MysmsBD.ComLogin Sign Up

ইয়াসির এখন অনন্য উচ্চতায়

In ক্রিকেট দুনিয়া - Jul 19 at 1:04pm
ইয়াসির এখন অনন্য উচ্চতায়

ডোপ টেস্টে পজিটিভ হয়েছিলেন। নিষিদ্ধ ছিলেন ৩ মাস। সেখান থেকেই ফিরে ক্রিকেট বিশ্বে ঝড় তুলেছেন। লর্ডস টেস্টে ম্যাজ জেতানো পারফরম্যান্স ইয়াসির শাহকে তুলে নিয়েছে অনন্য উচ্চতায়। টেস্ট বোলারদের বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে এক লাফে ১ নম্বরে চলে এসেছেন এই লেগ স্পিনার। তাও নানা কীর্তি ঘটিয়ে। ২০০৫ সালে অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন ছিলেন বিশ্বের ১ নম্বর। ১১ বছর পর এই প্রথম কোনো লেগি আইসিসির টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান দখল করলো। পাকিস্তানের হিসেব নিতে গেলে যেতে হবে ইতিহাসের আরো পেছনে। ১৯৯৬ এর ডিসেম্বরে মুশতাক আহমেদ শেষ পাকিস্তানি বোলার হিসেবে র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর স্থানে ছিলেন। দীর্ঘ দুই দশক পর ইয়াসিরের সৌজন্যে সেই জায়গাটি আবার পাকিস্তানের হলো।

লর্ডসের প্রথম টেস্টে পাকিস্তানের জয় ৭৫ রানে। সেখানে ১৪১ রানে ম্যাচে ১০ উইকেট ইয়াসিরের। র‌্যাঙ্কিংয়ের চার নম্বরে ছিলেন ৩০ বছরের ইয়াসির। ১ নম্বরে ছিলেন ইনজুরির কারণে প্রথম টেস্ট খেলতে না পারা ইংল্যান্ডের ফাস্ট বোলার জেমস অ্যান্ডারসন। তাকে ৩ নম্বরে ঠেলে দিয়ে জায়গাটি দখল করেছেন ইয়াসির। এখন ১৩ টেস্টে ৮৬ উইকেট ইয়াসিরের। এই সংখ্যক টেস্ট খেলে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের রেকর্ডও তার। সামনে আছে ১২০ বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙে সবচেয়ে কম টেস্টে ১০০ উইকেট শিকারের বিশ্ব রেকর্ড গড়ার সুযোগ। ইংল্যান্ডের জর্জ লোহম্যান ১৮৯৬ সালে ১৬ টেস্টে ওই কীর্তিটা গড়ে রেকর্ড ধরে রেখেছেন এখনো।

লর্ডসে দ্বিতীয় দিনের খেলায় পিচ থেকে সেভাবে কোনো সহায়তা পাননি ইয়াসির। কিন্তু ৭২ রানে ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের ৬ উইকেট নিয়ে নিলেন। আর চতুর্থ দিনে ৬৯ রানে যোগ করলেন আরো ৪টি। তাতে ক্রিকেটের মক্কা লর্ডসে ম্যাচে ১০ উইকেট নেওয়া প্রথম লেগ স্পিনারও হলেন ইয়াসির। এবং এশিয়ার বাইরে এটাই ছিল ইয়াসিরের প্রথম টেস্ট।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6704
Post Views 157