MysmsBD.ComLogin Sign Up

পরীক্ষার আগে কতটুকু ঘুমাবেন?

In লাইফ স্টাইল - Jun 05 at 7:00pm
পরীক্ষার আগে কতটুকু ঘুমাবেন?

পরীক্ষার আগের দিন রাতে অনেকেই চিন্তার কারণে ও পড়ার চাপে ঘুমান না। যার প্রভাব পড়ে পরীক্ষার ওপর। পরীক্ষা ভালো দিতে ঘুম অনেক বেশি জরুরি, কারণ পরিমিত ঘুম আপনার মস্তিষ্ক সচল রাখে এবং পড়া মনে রাখতে সাহায্য করে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, পরীক্ষার আগের রাতেও আট ঘণ্টা ঘুমানো জরুরি। অন্তত ছয় ঘণ্টা ঘুমাতেই হবে। না হলে পরীক্ষা খারাপ হওয়ার আশঙ্কা থাকবে। কিন্তু চাইলেও অনেকে পরীক্ষার আগের রাতে ঘুমাতে পারে না।

এ সময় ঘুম না আসারও অনেক কারণ রয়েছে। এগুলো এড়িয়ে চললেই রাতে ভালো ঘুম হবে এবং ঠান্ডা মাথায় পরীক্ষাও দিতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে উইকিহাউ ওয়েবসাইটের এই পরামর্শগুলো একবার দেখে নিতে পারেন।

১. ঘুমানোর অন্তত দুই ঘণ্টা আগে রাতের খাবার খেয়ে ফেলুন। ভরা পেটে বিছানায় গেলে ঘুম আসে না। আর ভারী, ফাস্টফুডজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন। প্রয়োজন হলে রাতে ঘুমানোর সময় হালকা খাবার খেতে পারেন।

২. আগের দিন রাতে কোকা-কোলা কিংবা চিপস খাবেন না। লেটুস পাতা দিয়ে বানানো সালাদ খেতে পারেন। আখরোট বা বাদামও খেতে পারেন, যা ভালো ঘুম হতে সাহায্য করে। চাইলে একটা কলাও খেতে পারেন। এটি আপনার পেশিকে শিথিল করবে।

৩. রাতে চা না খেয়ে ননিমুক্ত দুধ খেতে পারেন, যা আপনার ক্লান্তি দূর করে ঘুমাতে সাহায্য করবে। আর ভালো ঘুমের জন্য এটা খুবই জরুরি। কারণ, বেশি ক্লান্ত থাকলে ঘুম আসে না।

৪. ভুলেও ঘুমের ওষুধ খাবেন না। এতে পরদিন পরীক্ষার সময় আপনার ঘুম পাবে এবং ক্লান্ত লাগবে। এর ফলে আপনি পরীক্ষার পড়া ভুলে যাবেন।

৫. আপনার যদি একেবারেই ঘুম না আসে, তাহলে আবার পড়তে যাবেন না। চোখ বন্ধ করে শুয়ে থাকুন। এতে মস্তিষ্ক শিথিল থাকবে এবং আপনার সব পড়া মনে থাকবে।

৬. নেপোলিয়ন যেকোনো সময় যেকোনো জায়গায় ঘুমিয়ে যেতে পারতেন। এর একটাই কারণ, তিনি ঘুমানোর আগে তার সব চিন্তাভাবনা ড্রয়ারে রেখে ঘুমাতেন। আপনিও এমনটা করতে পারেন। ভাববেন, আপনার সব চিন্তা এখন ড্রায়ারে বন্দি। দেখবেন, নিশ্চিন্ত মনে ঘুমাতে পারবেন।

৭. সারা দিন কী করেছেন, চোখ বন্ধ করে মনে মনে ভাবেন। দেখবেন, কখন ঘুমিয়ে পড়বেন টেরও পাবেন না।

৮. ঘুমানোর আগে চোখের চারপাশে হলকাভাবে কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করুন। এতে অনেক জলদি ঘুম চলে আসবে।

৯. ঘুমানোর আগে হালকা ব্যায়াম করে নিন। চাইলে যোগব্যায়ামও করতে পারেন। এতে ভালো ঘুম হবে।

১০. রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে সকালে তাড়াতাড়ি উঠুন। সাকলের পড়া বেশি মনে থাকে। তবে অবশ্যই টেবিলে বসে পড়বেন। বিছানায় পড়লে আবারও ঘুম পাবে আপনার, যা পড়ায় সমস্যা সৃষ্টি করবে।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Posts 4142
Post Views 299