MysmsBD.ComLogin Sign Up

[Trick] Uc Browser দিচ্ছে ৪০০০টাকা করে বিকাশে। বাংলাদেশ থেকে প্রথম থেকে ৪০০০ জন পাবে ৪০০০ টাকা করে করে।

রয়ের তাণ্ডবে সিরিজ ইংল্যান্ডের!

In ক্রিকেট দুনিয়া - Jun 30 at 8:47am
রয়ের তাণ্ডবে সিরিজ ইংল্যান্ডের!

চার অর্ধশতকে তিনশ’ রানের বড় সংগ্রহ গড়েও লন্ডনে জেতা হয়নি শ্রীলঙ্কার। জেসন রয়ের ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিংয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই ওয়ানডে সিরিজ নিশ্চিত করেছে ইংল্যান্ড।

চতুর্থ ওয়ানডেতে শ্রীলঙ্কাকে ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ৬ উইকেটে হারিয়েছে ওয়েন মর্গ্যানের দল। এই জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে স্বাগতিকরা।

আগের তিন ম্যাচের প্রথমটি ড্র হয়, পরেরটি ১০ উইকেটে জেতে ইংল্যান্ড, তৃতীয়টি হয় পরিত্যক্ত।

লন্ডনের কেনিংটন ওভালে বুধবার টস হেরে ব্যাট করতে নামা শ্রীলঙ্কার ইনিংসের ১৯তম ওভারে বৃষ্টি নামে। এক ঘণ্টার বেশি সময় পরে খেলা শুরু হলে ম্যাচের দৈর্ঘ্য নেমে আসে ৪২ ওভারে।

তাতে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩০৫ রান করে শ্রীলঙ্কা। ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের লক্ষ্য দাড়ায় ৩০৮ রান। সিরিজে রয়ের দ্বিতীয় শতকে ১১ বল হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড।

লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতেই মঈন আলিকে হারায় ইংল্যান্ড। ১৫ মাস পর ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমে দলকে হতাশ করেছেন এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। তবে দ্বিতীয় উইকেটে জো রুটের সঙ্গে রয়ের ৫৯ রানের জুটি দলকে জয়ের ভিত গড়ে দেয়।

৫৪ বলে ৯টি চারে ৬৫ রান করে রুটের বিদায়ে ভাঙে ১৭.৫ ওভার স্থায়ী জুটি। অধিনায়ক মর্গ্যানের সঙ্গে ৫৪ ও বেয়ারস্টোর সঙ্গে ৬০ রানের আরো দুটি ভালো জুটিতে দলকে জয়ের পথে নিয়ে যান তৃতীয় শতক পাওয়া রয়।

রয়ের আগের সেরা ছিল ১১২ রান। এবার সেটাকে ছাড়িয়ে থামেন ১৬২ রানে। তার ১১৮ বলের আক্রমণাত্মক ইনিংসটি ১৩টি চার ও ৩টি ছক্কা সমৃদ্ধ।

৩৯ বলে আসে রয়ের অর্ধশতক। তিন অঙ্কে যেতে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান সব মিলিয়ে খেলেন ৭৪ বল।

শেষ তিন ম্যাচে দ্বিতীয় শতক পাওয়া রয়ের বিদায়ের পর বাকি কাজটুকু সহজেই সারেন বেয়ারস্টো ও জস বাটলার।

এর আগে দ্বিতীয় ওভারেই কুশল পেরেরাকে হারানো শ্রীলঙ্কা প্রতিরোধ গড়ে দানুশকা গুনাথিলাকা ও কুশল মেন্ডিসের ব্যাটে। দ্বিতীয় উইকেটে এই দুই জনে গড়েন ১২৪ রানের চমৎকার জুটি।

বৃষ্টির আগে চমৎকার ব্যাটিং করা এই দুই ব্যাটসম্যান আবার খেলা শুরু হলে বেশিক্ষণ উইকেটে থাকেননি। ৬৪ বলে ১৩টি চারে সর্বোচ্চ ৭৭ রান করে মেন্ডিসের বিদায়ে ভাঙে শ্রীলঙ্কার প্রতিরোধ।

এক ওভার বিরতিতে টপ অর্ডারের আরেক ব্যাটসম্যান গুনাথিলাকাকেও বিদায় করেন লেগ স্পিনার আদিল রশিদ। ৬৪ বলে ৬২ রান করে ফিরেন গুনাথিলাকা।

চতুর্থ উইকেটে দিনেশ চান্দিমালের সঙ্গে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের ৮৭ রানের জুটিতে দুই থিতু ব্যাটসম্যানকে হারানোর ধাক্কা সামাল দেয় শ্রীলঙ্কা। একটি চার আর তিনটি ছক্কায় ৫১ বলে ৬৩ রান করে ফিরেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান চান্দিমাল।

শেষের দিকে দাসুন শানাকার সঙ্গে ২২ বলে অবিচ্ছিন্ন ৪৬ রানের জুটিতে দলের সংগ্রহ তিনশ’ ছাড়ান ম্যাথিউস। ৫৪ বলে অপরাজিত ৬৭ রানের চমৎকার ইনিংস খেলেন তিনি।

তবে তার এই দৃঢ়তভরা ব্যাটিং দলকে জয় এনে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল না।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
শ্রীলঙ্কা: ৪২ ওভারে ৩০৫/৫ (পেরেরা ১, গুনাথিলাকা ৬২, মেন্ডিস ৭৭, চান্দিমাল ৬৩, ম্যাথিউস ৬৭*, প্রসন্ন ৯, শানাকা ১৯*; রশিদ ২/৫৮, উইলি ২/৫৮)

ইংল্যান্ড: ৪০.১ ওভারে ৩০৯/৪ (রয় ১৬২, মঈন ২, রুট ৬৫, মর্গ্যান ২২, বেয়ারস্টো ২৯*, বাটলার ১৭*; প্রদিপ ২/৭৮, গুনাথিলাকা ১/৩০, লাকমল ১/৪৮)

ফল: ইংল্যান্ড ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ৬ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: জেসন রয়।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Posts 3365
Post Views 401