MysmsBD.ComLogin Sign Up

মিসেস অধিকারীকে শান্ত করতে কী বললেন দেব?

In বিবিধ বিনোদন - Sep 05 at 12:24pm
মিসেস অধিকারীকে শান্ত করতে কী বললেন দেব?

শিরোনাম দেখে চমকালেন নাকি৷ ভাবছেন দেব আবার কবে বিয়ে করলেন যে মিসেস অধিকারীকে পাওয়া যাবে! এমনিতেই নায়ককে নিয়ে সম্পর্কের নানা গুজব ঘোরাফেরা করে বাজারে৷ সেটাই স্বাভাবিক৷ তবে যা রটে তার কিছু তো বটে৷ কিন্তু তাই বলে কোন সম্পর্ক পরিণয়ের পরিণতি পেল তবে তো মিসেস অধিকারীকে পাওয়া যাবে৷ আসল ঘটনা হল টুইটার খুঁজে পেয়েছে মিসেস অধিকারীকে!

টালিপাড়ার সকলেই এ প্রশ্নের সামনে পড়ে ভুরু কুঁচকাচ্ছেন৷ নায়ক দেবকে যাঁরা কাছ থেকে চেনেন, তাঁরাও এরকম কোনো সম্ভাবনার কথা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না৷ অথচ তিনি আছেন৷ এবং, শুধু আছেনই নয়, হাজার কাজের ভিড়ে ব্যস্ত নায়কের মনোযোগ পেতেও মরিয়া৷ টালিপাড়ার কেউ জানুক আর নাই জানুক, গত ২৮ আগস্ট থেকে স্বমহিমায় আছেন মিসেস দেব অধিকারী!

তা কে তিনি? সঠিক পরিচয় নিয়ে ধোঁয়াশা আছে৷ তবে গত মাসের ২৮ তারিখ থেকে তিনি স্বঘোষিত মিসেস দেব অধিকারী৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ঢুঁ দিয়ে তাঁর প্রোফাইল পিকচারে উঁকি দিলে দেখা যাবে নায়কের সঙ্গে বেশ ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবিই সেখানে জ্বলজ্বল করছে৷ অবশ্য নেপথ্যে আছে ফটোশপের কারিকুরি৷ মানে নায়কের পাশে মিসেস দেব অধিকারীর মুখের পরিবর্তে শ্রাবন্তী বা নুসরত কেউ থাকলে অবাক হওয়ার কিছু নয়৷ গতমাসে তিনি মোটামুটি বিজ্ঞাপন দিয়ে মিসেস দেব অধিকারী হয়ে গেছেন৷ এবং তা যে পার্মানেন্ট তাও বলেছেন সোচ্চারে৷

তা এরকম প্রোফাইল দেখে নায়কের চোখ কপালে উঠতে পারত৷ কিন্তু স্বভাবসিদ্ধ রসিকতায় তাঁকে শান্ত করেছেন দেব৷ অনুরাগীদের চাহিদা মেটাতে দেবের চেয়ে বুদ্ধিমান আর কে? সম্প্রতি স্কেচ দিয়ে বেশ কিছু ভক্ত নায়কের মন জয় করছিলেন৷ তা দেখে একটু যেন ঈর্ষাণ্বিতই হয়ে পড়েছেন ইনি৷ আর তাই আক্ষেপ করে মিসেস অধিকারী জানিয়েছেন, তিনি তো ছবি আঁকতে পারেন না৷ তবে চেষ্টা করবেন৷ তাহলে অন্তত একটু নায়কের নজরে পড়বেন৷ উত্তরে নায়কের জবাব, ছবি আঁকার কী দরকার! এই নামটুকুই তাঁর কাছে যথেষ্ট!

যথেষ্ট আমদর্শকের কাছেও৷ একদা রাজেশ খান্নাকে নাকি মনে মনে বিয়ে করেছিলেন বহু তরুণী-স্টারডমের এমন বহু গপ্পো শোনা যায়৷ তা সে নিরিখে আমাদের টালিপাড়ার নায়ক যে বিন্দুমাত্র পিছিয়ে নেই, এরপর তা আর বলার অপেক্ষাও রাখে না।

তথ্যসূত্রঃ সংবাদ প্রতিদিন

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6702
Post Views 531