MysmsBD.ComLogin Sign Up

কাম্মাতিপাদাম(২০১৬): মালায়ালাম ইন্ড্রাস্টি এর সর্বকালের সর্বসেরা গ্যাংস্টার ক্রাইম ড্রামা মুভি

In বিদেশী মুভি রিভিউ - Aug 15 at 11:21pm
কাম্মাতিপাদাম(২০১৬): মালায়ালাম ইন্ড্রাস্টি এর সর্বকালের সর্বসেরা গ্যাংস্টার ক্রাইম ড্রামা মুভি

═════মুভি রিভিউ:- “Kammatipaadam”(2016)═════

ক্রাইম ড্রামা জেনারের মুভিগুলো বলতে আমি শুধু গ্যাংস অফ ওয়াসিপুর কে বুঝি। কারণ আমি হলিউড ক্রাইম ড্রামা মুভি খুব একটা বেশি দেখি নাই। আচ্ছা সেই প্রসঙ্গে না যাই। গ্যাংস অফ ওয়াসিপুর ছাড়াও সত্য, রক্ত চরিত্রা, ওমকারা, কোম্পানি, ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন মুম্বাই ক্রাইম ড্রামা মুভিগুলো আমার অসম্ভব পচ্ছন্দের। বিভিন্ন অনলাইনের তথ্যমতে মুভিগুলো ব্যাপক আলোচিত। কিন্তু আজ কোন হিন্দি বা তামিল-তেলুগু এর ক্রাইম ড্রামা নিয়ে গল্প করতে আসি নি। আজ এসেছি মালায়ালাম হাইভোল্টেজ অধিক প্রশংসিত ও আলোচিত ক্রাইম ড্রামা মুভি “কাম্মাতিপাদাম” নিয়ে আলোচনা করতে….. কি অবাক হচ্ছেন??? আমি ও অবাক হয়েছিলাম কথাটা শুনে। কারণ মালায়ালাম ইন্ড্রস্টি বাস্তবধর্মী ও থ্রিলার মুভির জন্য বিখ্যাত। কিন্তু তাদের ক্রাইম ড্রামার আড়ালে গ্যাংস্টার মুভি খুব একটা দেখা যায় না। কিন্তু তাই বলে এটা তাদের প্রথম ক্রাইম ড্রামা মুভি নয়। কিন্তু ক্লাসিক গ্যাংস্টার ক্রাইম জেনারের মুভির তালিকা করলে সবার শীর্ষে মালায়ালাম ইন্ড্রস্টি তে যে নাম উচ্চস্বরে সবার মুখে ও ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণাক্ষরে নামাঙ্কিত থাকবে তাহল এই “কাম্মাতিপাদাম” মুভি। তারপর ও অনেকের মনে খুঁতখুঁত করছে নিশ্চই কিভাবে এল মালায়ালাম ইন্ড্রস্টি তে ক্রাইম ড্রামা জেনারের মুভিগুলো তে গ্যাংস্টার দের নিয়ে কাহিনী। তারা কি সত্যি মালায়ালি দের ইতিহাসের পাতায় কখনো কালো অধ্যায় হিসেবে ছিল????





আসুন কেরালা রাজ্যের গ্যাংস্টার দের ইতিহাস নিয়ে জেনে নেই কিছু জানা-অজানা তথ্য। কেরালা দের ভাষা মালায়ালাম। তাই আশা করি লিখার মাঝে কেরালা শব্দ টি আসলে আপনারা অবাক বনে যাবেন না। ১৯৫০-১৯৬০ সালের দিকে ইন্ডিয়া তে বিভিন্ন রাজ্যে বিভিন্ন ধরনের ছোট-বড় গ্যাংস্টার দের আধিপত্য ছিল। কিন্তু ইন্ডিয়ার ইতিহাস থেকে জানা তথ্যানুযায়ী কেরালায় কখনোই শক্রিশালী কোন গ্যাংস্টার ছিল না। কালের পরিক্রমায় যদিও কেউ গ্যাংস্টার হিসেবে ছোট-খাট দল হিসেবে আধিপত্য বিস্তার করার চেষ্টা করেছিল; কিন্তু সেসব দলের সংখ্যা ছিল অতি নগণ্য। তাছাড়া দলগুলোর স্থায়িত্বকাল ও বেশিদিন ছিল না। কেরালা পুলিশ দের থেকে জানা তথ্যমতে অনেকেই নিজেদের গ্যাংস্টার হিসেবে দাবি করেছিল ১৯৮০-১৯৯০ দশকের দিকে। কিন্তু তাদের তদন্ত এর মাধ্যমে সেসব দলদের ডাকাত হিসেবে বা সাইকো কিলার হিসেবে পেয়েছিল। তাই ইতিহাস হতে এইটুকু ধারণা স্পষ্ট যে, কেরালায় কখনোই কোন প্রভাবশালী গ্যাংস্টার ছিল না বা তাদের কোন ছোটখাট দলের বিরাট কোন ত্রাস বলতে কিছুই ছিল না।





