MysmsBD.ComLogin Sign Up

মাউন্ট এভারেষ্ট এর জানা অজানা তথ্য

In জানা অজানা - Jul 17 at 11:50pm
মাউন্ট এভারেষ্ট এর জানা অজানা তথ্য

মাউন্ট এভারেষ্ট এশিয়ার নেপাল এবং চীনের সীমানার মধ্যে এর অবস্থিত । এটি হিমালয় পর্বতমালার একটি অংশ, সমুদ্রপৃষ্ঠ হতে শীর্ষবিন্দুর উচ্চতার হিসেবে এটি বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ । সমুদ্রপৃষ্ঠ হতে এর উচ্চতা ৮,৮৪৮ মিটার (২৯,০২৯ ফুট) ।

পৃথিবীর এই উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ সব ধরণের পর্বতারোহীদের আকর্ষণ করে- একেবারেই নতুন পর্বতারোহী থেকে শুরু করে বহু অভিজ্ঞতাসম্পন্ন পোড়-খাওয়া পর্বত-অভিযাত্রীরাও এতে সফল আরোহণের জন্যে পেশাদার পর্বত পথ-প্রদর্শকদের পেছনে প্রচুর টাকা খরচ করতে দ্বিধাবোধ করে না।

এভারেস্টে আরোহণ পর্বতারোহণের কারিগরী দিক দিয়ে অতোটা কঠিন না হলেও উচ্চতা, প্রতিকূল আবহাওয়া এবং বাতাস ইত্যাদি কারণে এ চূড়ায় আরোহণ বেশ বিপদজনক। ২০০৮ সালের শেষ পর্যন্ত ২,৭০০ জন পর্বতারোহী সর্বমোট ৪,১০২ বার এভারেস্ট শৃঙ্গ জয় করেছেন। পর্বতারোহীরা নেপালের পর্যটন আয়ের অন্যতম প্রধান উৎস, কারণ এভারেষ্ট পর্বতশৃঙ্গ আরোহণে ইচ্ছুক প্রত্যেক পর্বতারোহীকে নেপাল সরকারের কাছ থেকে ২৫,০০০ মার্কিন ডলার মূল্যের একটি ব্যয়বহুল পারমিট সংগ্রহ করতে হয়। এতে আরোহণ করতে গিয়ে এ পর্যন্ত ২১০ জন পর্বতারোহী প্রাণ হারিয়েছেন, এর মধ্যে ৮ জন ১৯৯৬ সালে পর্বতের অত্যন্ত উঁচুতে ঝড়ের কবলে পড়ে প্রাণ হারান। বিশেষত ডেথ জোন এ আবহাওয়া এতোটাই প্রতিকূল যে বেশিরভাগ সময় হতভাগ্য পর্বতারোহীর মৃতদেহ সেখান থেকে উদ্ধার করা সম্ভবপর হয় না। এরকম কিছু দৃশ্য আদর্শ পর্বতারোহণ রুট থেকে লক্ষ্য করা যায় ।

এভারেস্ট আবিষ্কারের আগে মনে করা হত কাঞ্চনজঙ্ঘা পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ। তখন ভারতবর্ষে ব্রিটিশদের শাসন চলছে। ১৮০৮ সালে তারা পুরো ভারত বর্ষে বৃহৎ ত্রিকোণমিতিক জরিপ কাজ শুরু করে।

১৮৪৭ সালের দিকে ব্রিটিশ প্রধান জরিপকারী এন্ডু ওয়াহ হিমালয়ের আশেপাশের এলাকার জরিপ কাজ শুরু করেন। তিনিই প্রথম লক্ষ্য করেন যে কাঞ্চনজঙ্ঘার পাশে আরেকটি পর্বতচূড়া যেটাকে কাঞ্চনজঙ্ঘার থেকেও অনেক উঁচু মনে হয়। এই পর্বতচূড়াটি কাঞ্চনজঙ্ঘার থেকে ১৪০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত। তার একজন কর্মচারীও ভিন্ন জায়গা থেকে বিষয়টি লক্ষ করেন এবং এর নামকরণ করেন Peak-b ।

অনেক সময় এই এভারেস্টে আরোহণ করতে গিয়ে অনেকে মৃত্যু বরণ করেন। এ পর্যন্ত প্রায় ২১০ জনেরও অধিক পর্বত আরোহী মৃত্যু বরন করেছেন। বৃদ্ধ বয়সে বা প্রতিবন্ধী হয়েও এই পর্বতে আরোহণ করে অনেকে রেকর্ড বইয়ে নাম লিখিয়েছেন। এদের মধ্যে ১৯৭৫ সালের ১৬ মে প্রথম নারী হিসেবে এভারেস্ট জয় করেন জাপানের জুনকো তাবেই। ১৯৯৮ সালে প্রথম প্রতিবন্ধী হিসেবে এভারেস্ট জয় করেন যুক্তরাষ্ট্রের টম হুইটেকার। সব থেকে বেশিবার এভারেস্ট চূড়ায় পদার্পণ করেছেন নেপালের আপা শেরপা। ২০১১ সালের মে পর্যন্ত তিনি মোট ২১ বার এভারেস্টে উঠেছেন।

Googleplus Pint
Jafar IqBal
Posts 1521
Post Views 329