MysmsBD.ComLogin Sign Up

ব্রিটিশ ফাস্ট লেডির কান্না!

In আন্তর্জাতিক - Jun 25 at 5:38pm
ব্রিটিশ ফাস্ট লেডির কান্না!

ভালই কাঁটছিলো তাদের, হঠাৎ কাল ঝড় নামলো তাদের জীবনে। ছয় বছরের ভালোবাসা মুহূর্তেই উবে গেলো। বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ডেভিড ক্যামেরন তার স্ত্রী সামান্থা ক্যামেরনকে ছয় বছর আগে তুলেছিলেন ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের বাসায়।

সেখানে তারা রচনা করেছিলেন এক ভালোবাসার নীড়। ওই বাসাটির প্রতিটি জিনিসের সঙ্গে তাদের অন্য রকম এক সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। প্রতিটি তৃণগুল্মের সঙ্গে তাদের জমেছিল ভাব। ব্রেক্সিট নামের ঝড়ে তা বালুচরে মিশে গেছে। ডেভিড ক্যামেরন বাধ্য হয়ে পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন।

গতকাল ডাউনিং স্ট্রিটের সামনে যখন ক্যামেরন নিজেকে বারবার সংবরণ করে বিদায়ী বক্তব্য রাখছিলেন তখন তার পাশে দাঁড়ানো সেই সামান্থা ক্যামেরন।

তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন। কিন্তু অনেক কষ্টে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করেন। তবে ক্যামেরার চোখে ধরা পড়ে যায় তার মুখাবয়বের অভিব্যক্তি। তার চোখ-মুখ তখন কান্নায় ফেটে পড়ছে। তিনি বারবার নিজেকে সংবরণ করার চেষ্টা করছেন। তার স্বামী ডেভিড ক্যামেরন যখন বক্তব্য শেষ করলেন তখন সেই কান্না মাখানো মুখে সামান্থা ফুটিয়ে তোলেন হাসি।

হাসি-কান্নার এক অবিমিশ্র দৃশ্য সৃষ্টি হয়। এ সময় ডেভিড ক্যামেরন তার স্ত্রীর হাত ধরেন। তার কাঁধের ওপর হাত রাখেন। নীরবে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের দরজার ভেতর ঢুকে পড়েন তারা। উল্লেখ্য, বিদায়ী বক্তব্য দেয়ার সময় ডেভিড ক্যামেরনও প্রায় কেঁদে ফেলেন। নিজের সঙ্গে এক রকম যুদ্ধ করে তিনি নিজেকে সংবরণ করেন।

ব্রেক্সিট ফল ঘোষণা হওয়ার পরপরই খবর আসছিল ক্যামেরন পদত্যাগের ঘোষণা দেবেন। স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় তিনি এমন ঘোষণা দেনে। কিন্তু প্রায় ২০ মিনিট বিলম্বে তারা ডাউনিং স্ট্রিট থেকে বেরিয়ে আসেন। এ সময়ে বিদায়ী ভাষণ দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন ক্যামেরন।

-বিবিসি

Googleplus Pint
Noyon Khan
Posts 3294
Post Views 153