রাজিব রাবি বিখ্যাত সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবে সুপরিচিত। তিনি লায়ারস ডাইস নামে হিন্দি মুভিতে সিনেমাটোগ্রাফির জন্য ন্যাশানাল এওয়ার্ড পান। এছাড়া তিনি গ্যাংস অফ ওয়াসিপুর এর মত ক্লাসিক হিন্দি ক্রাইম ড্রামা মুভির সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবেও অধিক প্রশংসিত ও সুপরিচিত। তিনি পরিচালনায় আসেন মালায়ালাম আনায়ুম রাসুলাম মুভির মাধ্যমে। কিন্তু তিনি মালায়ালাম ইন্ড্রস্টি তে অনেক দিন পর এক ক্লাসিক বাস্তবধর্মী ক্রাইম ড্রামা নিয়ে এসেছেন। তিনি গল্পে ফুটিয়েছেন একজন মধ্যবয়স্ক ৪২ বছরের জীবনে ক্রাইম ড্রামার আদলে গ্যাংস্টার দের দল ও গ্যাংস্টাদের প্রভাব তার পরিচালিত “কাম্মাতিপাদাম” মুভিতে। আসুন জেনে নেই মুভির কিছুটা গল্পের কিছুটা অংশ।



★★★প্লট: কৃষনান ৪২ বছরের একজন মধ্যবয়স্ক লোক। তার জীবনের নানান আঙ্গিকে মিশে আছে গ্যাংস্টার দের সংস্পর্শ ও তাদের জীবন ধারার অভিজ্ঞতা। সত্তরের দশকের দিকে সে তার পরিবারের সাথে কাম্মাতিপাদাম মফস্বলে এসে পাড়ি জমায়। গঙ্গা নামের এক নিচু জাতের ছেলের সাথে ভীষন বন্ধুত্ব হয়ে যায় দেখতে সুদর্শন ভদ্র স্বভাবের কৃষনান এর। গঙ্গার প্রতিবেশী আনিথা ও ছিল কৃষনান এর খেলার। প্রথমে কৃষনান এর গাছে ওঠা শেখা, তারপর অন্যের জমিতে মাছ ধরা, রাস্তার ছেলেদের সাথে মার্বেল খেলা, এরপর শিকারি দের হাতে বন্দুক দেখা এবং সবশেষে এলাকার মধ্যপ পানকারী দের থেকে ওই ছোট বয়সে মদ্যপ পান করা সবকিছু তেই ছিল খারাপ পথে চলে যাওয়ার দিকদর্শন। কিন্তু একদিন কৃষনান ও গঙ্গা জানতে পারে তাদের এলাকার সেরা মাস্তান তখন ছিল জোসা। জোসার ত্রাসে তখন সবাই কম্পিত হয়ে থাকত। গঙ্গার বড় ভাই বালান জোসার বিরোধ করেও তার সাথে পেরে উঠতে পারে নি। নিজের চোখের সম্মুখে ওই ছোট বয়সে খুন হতে দেখে কৃষনান। কিন্তু পাগলাটে স্বভাবের ক্ষমতা পাওয়ার নেশায় মত্ত বালান এর সংস্পর্শ পেয়ে কৃষনান ও গঙ্গা কিশোর বয়সে বনে যায় এলাকার ছোটখাট বখাটে মাস্তান। কিন্তু ভাগ্যের কি অসহায় পরিণতি কৃষনান ও গঙ্গা দুই বন্ধু ই ভালবাসত আনিথা কে। এলাকায় যেভাবে প্রভাবশালী লোকদের সাহায্য নিয়ে বালান তার দল তৈরি করছিল কৃষনান ও গঙ্গা দের নিয়ে। অন্যদিকে ও তৈরি হচ্ছিল তাদের প্রতিদন্ধী। তাই বালানের নির্দেশে ওই কিশোর বয়সে কৃষনান, গঙ্গা ও তাদের দলেরা অস্ত্র চালানো শিখে নেয়।
মদ্যপ পান করা তাদের নিত্যদিনের সঙ্গী হয়ে যায়। এভাবে কৃষনান ও গঙ্গা পরিণত মাস্তান যুবকে পরিণত হয় বালানের সাহায্যে। তাদের কাছে কারো খুন করা কোন দোষের কিছু নয়। ক্ষমতার জন্য বালান যেকোন নিকৃষ্ট কাজ করতে দ্বিধা বোধ করে। পারলে সে তার নিজ আত্মীয় দের ও বিরোধ করতে পারে। এভাবে কাম্মাতিপাদাম এলাকায় এক ত্রাসে পরিণত হয় বালান ও কৃষনান, গঙ্গার ছোট মাস্তান দল টি। কিন্তু এই কাম্মাতিপাদাম এখন আর রক্ত ঝরায় না এটি এখন আর কোন গ্রাম বা মফস্বল অঞ্চল নয়। বরং এটি কর্মব্যস্ত শহরে পরিণত হয়েছে। কোথায় গেল কাম্মাতিপাদাম এর মাস্তানেরা??? কৃষনান কেন এখন তার দলবিহীন একা বসবাস করে??? কোথায় কৃষনান এর পরিবার?????













