MysmsBD.ComLogin Sign Up

সেহরির পর যে কাজগুলো করবেন না

In সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস - Jun 17 at 11:42am
সেহরির পর যে কাজগুলো করবেন না

রমজান আত্মশুদ্ধি ও সংযমের মাস। এ রোজায় আমরা ধর্মীয় সওয়াবের পাশাপাশি শারীরিকভাবে বিভিন্ন উপকার পেয়ে থাকি। যেমন—ওজন কমা, উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগ রোগের ঝুঁকি কমা, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকা এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়া।

তবে এসব উপকার পাওয়ার জন্য আদর্শ খাদ্যতালিকা অনুসারে সেহরিতে খাবার খেতে হবে আপনাকে। পাশাপাশি সেহরির পর থেকে ইফতার পর্যন্ত কিছু নিয়ম মানতে হবে স্বাস্থ্যঝুঁকি কমানোর জন্য।

সেহরির পর স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ায় যে কাজগুলো



সেহরির পর ক্লান্ত শরীরে গাড়ি চালাবেন না

রোজাতে ঘুমের স্বাভাবিক চক্র বিঘ্নিত হয়। অপর্যাপ্ত ঘুম শরীরের সমন্বয়, বিচার-বিশ্লেষণ নষ্ট করে এবং স্মৃতিশক্তি দুর্বল করে। তাই এ সময় পর্যাপ্ত ঘুম না হলে শরীর ক্লান্ত লাগে। পাশাপাশি চোখে ঝাপসা দেখতে পারেন এবং মনোযোগ নষ্ট হতে পারে। তাই গাড়ি চালানো থেকে বিরত থাকুন। এতে সড়ক দুর্ঘটনা হতে পরে।

সেহরির পর জিমে ব্যায়াম করা যাবে না

জিমে ব্যায়াম করলে মাংসপেশি থেকে জমানো গ্লাইকোজেন খরচ হয়ে তাড়াতাড়ি শরীর ক্লান্ত হয়। এতে মাথাব্যথা, বমি বমি ভাব হয়ে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়তে পারেন।

ব্যায়াম হিসেবে হাঁটাহাঁটি করা যাবে, তবে দৌড়ানো নয়

দৌড়ালে শরীরে তাপ তৈরি হয়ে ঘাম হয়। এতে পানিশূন্যতা দেখা দিতে পারে। পাশাপাশি কিডনির স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়।

দীর্ঘ সময় ফুটবল ও সাঁতার কাটা যাবে না

সেহরির পর দীর্ঘ সময় ফুটবল খেললে ও সাঁতার কাটলে শরীরের শক্তি তাড়াতাড়ি খরচ হয়। এতে ক্লান্ত লাগে।

বেশি গরম পরিবেশে লম্বা সময় কাজ করা যাবে না

গরমে বেশি কাজ করলে শরীরের পিএইচ (pH) পরিবর্তন হয়ে সমস্ত বিপাক কাজকর্ম বন্ধ হয়ে যায়। শরীর থেকে দরকারি পানি ও ইলেকট্রোলাইট (লবণ ও মিনারেল) বের হয়ে মাথাব্যথা, বমি বমি ভাব, চোখে ঝাপসা, কর্মক্ষেত্রে মনোযোগ নষ্ট হওয়া ইত্যাদি সমস্যা হতে পারে। এমনকি সচেতন না হলে মৃত্যুও হতে পারে।

ডায়াবেটিস রোগীরা বেশি পরিশ্রমের ব্যায়াম করবেন না

ডায়াবেটিস রোগীরা বেশি পরিশ্রমের ব্যায়াম করবেন না। এতে রক্তের গ্লুকোজ কমে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে যেতে পারেন। রাগ করবেন না, এতে হরমোন এড্রেনালিন ও কর্টিসলের ভারসাম্য নষ্ট হয়ে, রক্তচাপ ও হার্টবিট বাড়িয়ে রোগ প্রতিরোধ কমিয়ে দিতে পারে।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 3787
Post Views 304