MysmsBD.ComLogin Sign Up

চোখের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় কিছু খাবার

In সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস - Jun 17 at 9:53am
চোখের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় কিছু খাবার

আধুনিক প্রযুক্তির এই যুগে আমরা প্রতিনিয়ত কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট, মোবাইল ইত্যাদি ব্যবহার করি। এতে চোখের উপর একটা বাড়তি চাপ পড়ে। ফলে অল্প বয়সেই চোখে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। কাজেই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় এমন কিছু পুষ্টিকর খাবার রাখুন যা চোখের সুরক্ষায় কাজ করবে। বিভিন্ন পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ এসব খাবার শুধু চোখের সুস্থতাই নিশ্চিত করে না, একইসঙ্গে চোখে ছানি পড়া, রাতকানা রোগ ও বার্ধক্যজনিত অন্ধত্ব থেকেও চোখকে রক্ষা করে।

জেনে নিন চোখের স্বাস্থ্য ও দৃষ্টিশক্তি সুরক্ষায় খাবেন যেসব খাবার.....

গাজর
গাজরে বিটা ক্যারোটিন নামে এমন এক ধরনের উপাদান রয়েছে যা চোখের জন্য ভালো। খাবারটি চোখের জ্যোতি বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এছাড়া মিষ্টি আলুতেও যথেষ্ট পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন রয়েছে। চোখের সুরক্ষায় এটিও খাওয়া ভালো।

সবুজ শাকসবজি
সুস্থ থাকতে সবুজ শকসবজি খাওয়ার বিকল্প নেই। চোখের স্বাস্থ্যের জন্যও এই খাবারটি প্রয়োজন। এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং লুটিন রয়েছে যা কোনো নীল আলো বা লাইটকে চোখের রেটিনার ওপর প্রভাব ফেলা থেকে বিরত রাখে।

টমেটো
টমেটোতে লাইকোপিন থাকায় তা অতিরিক্ত আলোতে কাজ করার ফলে যে সমস্যা হয় তা কমায়। চোখের জন্য নানা প্রয়োজনীয় উপাদান যেমন আঁশ, খনিজ ক্যারোটিন – সবই রয়েছে রসালো টমেটোতে।

মুরগির মাংস
মুরগির মাংসে প্রচুর জিঙ্ক এবং ভিটামিন বি রয়েছে, যা চোখের স্বাস্থ্য রক্ষায় বিশেষ ভূমিকা রাখে। কাজেই এটিও প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় রাখা ভালো।

কমলালেবু
ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই ফলটি চোখের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এর ভিটামিন সি চোখের দৃষ্টি স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে।

ডিমের কুসুম
ডিমের কুসুমে যথেষ্ট পরিমাণে জিংক থাকায় তা চোখকে ‘মাসকুলার ডিজেনারেশন’ সমস্যা থেকে বাঁচায়৷ এ সমস্যা সাধারণত ৫০ বছর বয়সের পরে দেখা দেয়।

ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড
বিভিন্ন সামুদ্রিক মাছ যেমন-স্যামন, সার্ডিন, ম্যাকরেল, কড, টুনা প্রর্ভতি মাছে প্রচুর ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে যেগুলো চোখের জন্য বেশ উপকারী। এসব মাছ চোখের দৃষ্টিশক্তি স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে এবং চোখকে নানা সমস্যা থেকে দূরে রাখে।

রঙিন ফল ও সবজি
হলুদ, সবুজ, কমলা রঙের, অর্থাৎ গাজর, কমলা, পেঁপে, ক্যাপসিকাম, ভুট্টা ইত্যাদি বিভিন্ন রঙের ফলমূল ও শাকসবজিতে ভিটামিন এ রয়েছে। এগুলো রাতকানা রোগ থেকে চোখকে সুরা দেয়। কাজেই এগুলোও খাওয়ার চেষ্টা করুন।

বাঁধাকপি
বাঁধাকপিতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি রয়েছে যা চোখের জন্য ভালো। বাঁধাকপি দামে সস্তা এবং সব জায়গায় পাওয়া যায় তাছাড়া সহজে নষ্ট হয় না।

সুন্দর, স্লিম আর সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য আমরা কত কিছুই না করি। অথচ চোখ দুটোর প্রতি আমরা কেউই তেমন একটা গুরুত্ব দেই না। এতে পরবর্তীতে চোখের নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। কাজেই চোখের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিয়মিত উপর্যুক্ত খাবারগুলো খাওয়ার চেষ্টা করুন।

Googleplus Pint
Anik Sutradhar
Posts 7002
Post Views 124