MysmsBD.ComLogin Sign Up

ত্রিদেশীয় সিরিজের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া

In ক্রিকেট দুনিয়া - Jun 27 at 1:00pm
ত্রিদেশীয় সিরিজের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া

ঘরের মাঠে আয়োজিত ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জয়ের পথে অনেকখানিই এগিয়ে গিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গ্রুপ পর্বের তিনটি ম্যাচ জিতে চলে গিয়েছিল ফাইনালে। কিন্তু শিরোপা জয়ের অন্তিম লড়াইয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আর সফলতা পেল না ক্যারিবীয়রা। মিচেল মার্শের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স আর জস হ্যাজেলউডের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ভর করে অস্ট্রেলিয়া পেয়েছে ৫৮ রানের জয়। ২৭১ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৪৫.৪ ওভারের মধ্যেই ২১২ রানে গুটিয়ে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস।

ব্যাট হাতে ৩২ রান করার পর বল হাতে মার্শ নিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ তিনটি উইকেট। নিজের টানা তিন ওভারে ড্যারেন ব্রাভো (৬), মারলন স্যামুয়েলস (৬) ও জনসন চার্লসকে (৪৫) সাজঘরে ফিরিয়ে উইন্ডিজকে বিপাকে ফেলে দিয়েছিলেন মার্শ। ২১ ওভার শেষে স্বাগতিকদের স্কোর দাঁড়িয়েছিল : ৭৪/৪। দ্রুত টপ অর্ডারের তিন নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যানের উইকেট হারানোর ধাক্কা আর সামলে উঠতে পারেনি উইন্ডিজ। ৪০ ও ৩৪ রানের ইনিংস খেলে কিছুটা লড়াই চালিয়েছিলেন দিনেশ রামদিন ও অধিনায়ক জ্যাসন হোল্ডার। কিন্তু ছোট এই ইনিংসগুলো জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল না। নিজের শেষ তিন ওভারে চারটি উইকেট নিয়ে স্বাগতিকদের ২১২ রানেই আটকে দিয়েছেন হ্যাজেলউড। সব মিলিয়ে ৯.৪ ওভার বল করে ৫০ রানের বিনিময়ে পাঁচটি উইকেট নিয়েছেন এই ডানহাতি পেসার। মার্শ তিনটি উইকেট নিয়েছেন মাত্র ৩২ রান খরচে।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বড় কোনো ইনিংস খেলতে পারেননি অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরাও। তবে অস্ট্রেলিয়ার স্কোরবোর্ডটা ছিল দলীয় সমন্বয়ের দারুণ এক উদাহরণ। সাত নম্বরে ব্যাট করতে নেমে সর্বোচ্চ ৫৭ রান করে অপরাজিত ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার উইকেটরক্ষক ম্যাথু ওয়াডে। ৪৭ রান করেছেন ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ। ৪৬ রান এসেছে অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের ব্যাট থেকে। মিচেল মার্শের ৩২, জর্জ বেইলির ২২, মিচেল স্টার্কের ১৭ ও নাথান কোউল্টার-নাইলের ১৫ রানের ছোট ইনিংসগুলোও বড় অবদান রেখেছে অস্ট্রেলিয়ার লড়াইয়ের পুঁজি সংগ্রহের পেছনে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে দুটি করে উইকেট পেয়েছেন জ্যাসন হোল্ডার ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 6704
Post Views 293