MysmsBD.ComLogin Sign Up

টেবিল সাজানোর কয়েকটি টিপস

In টুকিটাকি টিপস - Sep 16 at 4:03pm
টেবিল সাজানোর কয়েকটি টিপস

যেকোনও আয়োজনে সাজগোজ ও রান্নাপর্ব শেষ করে সবচেয়ে বড় প্রস্তুতি হলো অতিথি আপ্যায়ন। এই দিন যেকোনও সময় চট করেই চলে আসতে পারে প্রিয় অতিথিরা তাই ঘরকে যেমন পরিপাটি রাখতে হবে তেমনি রাখতে হবে ডাইনিং টেবিলের সৌন্দর্য।

বর্তমানে ডাইনিং টেবিলে বেশ শোভা পায় টেবিল রানার। আর উৎসবে টেবিল রানার হওয়া চাই গর্জিয়াস। বিভিন্ন কালারফুল কাপড় দিয়ে তৈরি করা যেতে পারে টেবিল রানার। টেবিল রানার সাধারণত লম্বা ধরনের হয়। সেকারণে লম্বা আকৃতির টেবিলেই এটি বেশি মানানসই। দু’পাশে ঝুলিয়ে দিলেও ভালো দেখাবে যাদের গোল টেবিল তারা বর্গাকৃতির টেবিল রানার ব্যবহার করবেন। নিজের মনের মত করে তৈরি করে ফেলুন। সাধারণ আকৃতির টেবিল রানারের থেকে তুলনামুলক ছোট করে তৈরি করলে গোল টেবিলে সুন্দর দেখাবে। বর্গাকৃতির টেবিলেও এমনটি করা যেতে পারে।

তবে শুধু টেবিল রানার ব্যবহারই খাবার টেবিল পূর্ণতা পায় না। সঙ্গে ন্যাপকিন ব্যবহার করতে হবে। টেবিল রানারের ক্ষেত্রে উজ্জ্বল রঙকে প্রাধান্য দেয়া উচিত। ন্যাপকিনটাও এর রঙের সঙ্গে মিলিয়ে কিনতে পারেন। কেউ চাইলে ছোট ছোট ম্যাট ব্যবহার করতে পারেন। এতে করে টেবিল পূর্ণতা পাবে। নানা উপকরণের টেবিল রানার পাওয়া যায়। তবে মোটা কাপড়ের তৈরি টেবিল রানার ব্যবহার করলে ভালো। এতে করে টেবিলের সঙ্গে সুন্দরভাবে এটে থাকবে। দেশীয় তাঁতের তৈরি টেবিল রানারের প্রচলনই বেশি।

বাঁশের, পুতির,বেতের টেবিল রানারও অনেক আর্কষণীয়। বড় বাসনটা মাঝে রেখে ছোট গুলোকে চারপাশে সাজালে অন্যরকম লাগবে। টেবিল রানারকে সাজিয়ে রাতের খাবারকে ভিন্নভাবে পরিবেশন করতে পারেন। সেজন্য প্রথমেই ঘরের বাতিগুলো নিভিয়ে ফেলতে হবে। খাবারের সঙ্গে জড়িত থাকে টেবিল রানার। তাই এর যত্নআত্তিও করতে হবে। খেয়াল রাখবেন এতে যেন তরকারি ঝোল ,ডাল না পড়ে। যদিও বা পড়ে সঙ্গে সঙ্গে মুছে ফেলবেন। প্রতিদিনের ব্যবহারের জন্য বেতের কিংবা কাপড়ের টেবিল রানার উপযোগী। তাহলে সহজেই পরিষ্কার করতে পারবেন। ময়লা , তেল চিটচিটে হলেই সাবান পানিতে ধুয়ে ফেলবেন।



অতিথি আপ্যায়নের ক্ষেত্রে টেবিলের সৌন্দর্য যেমন জরুরী তেমনি দরকার টেবিল ম্যানারও। টেবিলে রাখার উপকরনগুলো নিয়মানুযায়ী সাজাতে হবে। টেবিলে রাখতে হবে ন্যাপকিন, সাইড প্লেট/বাটার প্লেট এবং মাখনের ছুরি, সালাদের কাঁটা চামচ, মাছের কাঁটা চামচ, ডিনারের কাঁটা চামচ, সার্ভিস প্লেট, ডিনারের ছুরি, সালাদের ছুরি, সুপের চামচ, পানির গ্লাস, ডেজার্ট চামচ ও কাঁটা চামচ। টেবিল সাজানোর সময় নেপকিন সার্ভিস প্লেটের মাঝে ভাজ করে রাখতে হবে। অতিথিরা টেবিলে বসা শুরু করলে নেপকিনটি সার্ভস প্লেটের বামে রাখতে হবে। আবার অনেক সময় নেপকিন গ্লাসে সুন্দর করে সাজিয়ে রাখতে হবে। ডিনারের ছুরি প্লেটের ডানে রাখতে হবে। সালাদের ছুরি ডিনারের ছুরির থেকে একটু ছোট এবং প্রয়োজন হলে সালাদ কাটতে ব্যবহার করা হয়। এটি ডিনার ছুরির ডানে রাখা হয়। মাংশ কাটার ছুরি একটু ধারালো হতে হবে। তবে মনে রাখতে হবে তরল খাবার রাখা হয় সার্ভিস প্লেটের ডানে এবং সলিড খাবার বামে।

Googleplus Pint
Roney Khan
Posts 819
Post Views 231