MysmsBD.ComLogin Sign Up

ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা মাঠে নামছে আজ

In ফুটবল দুনিয়া - Aug 04 at 1:19pm
ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা মাঠে নামছে আজ

যেমন বিশাল আয়োজন, তেমনি বিশাল এর ব্যাপ্তি। বিশ্ব ক্রীড়ার সবচেয়ে বড় আসর অলিম্পিক। আক্ষরিক অর্থেই ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’। এবারের রিও অলিম্পিকেই যেমন ২৮টি খেলার ৩০৬টি ইভেন্টে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ২০৬টি দেশের প্রায় ১১ হাজার ক্রীড়াবিদ। এমন বিশাল আয়োজনের জন্যই আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগেই কাল মেয়েদের ফুটবল দিয়ে শুরু হয়ে গেছে মাঠের খেলা। ব্রাজিলে আনুষ্ঠানিকভাবে রিও অলিম্পিকের পর্দা উঠবে ৫ আগস্ট। তবে সময়ের পার্থক্যের কারণে বাংলাদেশের জন্য সেটা ৬ আগস্ট। বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোর ৪টা ৫০ মিনিটে মারাকানা স্টেডিয়ামে শুরু হবে অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

এদিকে মেয়েদের ফুটবল দিয়ে বুধবার মাঠের খেলা শুরু হয়ে গেলেও এবারের অলিম্পিকের অন্যতম আকর্ষণীয় ইভেন্ট ছেলেদের ফুটবল শুরু হচ্ছে আজ। ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড ও সাঁতার অলিম্পিকের মূল আকর্ষণ হলেও ফুটবলের দেশে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনাকে নিয়ে উন্মাদনার কমতি নেই। একইদিনে দুই পরাশক্তি মাঠে নামায় আজই তাই শুরু হয়ে যাচ্ছে আসল অলিম্পিক।

নেইমারের ব্রাজিলকে নিয়েই এবার মাতামাতিটা বেশি। বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১টায় ব্রাসিলিয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে অলিম্পিক ফুটবলে অধরা সোনা জয়ের মিশন শুরু করবে ব্রাজিল। রাত ৩টায় রিও অলিম্পিক স্টেডিয়ামে আরেক হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা ও পর্তুগাল। ছেলেদের ফুটবলের চার গ্রুপের ১৬টি দলই মাঠে নামবে আজ। তবে সবার চোখ থাকবে মূলত ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ওপর।

পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের জন্য অলিম্পিক শ্রেষ্ঠত্ব এখনও সোনার হরিণ হয়েই আছে। চার বছর আগে লন্ডন অলিম্পিকে নেইমারদের স্বপ্ন ভেঙেছিল ফাইনালে। সেই খেদ মেটাতেই কোপা আমেরিকা বাদ দিয়ে ঘরের মাঠে অলিম্পিকে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নেইমার। অলিম্পিকের সোনা জিতে বিশ্বকাপের দুঃস্বপ্নও ভুলতে চায় সেলেকাওরা। সবমিলিয়ে ব্রাজিলের জন্য অলিম্পিক হয়ে উঠেছে শাপমোচনের মঞ্চ। স্বপ্নের ফেরিওয়ালা নেইমারের সঙ্গে আছেন গ্যাব্রিয়েল বারবোসা, গ্যাব্রিয়েল জেসুস, মারকুইনহোস ও রাফিনহার মতো একঝাঁক তরুণ তুর্কি। সবমিলিয়ে সোনার সবচেয়ে বড় দাবিদার ব্রাজিলই। এ-গ্রুপে স্বাগতিকদের বাকি দুই প্রতিপক্ষ ইরাক ও ডেনমার্ক।

ব্রাজিলের স্বপ্নপূরণের পথে সবচেয়ে বড় বাধা ভাবা হচ্ছে আর্জেন্টিনাকে। সেলেকাওদের মতো তারকাবহুল দল না হলেও মেসির উত্তরসূরিরা সোনার জন্যই লড়বে। আর্জেন্টিনাকে স্বপ্ন দেখাচ্ছেন অ্যাঞ্জেল কোরেয়া ও জিওভান্নি সিমিওনে।

২০০৮ অলিম্পিকে সর্বশেষ সোনা জিতেছিল আর্জেন্টিনা। গতবারের চ্যাম্পিয়ন মেক্সিকোকেও গোনার মধ্যে রাখতে হবে। আজ প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। জাতীয় দলের খেলা হলে জার্মানিও থাকত ফেভারিটের কাতারে। কিন্তু অলিম্পিক ফুটবল মূলত অনূর্ধ্ব-২৩ দলের টুর্নামেন্ট। যেখানে সব দল মিলিয়ে নেইমারই ধ্রুবতারা।

তথ্যসূত্রঃ যুগান্তর

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 7016
Post Views 983