MysmsBD.ComLogin Sign Up

বন্ধুত্ব নিয়ে বলিউডের সেরা ১০ ছবি

In সিনেমা জগৎ - Aug 08 at 10:26am
বন্ধুত্ব নিয়ে বলিউডের সেরা ১০ ছবি

বলিউডের বাণিজ্যিক ছবিতে একটি বিশেষ স্থান নিয়ে রয়েছে বন্ধুত্ব। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই বন্ধুত্বের মাপকাঠি বা ঘরানায় পরিবর্তন এসেছে। তবে সব সময়েই ছবির মধ্যে বন্ধুত্বের বিষয় তুলে ধরা হয়েছে, কারণ সেখানে ব্যবসায়িক বিষয়টিও জড়িত। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, ‘দিল চাহতা হ্যায়’ ছবিটির পর তিন বন্ধু বা চার বন্ধুর গল্প নিয়ে ছবি বানানোর বেশ হিড়িক পড়ে যায়। প্রকরণে পরিবর্তন এলেও বহু বন্ধুকে নিয়ে ছবি বানানোর এই ধারাটা এখনো বেশ চালু।

• বন্ধুত্বের কাহিনী নিয়ে গড়া বলিউডের জনপ্রিয় এবং সফল ১০টি ছবি নিয়েই এই আয়োজন.....

১. জানে তু…ইয়া জানে না (২০০৮)
ইমরান খান ও জেনেলিয়া ডি’ সুজা, দুজনেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন এই ছবির মাধ্যমে। আব্বাস টায়ারওয়ালার নির্মিত এই ছবিতেই ইমরানের বলিউড অভিষেক। দুই বন্ধুর মধ্যে ভালোবাসা এবং সম্পর্কের টানাপড়েন, সেখান থেকে প্রেম হয় কি না হয়—এমন কাহিনী নিয়েই এই ছবি।

২. জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা (২০১১)
জোয়া আখতারের এই ছবির কাহিনী গড়ে উঠেছিল তিন বন্ধুকে নিয়ে। কর্মব্যস্ত জীবন থেকে নিজেদের স্বপ্নের ছুটি কাটানোর জন্য তিন বন্ধুর গল্পের তালেই এগিয়েছে এই ছবি। এই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন হৃতিক রোশন, অভয় দেওল, ফারহান আখতার, কাল্কি কোচলিন এবং ক্যাটরিনা কাইফ।

৩. থ্রি ইডিয়টস (২০০৯)
চেতন ভগতের উপন্যাস অবলম্বনে রাজকুমার হিরানি নির্মাণ করেছিলেন এই ছবি। বলিউডের সর্বকালের শ্রেষ্ঠ সফল এবং প্রশংসিত ছবিগুলোর একটি হিসেবে স্বীকৃত এই ছবি। এখানে তিন বন্ধুর ভূমিকায় অভিনয় করেন আর মাধবন, আমির খান ও শারমান যোশি। এ ছাড়া গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন বোমান ইরানি, কারিনা কাপুর ও মোনা সিং।

৪. রং দে বাসন্তি (২০০৬)
দুর্নীতি এবং প্রচলিত রাজনৈতিক প্রথার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণাই কেবল নয়, রাকেশ ওম প্রকাশ মেহরার এই ছবিতে বর্ণনা হয়েছে বন্ধুত্বের অনন্য রূপ। এই ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন আমির খান, সোহা আলী খান, সিদ্ধার্থ, কুনাল কাপুর, আর মাধবন, শারমান যোশির মতো তারকারা। বক্স অফিসে সাফল্যের পাশাপাশি সমালোচকদেরও প্রশংসা পেয়েছিল ছবিটি।

৫. ইকবাল (২০০৫)
বাকপ্রতিবন্ধী এক কিশোরের ক্রিকেটার হয়ে ওঠার গল্প ইকবাল। নাগেশ কুকুনুরের এই ছবি দিয়ে বলিউডে নিজের জাত চেনান শ্রেয়াস তালপাড়ে। পরিবারের সঙ্গে বন্ধুত্ব কিংবা পারিপার্শ্বিকতার সঙ্গে বন্ধুত্বের দারুণ এক গল্প এই ছবি। এই ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় অভিনয় করেছেন নাসিরুদ্দিন শাহ্।

৬. দিল চাহতা হ্যায় (২০০১)
বন্ধুত্বের কাহিনীতে এই ছবিটি বলিউডে অন্য রকম স্থান করে নিয়েছে। তিন বন্ধুর কাহিনী নিয়ে এগিয়ে চলা এই ছবি বলিউডে বন্ধুত্বের উপস্থাপন এবং দৃষ্টিভঙ্গিকে নিয়ে গিয়েছিল ভিন্নপর্যায়ে। এই ছবির পর বন্ধুত্বের কাহিনী নিয়ে সিনেমা বানানোর ঢল নেমেছিল! নির্মাতা হিসেবে ফারহান আখতারের অভিষেক হয় এই ছবি দিয়ে। আমির খান, অক্ষয় খান্না ও সাইফ আলী খান এই ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন।

৭. কুছ কুছ হোতা হ্যায় (১৯৯৮)
রোমান্টিক ছবি হিসেবে বলিউডের ইতিহাসে অন্যতম সফল এই ছবিটি বন্ধুত্বের কাহিনী নিয়েই গড়া। ‘ভালোবাসা মানে বন্ধুত্ব’—এমনই মূলমন্ত্র ছিল এই ছবির। করণ জোহরের এই ছবিতে শাহরুখ খান, রানি মুখার্জি ও কাজল অভিনয় করেন প্রধান চরিত্রে। একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন সালমান খান।

৮. দিল তো পাগল হ্যায় (১৯৯৭)
যশ চোপড়ার নির্মাণে এই ছবিটি প্রেম ও বন্ধুত্বের দারুণ এক নিদর্শন। বাণিজ্যিকভাবে দারুণ সাফল্য পাওয়া এই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন শাহরুখ খান, মাধুরী দীক্ষিত, কারিশমা কাপুর ও অক্ষয় কুমার। এই ছবির গানগুলো এখনো বেশ জনপ্রিয়।

৯. ইয়ারানা (১৯৮১)
রাকেশ কুমারের পরিচালনায় অ্যাকশন ঘরানার এই ছবিটি বন্ধুত্বের দারুণ এক গল্প। দুই বন্ধুর নিখাদ সম্পর্ক আর তার মাঝে ঘটনাক্রমে ফাটল নিয়ে এই ছবির গল্প। তারকাবহুল এই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন অমিতাভ বচ্চন, আমজাদ খান, তনুজা ও নীতু সিং (কাপুর)।

১০. শোলে (১৯৭৫)
রমেশ সিপ্পির এই কাল্ট ক্লাসিক ছবিটি ভারতীয় ছবির ইতিহাসে বন্ধুত্বের অন্যতম নিদর্শন। ‘ইয়ে দোস্তি হাম নেহি তোড়েঙ্গে’ গানের মধ্য দিয়ে বন্ধুত্বের শ্রেষ্ঠ অঙ্গীকারটিও বলিউডি সিনেমার ভাষায় প্রতিষ্ঠিত হয়ে গিয়েছিল। ‘শোলে’ ছবিতে ছিল আমজাদ খান, ধর্মেন্দ্র, অমিতাভ বচ্চন, সঞ্জীব কুমার, হেমা মালিনী, জয়া ভাদুড়ির মতো তারকাদের ঢল। বলিউডের ইতিহাসে অন্যতম শ্রেষ্ঠ ছবির স্থান এই ছবির দখলে।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6972
Post Views 647