MysmsBD.ComLogin Sign Up

গ্রিজমানের জোড়া গোলে ফাইনালে ফ্রান্স

In ফুটবল দুনিয়া - Jul 08 at 10:03am
গ্রিজমানের জোড়া গোলে ফাইনালে ফ্রান্স

২০০০ সালে ইউরোর শিরোপা জেতার পর পরবর্তী সাত আসরে সেমিফাইনাল খেলতে পারেনি ফ্রান্স। ঘরের মাঠে দারুণ ফুটবল উপহার দিয়ে এবার শেষ চারে উঠে ফ্রান্স। সেমিতে তাদের প্রতিপক্ষ ছিল বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি। টানা ষষ্ঠ সেমিফাইনাল খেলা জার্মানি ছিল বেশ আত্মবিশ্বাসী। দল হিসেবে জার্মানিকেই এগিয়ে রেখেছিল বিশ্লেষকরা। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে ঠিকই নিজেদের জাত চিনিয়েছে ফ্রান্স।

২-০ গোলে জার্মানিকে হারিয়ে ফাইনালে ‍উঠেছে ফ্রান্স।

জোড়া গোল করেছেন ফ্রান্সের অঁতোয়ান গ্রিজমান। বৃহস্পতিবার রাতে মার্সেইয়ে ম্যাচের পুরোটা সময় আধিপত্য বিস্তার করে রাখে জার্মানি। বল পজিশনে দু্ই দলের পরিসংখ্যান ছিল, জার্মানি ৬৮%-৩২% ফ্রান্স। পরিসংখ্যানই বলে দেয় জার্মানি ফাইনালে যেতে কতটুকু মুখিয়ে ছিল! কিন্তু গোল না পাওয়ায় খালি হাতে বিদায় নিতে হয়েছে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের। অন্যদিকে আগামী রোববার পর্তুগালকে ফাইনালে আতিথীয়তা দিবে ফ্রান্স।

ম্যাচের শুরুতেই সপ্তম মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সূবর্ণ সুযোগ পায় ফ্রান্স। তিন ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে বল নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে যান গ্রিজমান। কিন্তু তার কোনাকুনি শট বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে শেষ রক্ষা করেন গোলরক্ষক মানুয়েল নয়ার। ১৩ মিনিটে থমাস মুলারের ভারসাম্যহীন শট বারপোস্টের অনেক বাইরে দিয়ে চলে যায়। ১৪ মিনিটে এমরে কানের শট ঠেকিয়ে দেন উগো লরিস। প্রথমার্ধের শেষ সময়ে গ্রিজমানের গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ফ্রান্স। অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ স্টার গ্রিজমান স্পটকিকে দলকে এগিয়ে নেন। বাস্তিয়ান শোয়াইনস্টাইগারের হাতে বল লাগায় পেনাল্টি দেন রেফারি।

এরপর ৭২ মিনিটে দ্বিতীয় গোল হজম করে জার্মানি। এবারও নায়ক গ্রিজমান। রাইট ব্যাক জসুয়া কিমিচের ভুলে ডি-বক্সে বল পান পল পগবা। তার ক্রস থেকে দ্বিতীয় গোল করেন গ্রিজমান। এরপর আর ম্যাচে ফেরত আসতে পারেনি জার্মানি।

১৯৫৮ সালে বিশ্বকাপে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচের পর প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে জার্মানির বিপক্ষে এই প্রথম জিতল ফ্রান্স। ঘরের মাঠে শিরোপার থেকে মাত্র এক পা দূরে ফ্রান্স। পর্তুগাল না ফ্রান্স কে হবে ইউরোর সেরা? প্রশ্নের উত্তর মিলবে আগামী রোববার।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6983
Post Views 209