MysmsBD.ComLogin Sign Up

কোহলি, ভিলিয়ার্স, ম্যাককালামে অনুপ্রাণিত সাব্বির

In ক্রিকেট দুনিয়া - Jul 26 at 4:51pm
কোহলি, ভিলিয়ার্স, ম্যাককালামে অনুপ্রাণিত সাব্বির

সীমিত পরিসরের নিয়মিত মুখ সাব্বির রহমান টেস্ট ক্যাপ পেতে মুখিয়ে আছেন। এজন্য কন্ডিশনিং ক্যাম্পে নিজের ফিটনেস নিয়ে কঠোর পরিশ্রম করছেন। এমনিতেই বাংলাদেশ দলের সবচেয়ে ভালো ফিটনেস সাব্বির রহমানের। বিপ টেস্টে শেষ কয়েকবার সাব্বিরকে ছাড়াতে পারেনি কেউ-ই।

টেস্ট ক্রিকেটে পাঁচ দিন টিকে থাকতে হলে ফিটনেসের বিকল্প নেই। সাব্বির রহমান সেই তালিকায় সবার উপরে আছেন।

কিন্তু ‘আক্রমণাত্মক’ ব্যাটিংয়ের খেতাব পাওয়ায় সাব্বিরকে টেস্টে বিবেচনায় আনছেন না অনেকেই। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যানরা দাপটের সঙ্গে টেস্ট খেলছেন। উদাহরণ হিসেবে টানা যেতে পারে ভারতের বিরাট কোহলিকে। আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স ও নিউজিল্যান্ডের ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। ভিলিয়ার্স টানা ৯৯ ও ম্যাককালাম টানা ১০০টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন। সাব্বির রহমানও একই স্বপ্ন দেখছেন। তাদের দেখেই অনুপ্রাণিত সাব্বির। মঙ্গলবার সে কথাই জানালেন মারকুটে সাব্বির।

ডানহাতি এ ব্যাটসম্যানের ভাষ্য, ‘এখন যে ব্যাটসম্যান টি-টোয়েন্টিতে এক’শ করছে, সেই দেখা যাচ্ছে টেস্টে খুব ধীরে খেলছে।’

টেস্ট নিয়ে সাব্বিরের ভাবনা, ‘একজন খেলোয়াড়ের মূল ব্যাপার হলো টেস্ট খেলা। টেস্টেই একজন ক্রিকেটারের ভালো মন্দ বোঝা যায়। আমিও সেভাবেই চিন্তা করি। এখন পর্যন্ত ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে যতোটা সম্ভব ভালো কিছু করেছি। সামনে সুযোগ এলে টেস্টেও সে রকম কিছু করার স্বপ্ন দেখি।’

ওয়ানডেতে ৬ নম্বরে ও টি-টোয়েন্টিতে ৩ নম্বরে ব্যাটিং করে আসছেন সাব্বির রহমান। সাদা জার্সিতে অবশ্য পরে ব্যাটিংয়ে বেশি ইচ্ছে সাব্বিরের। এ নিয়ে সাব্বিরের ভাষ্য, ‘টেস্টের প্রথম ১০-১২ ওভার বল খুব ‘মুভ’ করে। এক বা দুই নম্বরে নামা ব্যাটসম্যানরা কিছু সমস্যার মুখে পড়ে। তবে যারা পাঁচ বা ছয় নম্বরে ব্যাটিং করে তাদের স্পিন খেলতে হয়, সে সময় পেসারদের বলেও মুভমেন্ট থাকে; নিজের পছন্দের জায়গার কথা বললে বলবো, আমার জন্য হয়তো পাঁচ বা ছয় নম্বর জায়গাই বেশি ঠিক হবে।’

ইংল্যান্ড সিরিজের আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল) আয়োজন করবে ক্রিকেট বোর্ড। ফ্রেঞ্চাইজি ভিত্তিক টুর্নামেন্টে সাদা জার্সিতে ভালো করে নির্বাচক ও কোচের নজরে আসার ইচ্ছে রাজশাহীর এ ক্রিকেটারের। বিসিএল নিয়ে সাব্বির বলেন, ‘সামনে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ আছে। পরে আরো সিরিজ আছে। বিসিএল এই কারণেই আমার কাছে বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। বিসিএলে ভালো কিছু করতে পারলে হয়তো টেস্ট দলে আমার ডাক আসতে পারে। সব সময় রান করার জন্য কষ্ট করি। সব সময় হয়তো হয় না। অনেক সময় হয়। চেষ্ট করবো ভালো কিছু করার।’

নিজের লক্ষ্যের কথা জানিয়ে সাব্বির আরও বলেন,‘আমার বিশেষ কোনো লক্ষ্য নেই। দলের প্রয়োজনে অধিনায়ক ও কোচ আমার কাছ থেকে যা প্রত্যাশা করবে সেই প্রত্যাশা পূরণের চেষ্টা থাকবে।চেষ্টা করবো ভালো কিছু করার।’

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6738
Post Views 473