কোন কিছু না ভেবে দেখতে বসে যান মাস্টারপিস ক্রাইম ড্রামা এই মুভিটি।

••••►এই মুভির উল্লেখযোগ্য আলোচিত কিছু দিক:-

এই মুভিতে দুলকার সালমান তার অভিনয় জীবনের অন্যতম সেরা অভিনয় করেছে। জীবনের বিভিন্ন ধাপে তার লুকের পরিবর্তন ও ছিল অসাধারণ। এই প্রথম ইন্ডিয়ান ইন্ড্রস্টি কোন স্মার্ট সুদর্শন নায়ক কে গ্যাংস্টার হিসেবে মুভিতে দেখতে পাবে। ভেবেছিলাম ব্যাপার টা দৃষ্টিকটু দেখাবে!!!! কিন্তু না দুলকার তার অভিনয় দিয়ে সবার মুখে তালা দিয়ে দিল। নি:সন্দেহে এটি তার অভিনয় জীবনের অন্যতম সেরা মুভি এবং সেরা অভিনয়। তার ডায়ালগ ডিলিভারি ও ছিল অসম্ভব রকমের ভাল। মনে হচ্ছিল কৃষনান ক্যারেকটারে সে যেন জীবনযাপন করছে। এই মুভির আরেক স্পেশাল ও অসম্ভব দারুণ ন্যাচারাল অভিনয় ছিল বালান চরিত্রে রুপদানকারী মানীকান্দান এর। এই লোক টি দেখে যে কেউ মনে করবে এ যেন আজীবন অভিনয় করে যাচ্ছে। এত সাবলীল তার ন্যাচারাল অভিনয়। আরেক দূর্দান্ত অভিনয় ছিল গঙ্গা চরিত্রে রুপদানকারী ভিনায়াকান। প্রধান নায়িকা চরিত্রে শোন রমি আশ্চর্যজনক ভাবে অসম্ভব সাবলীল ছিল তার চরিত্রে। এছাড়া ছোট ছোট চরিত্রে প্বার্শ চরিত্রেরা তাদের ক্যারিয়ারের সেরাটাই অভিনয় করেছে। মোদ্দাকথা ন্যাশানাল এওয়ার্ড পাওয়ার যোগ্য দাবিদার ক্রাইম ড্রামা মুভি “কাম্মাতিপাদাম”>>>>>>











••••••••►পার্সোনাল রেটিং: নিজস্ব রেটিং দিয়ে বিচার করতে চাই না মাস্টারপিস ক্রাইম ড্রামা মুভি “কাম্মাতিপাদাম”….. আপনারা ই দেখে বিচার করে নিন মুভিটি কেমন????????

Googleplus Pint
Asifkhan Asif
Posts 1372
Post Views 321