MysmsBD.ComLogin Sign Up

Search Unlimited Music, Videos And Download Free @ Tube Downloader

ঈদের সাজে মেহেদি হাতে

In সাজগোজ টিপস - Jul 01 at 10:21am
ঈদের সাজে মেহেদি হাতে

মেহেদি না দিলে কি আর উৎসবের আনন্দে পূর্ণতা পায়! তাছাড়া শুধু মেহেদি দিলেই চলবে না, চাই মনের মতো নকশা আর গাঢ় রং।

মেহেদির নকশা এবং রং কীভাবে গাঢ় করা যায় তারই কিছু পন্থা দেওয়া হল।

বাজারে বিভিন্ন নামের গোল্ড মেহেদি পাওয়া যায় যা পাঁচ থেকে ১০ মিনিটে গাঢ় রংয়ের দাবী করে থাকে। কিন্তু সেগুলো পুরোপুরি কেমিকল। যা ত্বকের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। যতটা সম্ভব প্রাকৃতিক মেহেদি ব্যবহার করা উচিত। সম্ভব হলে মেহেদি ঘরে বেটেই তৈরি করে নেওয়া যেতে পারে।

বাজারে মেহেদিগুঁড়া কিনতে পাওয়া যায়, এর সঙ্গে লেবুর রং ও তেল মিশিয়ে কোণ তৈরি করে নেওয়া যায়।

মেহেদি লাগানোর আগে অবশ্যই হাত ভালোভাবে ধুয়ে ও মুছে শুকিয়ে নিতে হবে বলে জানান সুহেলি। আর মেহেদি শুকিয়ে উঠিয়ে ফেলার পর পানি দিয়ে না ধুয়ে সামান্য তেল মাখিয়ে রাখার পরামর্শ দেন সুহেলি।

মেহেদি ওঠানোর পর পাঁচ থেকে সাত ঘণ্টা হাতে পানি না লাগানোই ভালো, এতে মন মতো গাঢ় রং পাওয়া যাবে।

বাজারে ঈদের আগে নানা মেহেদিতে ভরে যায়। থাকে গাঢ় রংয়ের দাবী। আবার অনেকের পছন্দ কালো মেহেদি। কিন্তু এগুলো কোনো ভাবেই প্রাকৃতিক মেহেদি নয়, পুরোপুরি কেমিকল রং।

তিনি বলেন, “প্রাকৃতিক মেহেদি থেকে মন মতো গাঢ় রং পেতে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হয়। যেসব মেহেদি থেকে দ্রুত গাঢ় রং হয় সেগুলো পুরোপুরি কেমিকল রং। এসব মেহেদি ব্যবহারে হাতের ত্বকের নানান সমস্যা হতে পারে। যেমন, চামড়া খসখসে হয়ে যাওয়া, চামরা ওঠা, চুলকানো ইত্যাদি। তাই এ ধরনের মেহেদি এড়িয়ে চলাই ভালো। আর মেহেদি কেনার সময় তারিখ দেখে কেনা উচিত। কারণ পুরানো মেহেদিতে গাঢ় রং হয় না।”

মেহেদি যদি ঘরে বেটে কোণ তৈরি করা হয় তাহলে চাইলে কচি পেয়ারা পাতা, লেবুর রস, চা ইত্যাদি মিশিয়ে নেওয়া যেতে পারে। এই উপাদানগুলো মেহেদির রং গাঢ় হতে সাহায্য করে।

গাঢ় রং পাওয়ার জন্য আরও কিছু পরামর্শও:

মেহেদি লাগানোর পর যখন শুকাতে শুরু করবে তখন একটি পাত্রে লেবুর রস ও চিনি মিশিয়ে একটি মিশ্রণ গুলিয়ে নিন। আঠালো মিশ্রণটি তুলার সাহায্যে হালকা শুকিয়ে যাওয়া মেহেদির উপর অল্প করে ছড়িয়ে দিন। এতে রং অনেকটা ফুটবে। তাছাড়া রাতে মেহেদি দেওয়াও ভালো, এতে অনেকটা সময় থাকে এবং রং গাঢ় হয়।

চিকন চিকন ডিজাইন দিয়ে হাত না ভরে কিছু ভরাট ডিজাইন রাখতে হবে, এতে রং ফুটবে। মেহেদি শুকাতে শুরু করলে জিরা ভেজানো পানিও ব্যবহার করা যেতে পারে। মেহেদি তোলার পর গরম তাওয়ার কিছু দূর থেকে হাত সেঁকে নিলেও রং অনেক গাঢ় হয়।

ঘরে বাটা মেহেদির রং কমলা হয়ে যায়। এই রং গাঢ় করতে চা পাতা জ্বাল দিয়ে তার মধ্যে সারা রাত মেহেদি পাতা বা মেহেদিগুঁড়া ভিজিয়ে রাখতে হবে। পরদিন বেটে হাতে লাগাতে হবে। মেহেদিগুঁড়ার সঙ্গে এক চামচ কফি পাউডার মিশিয়ে নিলেও রং গাঢ় হবে।

Googleplus Pint
Md Sobuj Ahmed
Posts 217
Post Views 639