MysmsBD.ComLogin Sign Up

রোজাদার নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে অমানবিক কাজ করছে সরকার : জামায়াত

In দেশের খবর - Jun 12 at 10:40pm
রোজাদার নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে অমানবিক কাজ করছে সরকার : জামায়াত

সারাদেশে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীদের গণ-গ্রেফতারের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে জামায়াত। দলটির সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার রোববার এক বিবৃতিতে বলেন, সরকার পবিত্র রমজান মাসে সারাদেশে অন্যায়ভাবে গণ-গ্রেফতার অভিযান চালিয়ে জামায়াত-শিবিরের নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে রমজানের পবিত্রতা ক্ষুণ্ন করছে।

তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী রংপুর জেলার গংগাচরা উপজেলা জামায়াতের আমীর অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলামসহ ৫ কর্মীকে, মানিকগঞ্জ সদর দক্ষিণ সাংগঠনিক উপজেলা আমীর মাওলানা নূরুল ইসলাম ও হরিরামপুর উপজেলা সেক্রেটারী সেকান্দর আলী, যশোর শহরে একজন মহিলাসহ ৬ জন কর্মীকে, যশোর পূর্ব সাংগঠনিক জেলা জামায়াতের ১৫ জন কর্মীকে, পশ্চিম সাংগঠনিক জেলা জামায়াতের ৬ জন কর্মীকে ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের ১ জন কর্মীকে, ঝিনাইদহে জামায়াতের ৬ জন কর্মী ও ছাত্রশিবিরের ৪ জন কর্মীকে, কুষ্টিয়ায় ১৩ জন, মাগুরায় ৭ জন, নড়াইলে ১ জন, মেহেরপুরে ১ জন, সিলেটে ১ জন ও হবিগঞ্জে ২ জন কর্মীকে, মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রশিবিরের সভাপতি মাহফুজ সুমনকে, সিলেট উত্তর সাংগঠনিক জেলায় জামায়াতের ২ জন কর্মীকে, সিলেট দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলায় জামায়াতের ১ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ৪ জন, দিনাজপুরে ৩ জন, পঞ্চগড়ে ১ জন, নীলফামারীতে ১ জন ও সুনামগঞ্জে ১ জন কর্মীসহ সারাদেশে জামায়াতে ইসলামী এবং ইসলামী ছাত্রশিবিরের বহু সংখ্যক নেতা-কর্মীকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে।

তিনি বলেন, সরকার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দিয়ে পবিত্র রমজান মাসে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের রোজাদার নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে নির্যাতন চালিয়ে কষ্ট দিয়ে অমানবিক কাজ করছে। ইসলামের প্রতি বিশ্বাস থাকলে সরকার এভাবে রোজাদার নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে কষ্ট দিতে পারত না। পবিত্র রমজান মাসে গ্রেফতার অভিযান চালিয়ে রোজাদার লোকদের হয়রানি করার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য তিনি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান। জামায়াতের এ নেতা পবিত্র রমজান মাসের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করে গ্রেফতার অভিযান বন্ধ করে সারাদেশে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের গ্রেফতারকৃত সব নেতা-কর্মীকে অবিলম্বে নিঃশর্তভাবে মুক্তি দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

বাণিজ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ : গত ১১ জুন ভোলা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ “জঙ্গি নামে যারা ধরা পড়ছে তারা জামায়াত-শিবির। জামায়াত-শিবির এসপির স্ত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে” মর্মে যে মন্তব্য করেছেন তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি হামিদুর রহমান আজাদ। তিনি বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রী জামায়াতে ইসলামীকে জড়িয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা একেবারে অসত্য।

তার এ বক্তব্যের কোন ভিত্তি নেই। তিনি জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ন করার হীন উদ্দেশ্যেই অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন। তোফায়েল আহমেদের বক্তব্যের জবাবে আমাদের স্পষ্ট বক্তব্য হলো, জঙ্গি নামে যারা ধরা পড়েছে তাদের কারো সাথে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের কোন সম্পর্ক নেই এবং এসপির স্ত্রীকে জামায়াত-শিবিরের হত্যা করার প্রশ্নই আসে না। জামায়াত সব সময়ই হত্যা ও সন্ত্রাসের রাজনীতিকে ঘৃণা করে। জামায়াত-শিবিরকে জড়িয়ে ভিত্তিহীন অসত্য বক্তব্য প্রদান করা থেকে বিরত থাকার জন্য তিনি তোফায়েল আহমেদের প্রতি আহ্বান জানান। বিজ্ঞপ্তি।

Googleplus Pint
Asifkhan Asif
Posts 1372
Post Views 29