MysmsBD.ComLogin Sign Up

মহান আল্লাহর ৯৯টি নাম ও তার অর্থ

In ইসলামিক জ্ঞান - Aug 15 at 10:53pm
মহান আল্লাহর ৯৯টি নাম ও তার অর্থ

ইসলাম ডেস্কঃ আল্লাহ্ (আরবি: ﺍﷲ‎) একটি আরবি শব্দ, ইসলাম ধর্মানুযায়ী যার দ্বারা “বিশ্বজগতের একমাত্র স্রষ্টা এবং প্রতিপালকের নাম” বুঝায়। “আল্লাহ” শব্দটি প্রধানতঃ মুসলমানরাই ব্যবহার করে থাকেন। মূলতঃ “আল্লাহ্” নামটি ইসলাম ধর্মে বিশ্বজগতের সৃষ্টিকর্তার সাধারণভাবে বহুল-ব্যবহৃত নাম; এটি ছাড়াও মুসলমানরা তাকে আরো কিছু নামে সম্বোধন করে থাকে। মুসলমানদের ধর্মগ্রন্থ কোরআনে আল্লাহ্‌র নিরানব্বইটি নামের কথা উল্লেখ আছে; তার মধ্যে কয়েকটি হল: সৃষ্টিকর্তা, ক্ষমাকারী, দয়ালু, অতিদয়ালু, বিচারদিনের মালিক, খাদ্যদাতা, বিশ্বজগতের মালিক প্রভৃতি।

তবে আরবি খ্রিস্টানরাও প্রাচীনকাল থেকে “আল্লাহ” শব্দটি ব্যবহার করে আসছেন। বাহাই, মাল্টাবাসী, মিজরাহী ইহুদি এবং শিখ সম্প্রদায়ও “আল্লাহ” শব্দ ব্যবহার করে থাকেন।

ইসলামের নবী মুহাম্মদ বলেছেন যে, আল্লাহ তা’আলার আসমায়ে হুসনা হলো মোট ৯৯ টি| আল্লাহ তা’আলা তোমাদেরকে এ সকল নামের মাধ্যমে তাঁর নিকট দোয়া প্রার্থনা করতে আদেশ করেছেন| যে ব্যক্তি আল্লাহ্‌র এ গুণবাচক ৯৯টি নাম মুখস্হ করে সে জান্নাতে প্রবেশ করবে | অন্য এক বর্ণনায় আছে, যে ব্যক্তি ৯৯টি গুণবাচক নাম মুখস্থ করবে এবং সর্বদা পড়বে, সে অবশ্যই বেহেশতে প্রবেশ করবে| — সহীহ মুসলিম

মহান আল্লাহর ৯৯টি নাম ও তার অর্থ

১। “আল্লাহ” শব্দটি আরবি “আল” (বাংলায় যার অর্থ সুনির্দিষ্ট বা একমাত্র) এবং “ইলাহ” (বাংলায় যার অর্থ ঈশ্বর বা সৃষ্টিকর্তা) শব্দদ্বয়ের সম্মিলিত রূপ, বাংলায় যার অর্থ দাড়ায় “একমাত্র সৃষ্টিকর্তা” বা “একক ঈশ্বর”

