MysmsBD.ComLogin Sign Up

Search Unlimited Music, Videos And Download Free @ Tube Downloader

ইফতারের প্যাকেট ভাগাভাগি নিয়ে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ!

In দেশের খবর - Jun 26 at 8:50am
ইফতারের প্যাকেট ভাগাভাগি নিয়ে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ!

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ইফতারির প্যাকেট ভাগাভাগি নিয়ে পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রুবেল হোসেনের নেতৃত্বে দুইপক্ষের সংঘর্ষে দুইজন আহত হয়েছে।

আহতরা হলেন— পৌর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলামের ভগ্নিপতি সাইদুর রহমান ঝালু (৪০) ও তার ছেলে আসাদুল (২৩)।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় পৌর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে দলীয় নেতা কর্মী নিয়ে ইফতারের আয়োজন করা হয়। ইফতার শেষে ইফতারের কয়েক প্যাকেট বেচে যায়। এই বেচে যাওয়া প্যাকেট পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রুবেল হোসেন দুইটি প্যাকেট নিয়ে চলে যায়।

এই সময় পৌর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম ছাত্রলীগ নেতা রুবেলকে নিয়ে যেতে বারণ করে। এতে ছাত্রলীগ নেতা রুবেল ও তার ছাত্রলীগের সহযোগিরা শহিদুল ইসলামের সঙ্গে তর্কেবিতর্কে জরিয়ে পরে।

তর্কেবিতর্কের এক পর্যায় রুবেল ক্ষুদ্ধ হয়ে শহিদুল ইসলামকে গলাধাক্কা-ধাক্কি ও চড়-থাপ্পড় মারে। এই সময় পরিস্থিত উত্তাপ্ত হলে উপস্থিত আওয়ামী লীগ নেতারা পরিস্থিত শান্ত করে। পরে বিষয়টি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বদিউজ্জামানকে অবহিত করা হয়।

আলোচনা অবস্থায় পৌর ছাত্রলীগ নেতা রুবেল হোসেনের নের্তৃত্বে পৌর ছাত্রলীগের সংগঠনিক সম্পাদক শাকিল আহম্মেদ, সোহাগ, খাদেমুলসহ তাদের দলবল নিয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে শহিদুল ইসলামের ছোট ভাই শাকিরকে (২৫) ঘিরে ফেলে এই খবর জানতে পরে যুবলীগ নেতা মামুন ঘটনাস্থলে ছুটে গেলে ছাত্রলীগ নেতা রুবেলের ক্যাডারেরা সবাইকে ঘিরে ফেলে।

এই অবস্থায় রড ও হাঁসুয়ার আঘাতে আওয়ামী লীগ নেতা শহিদুল ইসলামের ভগ্নিপতি সাইদুর রহমান ঝালুর মাথায় আঘাত করলে মাথা ফেটে যায়। এই সময় সংর্ঘষ থামাতে গিয়ে তার ছেলে আসাদুল আহত হয়।

তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা উদ্ধার করে গোদাগাড়ী ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে সাইদুর রহমান ঝালুর অবস্থা আশঙ্কা জনক বলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান।

উল্লেখ্য যে, এই বেপরোয়া ছাত্রলীগ নেতা ৩য় দফায় ঘোষিত গোদাগাড়ী উপজেলা ইউপি নির্বাচনের সময় তার পছন্দের ব্যক্তিকে নির্বাচনকালীন ডিউটি না দেয়াই রিটার্নিং অফিসার ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শামসুল কবিরকে মারধর করে।

এছাড়াও সে বিভিন্ন নৈরাজ্যের কাজে জড়িত আছে বলে জানা যায়। এই বিষয়ে পৌর ছাত্রলীগ নেতা রুবেল হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোন খোলা পাওয়া যায়নি।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Posts 3323
Post Views 143