদ প্রযোজকের রুমে যান। কিন্তু অবাক হয়ে তিনি দেখেন সেই ব্যক্তি শুধুমাত্র একটি সার্টিনের লুঙ্গি পরে বসে আছেন। ব্যাস। আর তিলমাত্র দেরি করেননি টিসকা। ধন্যবাদ দিয়ে কেটে পড়েন।

রাধিকা আপ্তে
সামনাসামনি তাঁকে কখনও কেউ এধরনের অফার করেননি। কিন্তু ফোনে রাধিকা বিছানায় যাওয়ার অফার পেয়েছিলেন। একদিন তাঁর কাছে একটি ফোন আসে। ফোনে তাঁকে বলা হয়, একটি বলিউড ছবির জন্য তাঁকে দেখা করতে হবে রাধিকাকে। কিন্তু একটি শর্ত আছে। সেই ব্যক্তির সঙ্গে রাধিকাকে রাত কাটাতে হবে। একথা শোনামাত্রই হেসে ফেলেন রাধিকা। হাসতে হাসতেই বলেন, “গো টু হেল।”

পায়েল রোহাতগি
কাস্টিং কাউচের জন্য পরিচালক দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকে আঙুল তুলেছিলেন পায়েল রোহাতগি। সাংহাইয়ের অডিশনের সময় দিবাকর নাকি তাঁকে শার্ট উঠিয়ে পেট দেখাতে বলেছিলেন। পায়েল সেই প্রস্তাব মেনে নেননি। পরে তিনি জানতে পারেন, সেই চরিত্রটিতে অন্য কেউ অভিনয় করছেন। দিবাকরের প্রস্তাব মেনে না নেওয়ার জন্যই তিনি রোলটি পাননি বলে মনে করেন পায়েল। কিন্তু পায়েলের এই অভিযোগ উড়িয়ে দেন দিবাকর। তিনি বলেন, কাউকে কাস্ট করার জন্য তিনি কখনও শারীরিক সম্পর্ক বানাতে বলেন না। উলটে তিনি পায়েলের দিকেই আঙুল তোলেন।

তথ্যসূত্রঃ অনলাইন

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6796
Post Views 1056