২। আর রহিম- পরম দয়ালু,

৩। আর রহমান- পরম দয়াময়,

৪। আল জাব্বার-পরাক্রম শালী,

৫। আল-আজিজ- প্রবল,

৬। আল-মুহায়মিন-রক্ষণ ব্যবস্থাকারী

৭। আল-মুমিন- নিরাপত্তা বিধায়ক,

৮। আস-সালাম-শান্তি বিধায়ক,

৯। আল-কুদ্দুস- নিষ্কলুষ,

১০। আল-মালিক- সর্বাধিকারী,

১১। আল-ওয়াহহাব- মহা বদান্য,

১২। আল-কাহার- মহাপরাক্রান্ত,

১৩। আল-গাফফার- মহাক্ ষমাশীল,

১৪। আল মুসাওবির- রুপদানকারী,

১৫। আল-বারী- উন্মেষকারী,

১৬। আল খালিক- সৃষ্টিকারী,

১৭। আল মুতাকাব্বির- অহংকারের ন্যায্য অধিকারী,

১৮। আল রাফি- উন্নয়নকারী,

১৯। আল খাফিদ- অবনমনকারী,

২০। আল বাসিত- সম্প্রসারণকারী,

২১। আল কাবিদ- সংকোচনকারী,

২২। আল আলীম- মহাজ্ঞানী,

২৩। আল ফাত্তাহ- মহাবিজয়ী,

২৪। আর রাজ্জাক- জীবিকাদাতা,

২৫। আল লাতিফ- সুক্ষ দক্ষতাসম্পন্ন,

২৬। আল আদল- ন্যায়নিষ্ঠ,

২৭। আল হাকাম- মিমাংসাকারী,

২৮। আল বাসির- সর্বদ্রষ্টা

২৯। আস সামী- সর্বশ্রোতা,

৩০। আল মুযিল্ল- হতমানকারী,

৩১। আল-মুইয্য- সম্মানদাতা,

৩২। আল কাবীর- বিরাট, মহৎ,

৩৩। আল আলী- অত্যুচ্চ,

৩৪। আশ শাকুর- গুণগ্রাহী,

৩৫। আল গফুর- ক্ষমাশীল,

৩৬। আল আজীম- মহিমাময়,

৩৭। আল হালীম- সহিষ্ণু,

৩৮। আল খাবীর- সর্বজ্ঞ,

৩৯। আল মুজীব- প্রার্থনা গ্রহণকারী

৪০। আর রাকীব- নিরীক্ষণকারী,

৪১। আল কারীম- মহামান্য,

৪২। আল জালীল- প্রতাপশালী,

৪৩। আল হাসীব- মহাপরীক্ষক,

৪৪। আল মুকিত- আহার্যদাতা,

৪৫। আল হাফীজ- মহারক্ষক,

৪৬। আল হাক্ক- সত্য,

৪৭। আশ-শাহীদ- প্রত্যক্ষকারী

৪৮। আল বাইছ- পুনরুত্থান কারী,

৪৯। আল মাজীদ- গৌরবময়,

৫০। আল ওয়াদুদ- প্রেমময়,

৫১। আল হাকীম – বিচক্ষণ,

৫২। আল ওয়াসি- সর্বব্যাপী,

৫৩। আল মুবদী- আদি স্রষ্টা,

৫৪। আল মুহসী- হিসাব গ্রহণকারী,

৫৫। আল হামিদ- প্রশংসিত,

৫৬। আল ওয়ালী- অভিভাবক,

৫৭। আল মাতীন- দৃড়তাসম্পন্ন,

৫৮। আল কাবী- শক্তিশালী,

৫৯। আল ওয়াকীল- তত্বাবধায়ক,

৬০। আল মাজিদ-মহান,

৬১। আল ওয়াজিদ- অবধারক,

৬২। আল কায়্যুম- স্বয়ং স্থিতিশীল,

৬৩। আল হায়্যু- জীবিত

৬৪। আল মুমীত- মরণদাতা,

৬৫। আল মুহয়ী- জীবনদাতা,

৬৬। আল মুঈদ- পুনঃ সৃষ্টিকারী,

৬৭। আল আওয়াল- অনাদী,

৬৮। আল মুয়াখখীর- পশ্চাদবর্তীকারী ,

৬৯। আল মুকাদ্দিম- অগ্রবর্তীকারী,

৭০। আল মুকতাদীর- প্রবল, পরাক্রম,

৭১। আল কাদীর- শক্তিশালী,

৭২। আস সামাদ- অভাবমুক্ত,

৭৩। আল ওয়াহিদ- একক,

৭৪। আত তাওয়াব- তওবা গ্রহণকারী,

৭৫। আল বার্র- ন্যায়বান,

৭৬। আল মুতাআলী- সুউচ্চ,

৭৭। আল ওয়ালী- কার্যনির্বাহক,

৭৮। আল বাতিন- গুপ্ত,

৭৯। আল জাহির- প্রকাশ্য,

৮০। আল আখির- অনন্ত,

৮১। আল মুকসিত- ন্যায়পরায়ণ,

৮২। যুল জালাল ওয়াল ইকরাম- মহিমান্বিত ও মাহাত্ম্যপূর্ণ

৮৩। মালিকুল মুলক- রাজ্যের মালিক,

৮৪। আর রাউফ- কোমল হৃদয়,

৮৫। আল আওউফ- ক্ষমাকারী,

৮৬। আল মুনতাকীম- প্রতিশোধ গ্রহণকারী,

৮৭। আল হাদী- পথ প্রদর্শক,

৮৮। আন নাফী- কল্যাণকর্তা,

৮৯। আদ দারর – ( তাগুতের) অকল্যাণকর্তা,

৯০। আল মানি- প্রতিরোধকারী,

৯১। আল মুগনী- অভাব মোচনকারী,

৯২। আল গানী- সম্পদশালী

৯৩। আল জামি- একত্রীকরণকারী,

৯৪। আস সাবুর- ধৈর্যশীল,

৯৫। আল রশীদ- সত্যদর্শী,

৯৬। আল ওয়ারিছ- উত্তরাধিকারী,

৯৭। আল বাকী- চিরস্থায়ী,

৯৮। আল বাদী- অভিনব সৃষ্টিকারী,

৯৯। আন নূর- জ্যোতি ।

Googleplus Pint
Asifkhan Asif
Posts 1372
Post Views 1549