MysmsBD.ComLogin Sign Up

ম্যারাডোনার বিশ্বকাপ থাকলে মেসির আছে বার্সেলোনা!

In ফুটবল দুনিয়া - Jun 29 at 3:39pm
ম্যারাডোনার বিশ্বকাপ থাকলে মেসির আছে বার্সেলোনা!

অবসরের ঘোষণার পর মেসিকে নিয়ে চারদিকে চলছে হৈ-চৈ। অনেকেই বলছেন ফুটবল ক্যারিয়ারে কি নিয়ে ফিরছেন 'সর্বকালের সেরা' এই ফুটবলার? সর্বকালের সেরা দুই গ্রেটের সঙ্গে পরিসংখ্যান মেলালে দেখা যাচ্ছে- বিশ্বকাপ ছাড়া বাকি একটি জায়গায় মেসির সঙ্গে তাদের অর্জন একদম সমান। তবে একটা জায়গায় মেসি অনেক এগিয়ে, কি সেটা?

বিশ্বকাপ— পেলে ৩, ম্যারাডোনা ১, মেসি ০।

কোপা— পেলে ০, ম্যারাডোনা ০, মেসি ০।

দেশের জার্সিতে তিন লাতিন আমেরিকান ফুটবল ঈশ্বরেরই সর্বোত্তম সাফল্য-মঞ্চ দু’টো। বিশ্বকাপ আর কোপা। লাতিন আমেরিকান কাপ পেলে-ম্যারাডোনা-মেসি তিন কিংবদন্তির ক্যারিয়ারেই ফাঁকি দিয়েছে।

আর বিশ্বকাপ যদি বিবেচ্য হয়, সে তো মেসির ক্লাব সতীর্থদেরও আছে। ইনিয়েস্তা, পিকে, বুস্কেতস, জাভি— এলএম টেনের বার্সা টিমমেটদের ট্রফি ক্যাবিনেটে বিশ্বকাপের যে রেপ্লিকা জ্বলজ্বল করে, পাঁচ বারের ব্যালন ডি’অরের শো-কেসে তা নেই।

তাতে কি প্রমাণ হয় জাভি-ইনিয়েস্তারও সেরা মেসির চেয়ে?

ব্যালান্স শিটের অন্য দিকে বার্সেলোনার মেসির ক্যাবিনেটে আটটা লা লিগা, চারটে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। যে পরিসংখ্যান যেন ‘মেসি দেশের চেয়ে বেশি ক্লাবের’ স্লোগানকে আরও উচ্চকিত করে তুলছে। দেশ বনাম ক্লাব দ্বৈরথকে আরও বেশি উস্কানি দিচ্ছে।

কিন্তু চার দশক আগের পেলে আর তিন দশক আগের মারাদোনার পৃথিবী আর গুগল-হোয়াটসঅ্যাপের বর্তমান যুগের মধ্যে দূরত্ব ফুটবল মাঠের সেন্টার লাইন থেকে গোল পোস্টের দূরত্বের চেয়েও কয়েকশো গুণ বেশি। টেনিস, গল্ফ, বাস্কেটবলের মতো অন্য ‘গ্লোবাল স্পোর্টে’ তফাতটা তো আরও স্পষ্ট। আরও ব্যাপক। নিষ্ঠুরও।

আসলে আর্জেন্টিনার শেষ তিনটে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে তীরে এসে তরী ডোবা মেসির দেশজ দায়বদ্ধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার সাহস জোগাচ্ছে।

২০১৪ বিশ্বকাপ ফাইনালে জার্মানির কাছে হার। ২০১৫ কোপা ফাইনালে চিলির কাছে হার। ২৬ জুন, ২০১৬ শতবর্ষের কোপা ফাইনালেও হার সেই চিলির কাছে! তিন বছরে তিন বার। দেশের হয়ে বড় কোনও ট্রফি আর হাতের মাঝে শেষ মুহূর্তে ফাঁক থেকে গেল ফুটবল রাজপুত্রের! তারও আগে ২০০৭ কোপা ফাইনাল হার। ২০০৮ অলিম্পিক্স সোনা আর তার আগে অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপ মেসির দেশজ কেরিয়ারে দু’টো মাত্র সাফল্য হয়ে থেকে গেল। ফুটবল-সৌরজগতে মেসি নামক উজ্জ্বল নক্ষত্রের ক্ষেত্রে যা মামুলি সাফল্য।

ফুটবলে তো তবু ক্লাব বনাম দেশ প্রশ্নের মধ্যেও দু’টোই টিমগেম। বার্সেলোনায় ইনিয়েস্তা-নেইমার-সুয়ারেজের পাশে খেললে মেসির যা হয়, আর্জেন্টিনা দলে দি’মারিয়া, হিগুয়াইন, আগুয়েরোর সঙ্গে খেলে হয় না। কিন্তু দিনের শেষে দু’টোই এগারো জনের সম্মিলীত প্রয়াস। স্কিল। প্রতিভা। মেসি তার মধ্যে এক্স ফ্যাক্টর, এই যা।

তাহলে মেসির আর্জেন্টিনা না থাক, বার্সেলোনা তো আছে! থাকলও।

দু'একটা কোপা আর বিশ্বকাপ জেতানোতেই কি মেসির মেধার মূল্যায়ন করবে মানুষ? সময়ই বলে দেবে।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 4120
Post Views 359