MysmsBD.ComLogin Sign Up

ইচ্ছা মত ব্যাট বানাতে পারবেন না গেইল-কোহলিরা!

In ক্রিকেট দুনিয়া - Jun 04 at 8:16am
ইচ্ছা মত ব্যাট বানাতে পারবেন না গেইল-কোহলিরা!

ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানদের ব্যাটের আকার-আকৃতি নির্ধারণ করে দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। গতকাল লর্ডসে দু’দিনব্যাপী আইসিসি সভায় ক্রিকেটের কিছু কিছু নিয়মের পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে।

এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- ক্রিকেট ব্যাটের আকার-আকৃতি নির্ধারণ। এছাড়া ব্যাটসম্যানদের হেলমেট বাধ্যতামূলক, টেস্ট ক্রিকেটের পীচ প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক উপযোগী করা ছাড়াও আরও অনেক কিছু।

সভায় সভাপতিত্ব করেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে আইসিসি কমিটির চেয়ারম্যান অনিল কুম্বলে।

আশি বা নব্বই দশকে যে ব্যাট দিয়ে খেলেছেন ক্লাইভ লয়েড, ইয়ান বোথাম, কপিল দেবরা, সেই ব্যাটের আকৃতির সাথে বর্তমানের ব্যাটগুলোর আকৃতিতে বেশ তফাত। তাই তো ওয়ানডে বা টুয়েন্টি টুয়েন্টি ক্রিকেটে রানের বন্যায় স্কোর বোর্ড ভাসিয়ে দেন ব্যাটসম্যানরা।

তাতে বোলারদের অসহায়ত্ব ফুটে উঠছে সর্বত্র। কারণ বর্তমান যুগের ব্যাটগুলো অনেক বেশি চওড়া এবং কিছুটা লম্বা আকৃতির হয়ে থাকে। অনেক ব্যাটসম্যান নিজেদের সুবিধা অনুযায়ী ব্যাটও তৈরি করে থাকেন।

তাই ব্যাটসম্যানদের ব্যাটের আকৃতি নিয়ে নতুন নিয়ম করেছে আইসিসি। যাতে ব্যাটসম্যানদের দাপটে ম্যাচগুলো একপেশে না হয়ে যায় এবং ম্যাচে বোলারদের অস্থিত্ব কিছুটা হলেও থাকে। তাই ব্যাটের নতুন নিয়ম বেঁধে দিয়েছে আইসিসি।

নতুন নিয়মে ব্যাটের হ্যান্ডেলের নীচের অংশের দৈর্ঘ্য ৩৮ ইঞ্চি বা ৯৬.৫ সেন্টি মিটার হবে। আর প্রস্থ হবে ৪.২৫ ইঞ্চি বা ১০.৮ সেন্টি মিটার। তবে ব্যাটের গভীরতা কত হবে তার কোন নিয়ম করেনি আইসিসি।

ক্রিকেট মাঠে ব্যাটসম্যানদের হেলমেট নিয়ে খেলতে বাধ্যতামূলক করেছে আইসিসি। কারণ মাথায় বলের আঘাতে অনেকেই ভয়াবহ ইনজুরিতে পড়ছেন। যার প্রমাণ পাওয়া যায় অস্ট্রেলিয়ার ফিলিপ হিউজের মৃত্যু।

আর সেটির উদাহরণ ধরেই সভায় হেলমেট না থাকায় ব্যাটসম্যানদের ইনজুরিতে পড়ার বিষয়টি তুলে ধরেন আইসিসির মেডিকেল কলসালটেন্ট ডা, ক্রেইগ র্যানসন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে আইসিসি জানায়, 'ব্রিটিশ সেফটি স্ট্যান্ডার্ডে(বিএসএস) হেলমেট পরছেন না ব্যাটসম্যানরা।

ফলে ব্যাটম্যানরা ইনজুরিতে পড়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে।'

তাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সঠিক নিয়মে ব্যাটসম্যানদের হেলমেট পড়া বাধ্যতামূলক করেছে আইসিসি।

এছাড়া পীচ নিয়েও আলাপ-আলোচনা হয়েছে আইসিসির সভায়। বিশেষভাবে টেস্ট ক্রিকেটের পীচ। টেস্ট ম্যাচে যারা স্বাগতিক দল থাকে তারা তাদের সুবিধা মত পীচ বানিয়ে ম্যাচটিকে একপেশে বানিয়ে ফেলে। তাই টেস্ট ম্যাচের পীচ নিয়ে আরও বেশি সর্তক থাকার পরামর্শও দিয়েছে আইসিসি।

আইসিসির পরবর্তী সভা আগামী জুলাইয়ে অনুষ্টিত হবে স্কটল্যান্ডের এডিনবার্গে।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Posts 3489
Post Views 551