MysmsBD.ComLogin Sign Up

সিনেমার গল্পকেও হার মানালো যুক্তরাষ্ট্রের এক তরুনী পুলিশ কর্মকর্তার ব্যাতিক্রমি প্রতিশোধের গল্প !

In সাধারন অন্যরকম খবর - Sep 09 at 10:50am
সিনেমার গল্পকেও হার মানালো যুক্তরাষ্ট্রের এক তরুনী পুলিশ কর্মকর্তার ব্যাতিক্রমি প্রতিশোধের গল্প !

তারা দুজন কিন্তু অপরচিত নয়। প্রকৃত পক্ষে তারা ছিলেন বেশ নিকটাত্মিয়। একজনের বয়স মাত্র আট বছর অন্যজনের প্রায় ৪৭ ছিলো সেসময় ।

আট বছর বয়সী এক শিশুকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে প্রথম কারাগারে যান যুক্তরাষ্ট্রের লুসিয়ানার নাগরিক এরলসি চেইসন । কিন্তু মাত্র কিছুদিন পরেই আইনের ফাঁক ফোকড় পেরিয়ে ১৯৯৪ সালে তিনি মুক্তি পান সেই অভিযুক্ত ।

মাত্র ৮ বছর বয়সে শুধু একবার দুবার নয় নিকটাত্মিয় এক মধ্যবয়স্কের কাছেই বছরের পর বছর টানা বিকৃত যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন ঐ শিশু। সেই ঘটনার পর অভিযুক্তের কিছুদিনের জেল হয়েছিলো মাত্র। এরপর থেকেই সেই অপরাধীকে শাস্তি দেবার পণ করে সেদিনের সেই শিশুটি। দিনমাস বছর গড়িয়ে দৃঢ় মনোবল আর ইচ্ছের শক্তি দিয়ে সেদিনের শিশু তার কিশোরীবেলা কাটিয়ে একসময় যোগ দেন পুলিশ বাহিনীতে। এ যেন হার মানায় কোন এডভেঞ্চার সিনেমার গল্পকেও।

নানা চড়াই উতরাই পেরিয়ে সেদিনের সেই শিশু বড় হয়ে পুলিশ বাহিনীতে যোগ দেবার পর কর্মক্ষেত্রে সফলতা আর নিষ্ঠায় পুলিশ কর্মকর্তা হয়ে যান। কিন্তু এত সফলতার পরেও শৈশবের সেই দুঃসহ স্মৃতি সারাক্ষনই তাড়া করে বেড়াতো তাকে।

সম্প্রতি ২৫ বছর বয়সী নারী পুলিশ র্কমর্কতা যুক্তরাষ্ট্ররে ম্যাকলনোনা কাউন্টি শেরিফের গোয়েন্দা ব্র্যাড বন্ডের কাছে তার শৈশবে যৌন নির্যাতনের বিষয়ে সবকিছু খুলে বলেন। একইসাথে তিনি জানান, সেই দুঃসহ স্মৃতির কারনে তিনি কারো সঙ্গে এখন পর্যন্ত স্বাভাবিক ও রোমান্টকি কোনো সর্ম্পকে জড়াতে পারছেন না।

অভিযুক্ত এরলসি হয়তো বাকি জীবনটা মুক্তভাবে কাটাতে পারতেন যদি না টেক্সাসের এক নারী পুলিশ র্কমর্কতা তার বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ না আনতো।

এই ঘটনার বেশ কয়কে বছর পর পুলিশ র্কমর্কতা হন ওই নারী। নির্যাতনের ১৫ বছর পর ২০১৪ সালে ওই নারী চেইসনরে সঙ্গে দেখা করেন এবং গোপনে তাদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা রেকর্ড করেন । পুর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ওই পুলিশ র্কমর্কতা তার বক্ষবন্ধনীরভেতরে টেপ রেকর্ডার রেখেছেলিনে। পুরো আলোচনাটি রেকর্ড করা হয়। দুই ঘণ্টার আলাপচারিতায় ঐ নারী কর্মকর্তা কৌশলে অতীতকালে চেইসন তার সঙ্গে কী কী করেছিলেন তা বের করে আনেন ।


স্বীকারোক্তিতে চেইসন জানান, বয়স কম হবার কারনে সে প্রতিদিন কমপক্ষে দু-তিনবার ঐ শিশুর পায়ের ফাকে তার পুরুষাঙ্গ ঘষতেন এবং বির্যপাত করতেন। এমনকি ঐ শিশুকে জোর করে ওরাল সেক্সেও বাধ্য করতেন তিনি। আলাপচারিতার সময় উলটো এই ঘটনার জন্য ওই নারীকইে দোষারোপ করেন চেইসন। চেইসন বরং নিজের প্রশংসা করে বলনে, ‘এটা তো স্বীকার করো আমি তোমার কুমারত্বি হরণ করিনি’।


তবে সবচয়েে গুরুত্বর্পূণ বিষয় হচ্ছে যে অভিযুক্ত চেইসন একাধকি বার যৌন হয়রানরি কথা স্বীকার করছেন। এই কারণে তাকে বাকি জীবন কারাগারে থাকতে হতে পারে। সম্প্রতি বিচারকদের একটি র্বোড এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

পরবর্তিতে সেই রেকর্ড করা কথার্বাতা আদালতের বিচারকের সামনে পেশ করা হয়। এরপর গত ২৬ আগস্ট চেইসনরে বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমানিত হয় আদালতে । এখনো অবশ্য চুড়ান্ত রায় ঘোষণা করেনি আদালত। তবে শিশু নির্যাতনের কারণে যুক্তরাষ্ট্ররে আইন অনুযায়ী তার ৪২ বছর কারাদণ্ড হতে পারে বলে ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে ।

যুক্তরাষ্ট্রভত্তিকি গণমাধ্যম দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট নারী পুলিশ কর্মকর্তার সাক্ষাৎকারের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে, ‘আমার চাকরি আইন প্রয়োগকারী সংস্থায়। আমার দায়িত্ব জনগণকে রক্ষা করা। আমি যদি নিজেকেইে রক্ষা করতে না পারি একইসাথে আমার সাথে হয়ে যাওয়া কোন অন্যায়ের বিচার না করতে পারি তাহলে মানুষকে কীভাবে রক্ষা করব?’

ওই নারী তার ব্যক্তিগত জীবনের দুঃসহ স্মৃতির কারণে থেরাপি নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন । তিনি এখন অবসেসিভ কম্পালসিভ ডিজর্অডারে ভুগছনে। যার কারণে তিনি কারো সঙ্গে রোমান্টকি কোনো সর্ম্পকে জড়াতে পারছেন না বলেও উল্লেখ করা হয় সংবাদে ।

Googleplus Pint
Asifkhan Asif
Posts 1372
Post Views 671