MysmsBD.ComLogin Sign Up

জিওনি ইলাইফ এস৭ : ডিজাইনে দারুণ, মানে মাঝারি

In মোবাইল ফোন রিভিউ - Jun 03 at 11:12am
জিওনি ইলাইফ এস৭ : ডিজাইনে দারুণ, মানে মাঝারি

দেশের বাজারে এসেই বাজিমাত করে জিওনির ফ্ল্যাগশিপ ফোন ইলাইফ এস৭। মাঝামাঝি রেঞ্জের স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে দেখতে নজরকাড়া ফোনটির চাহিদাও এখন বেশ। তবে দামের বিবেচনায় পারফরম্যান্সের দিক থেকে এটি খুব বেশি আশাব্যঞ্জক নয়।

এক নজরে স্মার্টফোনটির ভালো-মন্দের কিছু দিক থাকছে এ রিভিউতে।



ডিজাইন দারুন
বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা স্মার্টফোন তৈরির খ্যাতি রয়েছে জিওনির। এ মডেলটি যেন সেটির একটি উদাহরণ। এটি মাত্র সাড়ে পাঁচ মিলিমিটার পুরু।

১২৬ দশমিক ৫ গ্রামের ওজনের গ্লাস ও ম্যাগনেশিয়াম অ্যালয়ের মাধ্যমে তৈরি ফোনটির বাহ্যিক দিক সত্যিই চমৎকার। উভয় দিকই কর্নিং গোরিলা গ্লাস-৩ দিয়ে তৈরি, যা দুইটি রঙে পাওয়া যাচ্ছে।

ফোনটির সামনের দিকে আছে ৫.২ ইঞ্চির সম্পূর্ণ এইচডি অ্যামোলেড ডিসপ্লে। বর্তমানে দুই সিমের সবচেয়ে স্লিম স্মার্টফোন এটি।

ক্যামেরাতেও সেরা
এতে আছে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা। ক্যামেরার অন্যান্য ফিচারগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো এটির লেন্স অন্য মোবাইলের লেন্স থেকে প্রশস্ত এবং স্বল্প আলোতেও সমান কার্যকর।

এটির ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরাটি লেন্স ডিসপ্লের উপরে অবস্থিত। ক্যামেরার আরেকটি বিশেষত্ব হলো এটি এক সেকেন্ডে ছয়টি ছবি তুলে সম্মিলিতভাবে একটি ছবি প্রকাশ করে।



অপারেটিং সিস্টেম
হালকা-পাতলা স্মার্টফোনটিতে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ অপারেটিং সিস্টেম ও জিওনি নিজস্ব অ্যামিগো ৩.০ সফটওয়্যার, যা স্মার্টফোন ব্যবহারকারীকে থিম, ক্যামেরা সেটিংস ও কন্টাক্ট লিস্ট কাস্টোমাইজ করার সুবিধা দেয়।

গতিশীল প্রসেসর
অল্পদামের মধ্যে উচ্চ ক্ষমতার হার্ডওয়ার যন্ত্রপাতির নিশ্চয়তা দিচ্ছে ইলাইফ এস৭। এতে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক এমটি৬৭৫২ প্রসেসর, যা অনেক স্মার্টফোনের থেকে অনেক বেশি গতিশীল।

ব্যাটারি মাঝামাঝি মানের
এ ফোনে ১৪ ঘন্টা পর্যন্ত চার্জ থাকে। একটানা ভিডিও চলে ৮ থেকে ৯ ঘন্টা পর্যন্ত। প্রি-ইন্সটলড পাওয়ার সেভার অ্যাপ নিশ্চিত করে ব্যাটারির দীর্ঘস্থায়িত্বকাল।

নিচের দিকে থাকা মাইক্রো-ইউএসবি পোর্টের মাধ্যমে ব্যাটারি চার্জ হয়ে থাকে।


অল্পতেই সন্তুষ্ট থাকতে হবে
ইউনিবডি ডিজাইনের কারণে এর ব্যাটারি আলাদা করা যায় না। এ ছাড়া ফোনটিকে স্লিম করার কারণে কোনো মাইক্রোএসডি কার্ড স্লট সুবিধা রাখা হয়নি। ফলে এর ১৬ গিগাবাইট মেমরির মাত্র ১০ গিগাবাইট ব্যবহার যোগ্য হওয়ায় ব্যবহারকারীদের অল্পতেই সন্তুষ্ট থাকতে হবে।

ফোনটির উভয় দিকেই কর্নিং গোরিলা গ্লাস-৩ ব্যবহারের কারণে এটি কিছুটা পিচ্ছিল। হাতে কিংবা কোনো স্থানে রাখতে গেলে সতর্কতার সঙ্গে রাখা উচিত।

দাম কিছুটা বেশিই
দেশের বাজারে এটির দাম ৩২ হাজার ৯৯৯ টাকা। অথচ এ বাজেটে অন্যান্য ব্র্যান্ডের আরও ভালো ফোন মিলবে।

Googleplus Pint
Asifkhan Asif
Posts 1372
Post Views 248