MysmsBD.ComLogin Sign Up

টেস্টের আগেই আমিরকে চাপে ফেলছে ইংল্যান্ড!

In ক্রিকেট দুনিয়া - Jul 12 at 12:11pm
টেস্টের আগেই আমিরকে চাপে ফেলছে ইংল্যান্ড!

কথার কৌশল নিয়েছে ইংল্যান্ড। পাকিস্তানের সাথে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে মোহাম্মদ আমিরকে তারা কথার মারপ্যাচে চাপে ফেলতে চাচ্ছে। একের পর এক ক্রিকেটার আমিরের ব্যাপারে নানা নেতিবাচক কথা বলে যাচ্ছেন। এবার সেই দলে যোগ দিলেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ও ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসেন। তিনি বলেছেন, ম্যাচ পাতানোয় জড়িত থাকা কারো দ্বিতীয় সুযোগ পাওয়ার অধিকার নেই।

লর্ডসে ১৪ জুলাই শুরু হচ্ছে ইংল্যান্ড-পাকিস্তান প্রথম টেস্ট। ২০১০ সালে এই লর্ডসের টেস্টে খেলেছিলেন পিটারসেন। সেবার টাকা নিয়ে এই মাঠেই নো বল করে ধরা পড়েছিলেন আমির। টিনেজার আমিরকে তখন ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে গেলো বছর ফিরেছেন আমির। আর কাকতালীয়ভাবে টেস্টে ফিরছেন লর্ডস টেস্ট দিয়েই।

৩৬ বছরের পিটারসেন মনে করেন ম্যাচ পাতানোয় জড়িতদের আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ করা উচিৎ। "তারা নিয়ম ভাঙে। এর মূল্য চুকানো উচিৎ। দ্বিতীয় কোনো সুযোগ তাদের জন্য না। যদি আপনি ড্রাগ বা টাকা নিয়ে ইচ্ছে করে খারাপ খেলেন তাহলে প্রতারণা করছেন দর্শক, সতীর্থ ও খেলার সাথে।" পিটারসেন বলেছেন, "মানুষের সবসময় দ্বিতীয় সুযোগ প্রাপ্য। কিন্তু খেলা ভিন্ন। এখানে ফেরার আর সুযোগ নেই।"

এর আগে সাবেক স্পিনার গ্রায়েম সোয়ান বলেছেন, আমিরের মতো ফিক্সারদের আজীবন নিষিদ্ধ করা উচিৎ ছিল। ইংলিশ অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক বলেছেন, লর্ডসে দর্শকদের কটুক্তির শিকার হতে পারেন আমির। কিন্তু পিটারসেন বলেছেন ২৪ বছরের আমিরকে উত্যক্ত করা হলে ক্ষতি হবে ইংল্যান্ড দলেরই। পিটারসেনের ভাষায়, "সে আগের মতোই দ্রুত গতির, তেমনই প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। সে সরব। বুঝিয়ে দেয় যে আপনাকে বল করছে। ইংলিশ দর্শকদের কথা হজম করে ফেলবে, পিছু হটবে না। দর্শকের কথা বা প্রতিপক্ষের স্লেজিং তাকে আরো ভালো কিছু করতে জাগিয়ে তুলতে পারে। দর্শকদের তাই ইংল্যান্ডের স্বার্থেই তেমন কিছু করা ঠিক হবে না। ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়দের আমিরের অতীতে মন দেওয়ার দরকার নেই।"

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 7106
Post Views 280