MysmsBD.ComLogin Sign Up

সাকিবের নতুন স্পিন সঙ্গী!

In ক্রিকেট দুনিয়া - Aug 29 at 9:48pm
সাকিবের নতুন স্পিন সঙ্গী!

ইংল্যান্ড সিরিজকে কেন্দ্র করে ৩০ ক্রিকেটারকে নিয়ে শুরু হয়েছিল টাইগারদের কন্ডিশনিং ক্যাম্প। ফিটনেস ট্রেনিং, স্কিল ট্রেনিং এর পর ব্যাট-বলে চলছে অনুশীলন। এদিকে বামহাতি লেগ স্পিনার মোশারফ হোসেন রুবেল আকস্মিক জাতীয় দলের এই ক্যাম্পে ডাক পেয়েছেন।

যদিও ৩০ জনের প্রাথমিক স্কোয়াডে ছিলেন না এই বাম-হাতি ক্রিকেটার। কিন্তু হঠাতই তাকে প্রমাণের সুযোগ দেয়া হয়েছে। সংক্ষিপ্ত ফরমেটে সাকিব আল হাসানের স্পিন বোলিং জুটি হিসেবে নিজের দক্ষতা দেখানোর জন্য রুবেলকে ক্যাম্পে ডাকা হয়েছে।

বিগত কিছু বছরে সাকিব আল হাসানের পর আরাফাত সানিই ছিলেন বাংলাদেশের স্পিনের দ্বিতীয় শক্তি। কিন্তু বর্তমান আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিষেধাজ্ঞায় আছেন আরাফাত সানি। ৮ সেপ্টেম্বর বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিতে অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে যাবেন সানি। যদি পরীক্ষায় সফল হোন সানি তারপরেও সাথে সাথেই তাকে জাতীয় দলে সুযোগ হবে না। কেননা নতুন বোলিং অ্যাকশনে সানি কতোটা কার্যক্রম সেটা প্রমাণের বিষয় আছে!

নিষিদ্ধ হওয়ার পর বোলিং অ্যাকশন পরিবর্তন করে আবার আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ফিরে আগের মতো সাফল্য পাচ্ছেন না স্পিনাররা। বর্তমান সবচেয়ে বড় উদাহরণ সাইদ আজমল। এছাড়া বাংলাদেশের সোহাগ গাজীও ফিরে তেমন সাফল্য পাননি। তাই বিসিবি আলাদা ঝুঁকি নিতে চাইছে না। বিসিবিকে সাকিব আল হাসানের পাশাপাশি একজন স্পিনারের জন্য নানান পরীক্ষা-নিরিক্ষা করতে হচ্ছে।

জানা গেছে, প্রথমে সোহরাওয়ার্দী শুভকে প্রথমে সানির পরিবর্তে ভাবা হচ্ছিলো। কিন্তু অনুশীলনে শুভর বোলিং নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলেন না নির্বাচকরা। এদিকে তাইজুল ইসলামকে শুধুমাত্র টেস্টের জন্য বিবেচনা করতে চাইছে বিসিবি। অন্যদিকে সাকলাইন সজিব টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেকে প্রমাণ করতে ব্যর্থ হোন।

তাই নির্বাচকরা অন্যান্য বিকল্পের দিকে ছুটছেন। এর মাঝে রুবেলের নাম আসে। ইংল্যান্ড সিরিজের প্রস্তুতির জন্য ইতিমধ্যে একটি অনুশীলন ম্যাচ খেলেছে টাইগাররা। সামনে আছে আরো দুটি অনুশীলন ম্যাচ। সেই ম্যাচ দুটিতে অংশ নিবেন রুবেল। শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৩ এবং ৬ তারিখ ম্যাচ দুইটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। আর সেই দুই ম্যাচে রুবেলকে পর্যবেক্ষণ করেই মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর নেতৃত্বে নির্বাচক প্যানেল তার অন্তর্ভূক্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবেন।

রুবেলের অন্তর্ভূক্তি প্রসঙ্গে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, 'আমরা সাকিবের পাশাপাশি আর একজন বাম হাতি স্পিনার খুঁজছি। তাই আমরা রুবেলকে ক্যাম্পে ডেকেছি। পরবর্তী দুটি অনুশীলন ম্যাচ খেলবে সে। যদি সেই দুই ম্যাচে রুবেল ভালো কিছু করতে পারে, তাহলে জাতীয় দলে আবার সুযোগ পেয়ে যেতে পারে সে (রুবেল)।'

রুবেলের জন্য এটা অবশ্যই অনেক বড় সুযোগ। কেননা রুবেল ইংল্যান্ড সফরের ৩০ জনের পাশাপাশি হাই পারফরমেন্স ইউনিটের ১৫ সদস্যের মাঝেও ছিলেন না, এর মাঝে ক্যাম্পে সুযোগ পেয়েই জাতীয় দলে অন্তর্ভূক্তি বড় সুযোগ এসেছে। পারফরমেন্স ইউনিটের বিশেষ ৫৫ সদস্যের স্কোয়াডে অবশ্য ছিলেন রুবেল। সেখানে ভালো পারফরমেন্স দেখানোর ফলেই জাতীয় দলে আকস্মিক ডাক পেয়েছেন এই ক্রিকেটার।

এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিডিসিএল) ভালো কেটেছে মোশারফ হোসেন রুবেলের। ব্যাট-বলে দক্ষতা দেখিয়েছেন এই ক্রিকেটার। ১৪ ম্যাচে ১২ উইকেটের পাশাপাশি দুইটি অর্ধশত করেছেন ৩৫০ রান।

বাংলাদেশের হয়ে রুবেল তিনটি একদিনের ম্যাচ খেলেছেন। ২০০৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার দলে ছিলেন এই ক্রিকেটার। কিন্তু ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লিগে (আইসিএল) খেলতে যাওয়ায় তার উপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে। এরপর নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেও আর জাতীয় দলে ফিরতে পারেননি এই ক্রিকেটার। ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলে গেলেও তেমন নজরকাড়া পারফরমেন্স ছিল না।

তথ্যসূত্রঃ নয়া দিগন্ত

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 7092
Post Views 1044