MysmsBD.ComLogin Sign Up

খারাপ স্বপ্ন দেখলে বা একই স্বপ্ন বারবার দেখলে কি করবেন?

In ইসলামিক শিক্ষা - Jun 24 at 4:35pm
খারাপ স্বপ্ন দেখলে বা একই স্বপ্ন বারবার দেখলে কি করবেন?

হাদীসে এসেছে
ﻭﻋﻦ ﺃﺑﻲ ﺳﻌﻴﺪ ﺍﻟﺨﺪﺭﻱ ﺭﺿﻲ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﺃﻧﻪ ﺳﻤﻊ ﺍﻟﻨﺒﻲ ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ ﻳﻘﻮﻝ : “ ﺇﺫﺍ ﺭﺃﻯ ﺃﺣﺪﻛﻢ ﺭﺅﻳﺎ ﻳﺤﺒﻬﺎ ﻓﺈﻧﻤﺎ ﻫﻲ ﻣﻦ ﺍﻟﻠﻪ ﺗﻌﺎﻟﻰ ﻓﻠﻴﺤﻤﺪ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻬﺎ ﻭﻟﻴﺤﺪﺙ ﺑﻬﺎ ” ،
ﻭﻓﻲ ﺭﻭﺍﻳﺔ : “ ﻓﻼ ﻳﺤﺪﺙ ﺑﻬﺎ ﺇﻻ ﻣﻦ ﻳﺤﺐ، ﻭﺇﺫﺍ ﺭﺃﻯ ﻏﻴﺮ ﺫﻟﻚ ﻣﻤﺎ ﻳﻜﺮﻩ ﻓﺈﻧﻤﺎ ﻫﻲ ﻣﻦ ﺍﻟﺸﻴﻄﺎﻥ، ﻓﻠﻴﺴﺘﻌﺬ ﻣﻦ ﺷﺮﻫﺎ ﻭﻻ ﻳﺬﻛﺮﻫﺎ ﻷﺣﺪ، ﻓﺈﻧﻬﺎ ﻻ ﺗﻀﺮﻩ ” ﻣﺘﻔﻖ ﻋﻠﻴﻪ .
ﺍﻟﺤﺪﻳﺚ ﺭﻭﺍﻩ ﺍﻟﺒﺨﺎﺭﻱ ﻓﻲ ﻛﺘﺎﺏ ﺍﻟﺘﻌﺒﻴﺮ ‏( ﺑﺎﺏ ﺍﻟﺮﺅﻳﺎ ﺍﻟﺼﺎﻟﺤﺔ ﻣﻦ ﺍﻟﻠﻪ ‏) ﻭﻣﺴﻠﻢ ﻓﻲ ﺃﻭﻝ ﻛﺘﺎﺏ ﺍﻟﺮﺅﻳﺎ .

আবু সায়ীদ খুদরী রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছেন: তোমাদের কেউ যদি এমন স্বপ্ন দেখে যা সে পছন্দ করে, তাহলে জানবে যে তা আল্লাহর পক্ষ থেকে দেখানো হয়েছে। তখন সে যেন আল্লাহ তাআলার প্রশংসা করে ও অন্যদের কাছে বর্ণনা করে।

অন্য এক বর্ণনায় এসেছে, এ স্বপ্নের কথা শুধু তাকে বলবে, যে তাকে ভালোবাসে।

আর যদি স্বপ্ন অপছন্দের হয়, তাহলে বুঝে নেবে এটা শয়তানের পক্ষ থেকে হয়েছে। তখন সে শয়তানের ক্ষতি থেকে আল্লাহ তাআলার কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করবে আর এ স্বপ্নের কথা কারো কাছে বলবে না। কারণ খারাপ স্বপ্ন তার কোনো ক্ষতি করতে পারবে না। (বর্ণনায় : বুখারী ও মুসলিম)

এ হাদীস থেকে আমরা জানতে পারলাম :

এক. যা কিছু ভাল স্বপ্ন, সেটা আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে হয়ে থাকে। আর খারাপ স্বপ্ন শয়তানের কুমন্ত্রণা ও প্রভাবের কারণে দেখে থাকে।

দুই. ভাল স্বপ্ন দেখলে এমন ব্যক্তির কাছে বলা যাবে, যে তাকে ভালোবাসে। যে ভালোবাসে না, এমন ব্যক্তির কাছে কোনো স্বপ্নের কথা বলা যাবে না। হতে পারে সে ভাল স্বপ্নটির একটি খারাপ ব্যাখ্যা দাঁড় করিয়ে দেবে।

তিন. ভাল স্বপ্ন দেখলে আলহামদুলিল্লাহ বলে আল্লাহ তাআলার প্রশংসা করতে হবে।

চার. খারাপ স্বপ্ন দেখলে কারো কাছে বলা উচিত নয়।

পাঁচ. খারাপ স্বপ্ন দেখলে নিদ্রা থেকে জাগ্রত হওয়া মাত্র আল্লাহ তাআলার কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করে বলতে হবে আউযুবিল্লাহি মিনাশ শাইতানির রাজীম।

হাদীসে এসেছে :

