MysmsBD.ComLogin Sign Up

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে ।

আর্জেন্টিনা পেয়ে গেল নতুন কোচ

In ফুটবল দুনিয়া - Aug 02 at 10:48am
আর্জেন্টিনা পেয়ে গেল নতুন কোচ

সাম্পাওলি-পচেত্তিনো-সিমিওনে—শেষ পর্যন্ত এঁদের কাউকেই কোচ হিসেবে রাজি করাতে পারল না আর্জেন্টিনা ফুটবল সংস্থা (এএফএ)। আর্জেন্টিনা দলের নতুন কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিলেন এদগার্দো বাউজা।

আগামী সেপ্টেম্বরে বাছাই পর্ব শুরুর আগে দ্রুতই আর্জেন্টিনা দলকে গুছিয়ে নেওয়া হবে এই ৫৮ বছর বয়সীর প্রধান চ্যালেঞ্জ। সবার আগে বাউজার কাজ হবে লিওনেল মেসি মন ​ফেরানো। গত কোপা আমেরিকার ফাইনালের পর আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানান মেসি।

শুধু জাতীয় দল নয়; আর্জেন্টিনার ফুটবলেই চলছে চরম বিশৃঙ্খল অবস্থা। কোপা আমেরিকার ফাইনালের আগমুহূর্তে বরখাস্ত হয়েছিলেন এএফএর তখনকার প্রধান, যিনি নিজে প্রহসনের এক নির্বাচন দিয়ে এসেছিল দায়িত্বে। এত এত প্রতিভা বিশ্ব ক্লাব ফুটবলে ছড়িয়ে দিয়েও আর্জেন্টিনা যে সাফল্য পাচ্ছে না, এর অন্যতম কারণ মনে করা হয় এএফএর অদূরদর্শিতা ও ক্ষমতাভোগী ভাবনাকে। এই ওলটপালটের মধ্যেই ভারপ্রাপ্ত প্রধান হিসেবে এএফএর দায়িত্ব নিয়েছেন আরমান্দো পেরেজ। তিনিই কাল রাতে বাউজাকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন।

আর্জেন্টিনা অবশ্য কোচ হিসেবে চাইছিল সেভিয়ার হোর্হে সাম্পাওলি, অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ডিয়েগো সিমিওনে আর টটেনহামের মাউরিসিও পচেত্তিনোর যে কাউকে। কোচ হিসেবে এঁরা এরই মধ্যে বিশেষ নজর কেড়েছেন। এমনকি ক্লাব ফুটবলের পাশাপাশি খণ্ডকালীন দায়িত্ব হিসেবে হলেও তাঁদেরকে জাতীয় দলে চেয়েছিল এএফএ। কিন্তু ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের চাপ ও ব্যস্ততার কারণে কেউই রাজি হননি। এ কারণে জেরার্ডো মার্টিনো সরে যাওয়ার পর বেশ বিরতি দিয়েই শেষ পর্যন্ত বাউজাকে নিয়োগ দিল এএফএ।

সিমিওনে-পচেত্তিনোদের মতো পরিচিতি না থাকলেও বাউজা এমনিতে কিন্তু কোচ হিসেবে দুর্দান্ত। ২০০৮ ও ২০১৪ সালে দুটি রূপকথার জন্ম দিয়েছিলেন। দক্ষিণ আমেরিকার ক্লাব শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট এই দুইবারই এনে দিয়েছিলেন তুলনামূলক পিছিয়ে থাকা দুটি দলকে। ২০০৮ সালে ইকুয়েডরের ক্লাব কুইতোকে কোপা লিবার্তাদোরেস ​জিতিয়েছিলেন। ২০১৪ সালে একই ট্রফি জেতান আর্জেন্টিনার সান লরেঞ্জোকে। দুটি ক্লাবের জন্যই সেটি ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগের সমকক্ষ এই ট্রফি প্রথম জেতা। সর্বশেষ দায়িত্বে ছিলেন ব্রাজিলের সাও পাওলোর।

১৯৯০ বিশ্বকাপের স্কোয়াডে থেকেও এক ম্যাচও খেলতে পারেননি। ডাগ আউটে বসেই দেখেছেন ফাইনালে দলের হার। একটুর জন্য না-পারার এই যন্ত্রণা তাঁর চেয়ে ভালো খুব কম লোকই বুঝবে। এই যন্ত্রণা মুছিয়ে দেওয়ার দারুণ সুযোগ এখন বাউজার সামনে। ১ সেপ্টেম্বর উরুগুয়ের বিপক্ষে বাছাই পর্বের ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে তাঁর নতুন অধ্যায়।

তথ্যসূত্রঃ প্রথম আলো

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০ টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে ।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6931
Post Views 292