MysmsBD.ComLogin Sign Up

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টেস্টে পাকিস্তান দলে পরিবর্তন?

In ক্রিকেট দুনিয়া - Aug 10 at 9:40pm
ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টেস্টে পাকিস্তান দলে পরিবর্তন?

সিরিজে সমতা আনার লক্ষ্যে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টেস্টে একজন অতিরিক্ত বোলার নিয়ে মাঠে নামার চিন্তা করছে পাকিস্তান। চার ম্যাচ সিরিজে ২-২ সমতা রেখে শেষ করতে এমন চিন্তা করছে সফরকারীরা। লর্ডসে প্রথম টেস্টে ৭৫ রানে পরাজিত হওয়ার পর ওল্ড ট্রাফোর্ড ও এজবাস্টনে যথাক্রমে ৩৩০ ও ১৪১ রানের বড় জয় পেয়ে সিরিজে এগিয়ে গেছে এলিস্টার কুকের দল।

সিরিজে এ পর্যন্ত মাঠে দীর্ঘ স্পেলে বোলিং করে পাকিস্তানের চার সদস্যের পেস বিভাগ কিছুটা ক্লান্ত বলে মনে হয়েছে। সিরিজ ড্র করতে হলে আগামীকাল ওভালে শুরু হওয়া চতুর্থ ২০ উইকেট শিকার করতে হবে পাকিস্তানকে। গত সপ্তাহে এজবাস্টন টেস্টে ২০ উইকেট শিকার করতে পারেনি সফরকারীরা। এ ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে ৪৪৫ রান তুলে তাদের দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে।

এজবাস্টনে ধুকতে থাকা শান মাসদের পরিবর্তে ২০ বছর বয়সী সামি আসলামকে ওপেনার হিসেবে খেলায় পাকিস্তান। সুযোগ পেয়েই দারুন পারফরমেন্স দেখিয়ে দুই ইনিংসে যথাক্রমে ৮২ ও ৭০ রান করেন ২০ বছর বয়সী আসলাম। তাই শেষ টেস্টে এবার টপ অর্ডারে অভিষেক হতে পারে ইফতিখার আহমেদের। টপ অর্ডারের এ ব্যাটসম্যান একই সঙ্গে অফ স্পিন বোলিং করতেও সক্ষম।

পাকিস্তান কোচ মিকি আর্থার ওভালে সাংবাদিকদের বলেন, “সে অফ স্পিন বোলিং করে এবং বেশ ভালই করে। ইংল্যান্ড দলে বেশ কয়েকজন বাঁ-হাতি আছে। সুতরাং পঞ্চম বোলার হিসেবে ইফতিখার ভাল একজন বিকল্প হতে পারে।”

পাঁচ বোলার নিয়ে খেলার বিষয়টিও বিবেচনায় আছে বলেন জানান আর্থার। দক্ষিণ আফ্রিকান কোচ ব্যাখ্যা করে বলেন, “নিশ্চিতভাবেই এটা একটা বিকল্প। তবে যে-ই আসুক মিডল অর্ডারে তাকে ব্যাট করতে হবে যাতে শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে পারে।”

তিনি আরো বলেন, “মূল কথা হচ্ছে এ টেস্টে আমাদের ২০ উইকেট শিকার করতে হবে। সে অনুযায়ী আমাদের কাজ করতে হবে।”

ইয়াসির শাহ প্রথম টেস্টে ১০ উইকেট শিকার করলেও শেষ দুই ম্যাচে মোটেই ভাল কিছু করতে পারেননি। দুই ম্যাচে ৫০২ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট শিকার করতে পেরেছন শাহ।পক্ষান্তরে, এ ম্যাচ জিততে পারলে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজে চলমান সিরিজের শেষ দুই ম্যাচে ভারত জয় না পেলে ২০১২ সালের পর প্রথমবার আইসিসি টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ স্থান দখল করবে ইংল্যান্ড।

নিজ মাঠে লেগ স্পিনার আদিল রশিদের অভিষেকের বিয়টিও অবশ্যই ভাবতে হবে ইংল্যান্ডকে। অধিনায়ক কুক এবং জো রুট ছাড়া ইংল্যান্ড দলের টপ অর্ডার ব্যাটিং নিয়েও কিছু প্রশ্ন আছে।কুকের ওপেনিং পার্টনার এ্যালেক্স হেলস এখন পর্যন্ত টেস্টে সেঞ্চুরির দেখা পাননি । চার নম্বরে ব্যাট করা জেমস ভিন্স এখনো দেখা পাননি হাফ সেঞ্চুরির। অবশ্য এজবাস্টনে কুকের সঙ্গে ১০৩ রানের ওপেনিং জুটি গড়েছিলেন হেলস।

হেলস বলেন,”শত রানের জুটির সবচেয়ে ভাল দিক হচ্ছে- এটা ম্যাচে ও সিরিজে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেছে।”

তিনি আরো বলেন,”একটা সেঞ্চুরি পাওয়া যে কোন ক্রিকেটারের ক্যারিয়ারেই গুরুত্বপূর্ণ। আমি শিখছি এবং উন্নতি করছি অতএব সেরাটা আসবে বলে আশা করছি।”

তথ্যসূত্রঃ কালেরকন্ঠ

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 7066
Post Views 345