ﻋﻦ ﺃﺑﻲ ﻗﺘﺎﺩﺓ ﺭﺿﻲ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﻗﺎﻝ : ﻗﺎﻝ ﺍﻟﻨﺒﻲ ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ “ ﺍﻟﺮﺅﻳﺎ ﺍﻟﺼﺎﻟﺤﺔ ” ﻭﻓﻲ ﺭﻭﺍﻳﺔ “ ﺍﻟﺮﺅﻳﺎ ﺍﻟﺤﺴﻨﺔ ﻣﻦ ﺍﻟﻠﻪ ﻭﺍﻟﺤﻠﻢ ﻣﻦ ﺍﻟﺸﻴﻄﺎﻥ، ﻓﻤﻦ ﺭﺃﻯ ﺷﻴﺌﺎً ﻳﻜﺮﻫﻪ ﻓﻠﻴﻨﻔﺚ ﻋﻦ ﺷﻤﺎﻟﻪ ﺛﻼﺛﺎً ﻭﻟﻴﺘﻌﻮﺫ ﻣﻦ ﺍﻟﺸﻴﻄﺎﻥ، ﻓﺈﻧﻬﺎ ﻻ ﺗﻀﺮﻩ ” ﻣﺘﻔﻖ ﻋﻠﻴﻪ .
ﺭﻭﺍﻩ ﺍﻟﺒﺨﺎﺭﻱ ﻓﻲ ﺍﻟﺘﻌﺒﻴﺮ ‏( ﺑﺎﺏ ﺍﻟﺮﺅﻳﺎ ﺍﻟﺼﺎﻟﺤﺔ ﺟﺰﺀ ﻣﻦ ﺳﺘﺔ ﻭﺃﺭﺑﻌﻴﻦ ﺟﺰﺀﺍً ‏) ﻭﺃﺑﻮﺍﺏ ﺃﺧﺮﻯ ﻭﺑﺪﺀ ﺍﻟﺨﻠﻖ ‏( ﺑﺎﺏ ﺻﻔﺔ ﺇﺑﻠﻴﺲ ﻭﺟﻨﻮﺩﻩ ‏) ﻭﻣﺴﻠﻢ ﻓﻲ ﺃﻭﻝ ﻛﺘﺎﺏ ﺍﻟﺮﺅﻳﺎ .

আবু কাতাদাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন: সুন্দর স্বপ্ন আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে হয়ে থাকে আর খারাপ স্বপ্ন শয়তানের পক্ষ থেকে। কেউ স্বপ্নে খারাপ কিছু দেখলে বাম পাশে তিনবার থুথু নিক্ষেপ করবে আর শয়তান থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করবে। ( এভাবে বলবে, আউজুবিল্লাহি মিনাশ শাইতানির রাজীম) তাহলে এ স্বপ্ন তাকে ক্ষতি করতে পারবে না। (বর্ণনায় : বুখারী ও মুসলিম)

এ হাদীস থেকে আমরা জানতে পারলাম :

এক. ভাল স্বপ্ন আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে হয়ে থাকে।

দুই. খারাপ স্বপ্ন শয়তানের পক্ষ থেকে এসে থাকে।

তিন. খারাপ স্বপ্ন দেখলে সাথে সাথে তিনবার বাম দিকে থুথু ফেলে আউজুবিল্লাহি মিনাশ শাইতানের রাজীম বলতে হবে। তবে সত্যিকার থুথু ফেলবে না। মানে মুখ থেকে পানি নির্গত হবে না। শুধু আওয়াজ করবে। কেননা হাদীসে নাফাস শব্দ এসেছে। যার অর্থ এমন হাল্কা থুথু যাতে পানি বা শ্লেষ্মা নেই

চার. এই আমলটা করলে খারাপ স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে না।

হাদীসে এসেছে

ﻋﻦ ﺟﺎﺑﺮ ﺭﺿﻲ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﻋﻦ ﺭﺳﻮﻝ ﺍﻟﻠﻪ ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ
ﻗﺎﻝ : “ ﺇﺫﺍ ﺭﺃﻯ ﺃﺣﺪﻛﻢ ﺍﻟﺮﺅﻳﺎ ﻳﻜﺮﻫﻬﺎ ﻓﻠﻴﺒﺼﻖ ﻋﻦ ﻳﺴﺎﺭﻩ ﺛﻼﺛﺎً، ﻭﻟﻴﺴﺘﻌﺬ ﺑﺎﻟﻠﻪ ﻣﻦ ﺍﻟﺸﻴﻄﺎﻥ ﺛﻼﺛﺎً، ﻭﻟﻴﺘﺤﻮﻝ ﻋﻦ ﺟﻨﺒﻪ ﺍﻟﺬﻱ ﻛﺎﻥ ﻋﻠﻴﻪ ” ﺭﻭﺍﻩ ﻣﺴﻠﻢ .
ﻓﻲ ﺃﻭﻝ ﻛﺘﺎﺏ ﺍﻟﺮﺅﻳﺎ .

জাবের রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন: যদি তোমাদের কেউ এমন স্বপ্ন দেখে যা সে পছন্দ করে না, তাহলে তিনবার বাম দিকে থুথু দেবে। আর তিন বার শয়তান থেকে আল্লাহ তাআলার কাছে আশ্রয় চাবে। (আউজুবিল্লাহি মিনাশ শাইতানির রাজীম বলবে) আর যে পার্শ্বে শুয়েছিল, তা পরিবর্তন করবে। (অর্থাৎ পার্শ্ব পরিবর্তন করে শুবে) (বর্ণনায় : মুসলিম)

হাদীস থেকে আমরা শিখতে পারলাম :

এক. খারাপ স্বপ্ন দেখলে তিনবার বাম দিকে থুথু নিক্ষেপ করা ও তিনবার আউজুবিল্লাহি মিনাশ শাইতানির রাজীম বলা তারপর পার্শ্ব পরিবর্তন করে শোয়া সুন্নাত।

দুই. পার্শ্ব পরিবর্তন করা মানে হল, ডান কাতে শুয়ে থাকলে বাম দিকে ফিরবে। তেমনি বাম কাতে শুয়ে থাকলে ডানে ফিরবে।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Posts 3266
Post Views 1088