MysmsBD.ComLogin Sign Up

ব্লাড ক্যান্সার সম্পর্কে এই গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলি জেনে রাখুন

In সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস - Jul 09 at 9:53am
ব্লাড ক্যান্সার সম্পর্কে এই গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলি জেনে রাখুন

ক্যানসার নামটির সম্পর্কে আজকাল সকলেই কমবেশি পরিচিত। এটি এমন একটি রোগ যা মানুষকে একেবারে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়ে তবেই দম নেয়। সারা পৃথিবীতে ক্যানসার রোগ আজ প্রায় মহামারীর আকারে ছড়িয়ে পড়েছে।

ক্যানসারের একটি ধরন হল ব্লাড ক্যানসার। রক্ত যে কোশ দিয়ে তৈরি সেই কোশে এই কর্কট রোগ বাসা বাঁধে। এটি প্রধানত হাড়ের অস্থিমজ্জা থেকে উৎপন্ন হয়। এই রোগ হলে রক্তে শ্বেত কণিকা তৈরিতে অসুবিধা হয়। ফলে রক্তে ভারসাম্য নষ্ট হয়।

এই রোগ হলে দীর্ঘদিন ধরে জ্বর, শারীরিক দুর্বলতা, মুখ-নাক দিয়ে রক্ত পড়া, গাঁটে ব্যথা ইত্যাদি হতে পারে।

এই রোগ সম্পর্কে আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জেন নিন একনজরে....

• লিউকোমিয়া রক্তের কোশকে আক্রমণ করে। বিশেষ করে শ্বেতকণিকাকে। হাড়ের অস্থিমজ্জা থেকে এটি ডালপালা মেলে।

• দুই ধরনের লিউকোমিয়া হতে পারে। আর দুই ক্ষেত্রেই চিকিৎসা পদ্ধতি বেশ জটিল ও খরচ সাপেক্ষ।

• লিউকোমিয়া মহিলাদের চেয়েও পুরুষদের বেশি করে আক্রান্ত করে। মহিলাদের চেয়ে পুরুষদের ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ৩১ শতাংশ বেড়ে যায়।

• এই ধরনের ক্য়ানসার খুব বেশি মানুষের হয় না। প্রতি দশ লক্ষে মাত্র ৩৫ জনের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এই রোগে আক্রান্ত প্রতি ৩৫ জনের মধ্যে ৫ জন শিশু হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

• শিশু থেকে ১৪ বছর বয়সীদের মধ্যে ক্য়ানসারে আক্রান্ত হয়ে যতজন মারা যায় তার অধিকাংশই ব্লাড ক্যানসারের শিকার বলে জানিয়েছেন সমীক্ষকেরা।

• পরিণত বয়স্কদের মধ্যে যারা বেশি ধূমপান করেন তাদের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি থাকে।

• ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার পরে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত তা ধরা পড়ে না। অমেক সময়ে একেবারে শেষ পর্যায়ে এসে ধরা পড়লে তখন চিকিৎসা করা দুরহ হয়ে যায়।

• যে সব ব্যক্তি ফরমালডিহাইডের মতো রাসায়নিক নিয়ে কাজ করেন অথবা যারা নানা ধরনের বিকিরণের মধ্যে বেশি থাকেন তাদের ব্লাড ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল থাকে।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6983
Post Views 303